Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ০৮ ফাল্গুন, ১৪২৩, ২২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী।
শিরোনাম

মঠবাড়িয়ায় মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই কার্যক্রম স্থগিত বাদীর রিট আবেদনের কথা অস্বীকার

অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে হাইকোর্টে রিট

| প্রকাশের সময় : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় চলমান মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই কার্যক্রম হাইকোর্টে এক আদেশে তিন মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাইয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাই কমিটির সদস্য শরীফ মো. আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করলে সুপ্রিম কোর্ট হাইকোর্ট ডিভিশন বিচারক সৈয়দ মুহাম্মদ দস্তগীর হোসাইন ও মো. আতাউর রহমান খান এর সমন্বয়ে ডিভিশনের একটি বেঞ্চ মঠবাড়িয়ার মুক্তিযোদ্ধা বাছাই কার্যক্রমে তিন মাসের স্থগিতাদেশ দেন। ওই রিট আবেদনে বাদী মঠবাড়িয়ার মুক্তিযোদ্ধা বাছাই কার্যক্রমে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ আনেন। এ স্থগিতাদেশের সংশ্লিষ্ট কাগজ পত্র ইউএনও’র বরাবরে পাঠানো হয়ছে। উপজেলা প্রশাসন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
উলেখ্য মঠবাড়িয়ায় মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাইয়ে ৭২০ জন তালিকাভুক্ত আবেদনকারীদের সাক্ষাৎকার ১১ ফ্রেবুয়ারি শুরু হয়।
এদিকে হাইকোর্টের রিট আবেদনের পর কার্যক্রম স্থগিত হলে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নেতাদের মধ্যে বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। ওই রিট আবেদন ভুয়া দাবি করে গতকাল শুক্রবার সংশ্লিষ্ট মুক্তিযোদ্ধারা সংসদ কার্যালয়ে একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। বাদী লিখিত আবেদনে দাবি করেন ওই রীট আবেদনে তার সাক্ষর জাল করে কে বা কারা হাইকোর্ট দাখিল করেছে। সংবাদ সম্মেলনে রিট আবেদনে বাদীর লিখিতবক্তব্য পাঠ করেন, মঠবাড়িয়া মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার ও মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাই কমিটির আহ্বায়ক মো. বাচ্চু মিয়া আকন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা এমাদুল হক খান, মোস্তফা শাহ আলম দুলাল, লুৎফর রহমান, মজিবর রহমান মুন্সি, গোলাম রহমান কামাল, শাহদাৎ হোসেন কামাল প্রমুখ।
সংবাদ সম্মেলনে মামলার বাদী অসুস্থতার কারণে উপস্থিত না থাকলেও মুঠো ফোনে তিনি জানান, এ রিট আবেদনে আমি স্বাক্ষর করিনি। রিট আবেদনের বাদীর লিখিত অভিযোগে বলা হয়, বাদীর নাম ব্যবহার করে স্বার্থন্বেষী একটি মহল ভুয়া স্বাক্ষর দিয়ে রিট আবেদন করে যাচাই-বাছাইয়ে জটিলতা ও মুক্তিযোদ্ধাদের বিতর্কিত করছে। বিষয়টি তদন্তের করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাই কমিটির সদস্যরাসহ শতাধিক মুক্তিযোদ্ধা উপস্থিত ছিলেন।
এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও মুক্তিযোদ্ধা বাছাই কমিটির সদস্য সচিব এস এম ফরিদ উদ্দিন স্থগিতাদেশের বিষযটি নিশ্চিত করে বলেন, হাইকোর্টের এক আদেশে চলমান বাছাই প্রক্রিয়া আগামী তিন মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। পরবর্তী আদেশ অনুযায়ী কার্যক্রম শুরু করা হবে।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ