Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

সক্ষমতা ছাড়াই ট্রানজিট

শফিউল আলম । ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম
img_img-1537838702

ভারতকে চট্টগ্রাম ও মংলা সমুদ্র বন্দর ব্যবহারে বাংলাদেশের লাভালাভের বিষয়গুলো পুনরায় সামনে এসেছে। গত ১৭ সেপ্টেম্বর মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ ব্যাপারে চুক্তির খসড়া অনুমোদন দেয়া হয়। এতে বলা হয় এখন বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে চলমান সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক সুদীর্ঘ করার উদ্দেশ্যে এগ্রিমেন্ট অন দা ইউজ অব চট্টগ্রাম অ্যান্ড মংলা পোর্ট ফর মুভমেন্ট অব গুডস টু অ্যান্ড ফ্রম ইন্ডিয়া বিটুইন বাংলাদেশ অ্যান্ড ইন্ডিয়া খসড়ায় অনুমোদন দেওয়া হল। অর্থাৎ ভারতের মালামাল বাংলাদেশের বন্দর ও ভূমি ব্যবহার করে ভারতে যাবে। আবার বিপরীতে রফতানিও হবে। পোর্ট-শিপিং খাতের সংশ্লিষ্টরা বলছেন, চট্টগ্রাম ও মংলা উভয় বন্দরে অবকাঠোমো সুবিধার অভাব রয়েছে। অথচ প্রয়োজনীয় সক্ষমতা না থাকা সত্তে¡ও ভারতকে দেয়া হচ্ছে ট্রানজিট বা করিডোর সুবিধা। তা আর্থিক, বৈষয়িক, কৌশলগত কোনো দিক...


img_img-1537838702

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, খুনি, দুর্নীতিবাজ, অর্থপাচারকারী ঘুষখোর ও সুদখোররা সব আওয়ামী লীগ সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্য গড়েছে। তারা যদি ক্ষমতায় আসতে পারে তবে দেশ ধ্বংস হয়ে যাবে।যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে স্থানীয় সময় রোববার সেখানকার আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক নাগরিক সংবর্ধনায় বক্তৃতাকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। জাতিসংঘ সাধারণ...

মোয়াবিয়া’র (রা.) দরবারে শাদ্দাদের বেহেশত দেখা আবু কালাবা

খালেদ সাইফুল্লাহ সিদ্দিকী । ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম
img_img-1537838702

সাধারণভাবে প্রচলিত যে, শাদ্দাদ তার নির্মিত বেহেশতে প্রবেশ করতে পারেনি। সেখানে পা রাখার আগেই আজরাইল (আ:) তার জান কবজ করেন এবং তার বেহেশতও ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়ে যায়। তবে শাদ্দাদের সাথেই তার বেহেশত ধ্বংস হয়েছিল কিনা তা নিয়ে মতভেদ রয়েছে। বলা হয়ে থাকে, শাদ্দাদের পরও তার...



ঝুলন্ত তার ঝুলছেই

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

রাজধানীর মূল সড়ক কিংবা গলি পথে উপরের দিকে তাকালেই চোখে পড়ে বিদ্যুতের পিলারে বট গাছের ঝুরির মতো ঝুলছে তার। সড়কগুলো ছেয়ে গেছে বিপজ্জনক ঝুলন্ত তারে। সরকারি সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর উদাসীনতা ও যথাযথ আইন প্রয়োগে ব্যর্থতার কারণে বৈদ্যুতিক খুঁটি থেকে সরানো যায়নি তারের জট। এখনও রাজধানীর সড়কগুলোয়...

প্লাস্টিক বস্তায় চাল বিপণন বন্ধ হয়নি

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

চাল ও ধান বাজারজাতকরণে পাটের বস্তা ব্যবহারে সরকারের আইন মানছেন না নীলফামারীর সৈয়দপুরের ব্যবসায়ীরা। যদিও ধান ও চাল বাজারজাতকরণে পাটের বস্তা ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। আর সরকারের কড়া নির্দেশ রয়েছে ওই দুটি পণ্যের মোড়কে কোন প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহার করা যাবে না। কিন্ত তারপরও প্লাস্টিকের বস্তায়...

অভিনয়ে নিয়মিত হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন চাঁদনী

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

বাপ্পা মজুমদার ও চাঁদনীর বিবাহ বিচ্ছেদের পর চাঁদনী এখন তার মায়ের সাথে থাকেন। কেমন আছেন তিনি? এ প্রশ্নের জবাবে বলেন, ভালো আছি। মায়ের সঙ্গে আছি। বসুন্ধরার আবাসিক এলাকায় আমাদের বাসা। এখন বাসাতেই বেশি সময় কাটে। তিনি জানান, একটু সময় নিয়ে মিডিয়ায় আবারও নিয়মিত হবো। দীর্ঘদিন...

বাজারে এলো ‘মেট্রোসেম স্পেশাল’

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

দেশের নির্মাণ শিল্পে নতুন মাত্রা যোগ করতে বাজারে এলো ‘মেট্রোসেম স্পেশাল’ সিমেন্ট। গতকাল কক্সবাজারের কক্স টুডে হোটেলে বর্ণিল আয়োজনের মধ্য দিয়ে মেট্রোসেম স্পেশালর মোড়ক উন্মোচন করেন মেট্রোসেম সিমেন্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুহাম্মদ শহীদ উল্লাহ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মেট্রোসেম সিমেন্টের পরিচালক মো. আসাদ উল্লাহ্, পরিচালক মো....

প্রভিশন ঘাটতি বেড়েছে ১২ হাজার কোটি টাকা

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
noimage

খেলাপি ঋণ অস্বাভাবিক হারে বেড়ে যাওয়ার সঙ্গে বাড়তে শুরু করে ঋণের বিপরীতে জমা রাখা প্রভিশন (নিরাপত্তা সঞ্চিতি) ঘাটতি। যা সবশেষ ছয়মাসের ব্যবধানে বেড়েছে ১২ হাজার কোটি টাকার বেশি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এখনই খেলাপি ঋণের লাগাম টানতে না পারলে ভবিষ্যতে প্রভিশন ঘাটতির পর্যায়ক্রমে বাড়তেই থাকবে। সময় এসেছে খেলাপি...

আন্তর্জাতিক

দাবি না মানলে অনির্দিষ্টকাল অবরোধ চালানোর হুঁশিয়ারি

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

বিশ্ববিদ্যালয় স্তরে সাঁওতালি ভাষার স্বীকৃতির দাবিতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে অনির্দিষ্টকালের জন্য রেল ও সড়ক অবরোধের ডাক দিয়েছেন আদিবাসীরা। প্রথমে ‘ভারত জাকাত মাঝি পরগনা মহাল’ নামে একটি আদিবাসী সংগঠন এই অবরোধের ডাক দিলেও পরে তাতে সমর্থন দেয় আদিবাসী সংগঠনগুলোর মোর্চা ‘আদিবাসী সমন্বয় মঞ্চ’। এর ফলে অবরোধের রেশ...

ইসলামী বিশ্ব

মুসলিম বিশ্বে শান্তি-স্থিতিশীলতা বেশি প্রয়োজন : এরদোগান

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

সউদী আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজকে মুসলিম বিশ্বের বিপজ্জনক চ্যালেঞ্জ নিয়ে সতর্কতার কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান। রবিবার সউদী আরবের জাতীয় দিবস উপলক্ষে পাঠানো এক বার্তায় এরদোগান বলেন, এই অবস্থায় মুসলিম বিশ্বের স্থিতিশীলতা প্রয়োজন। এরদোগান বলেন, ইসলামি বিশ্ব এখন গুরুতর চ্যালেঞ্জের মুখে...

খেলাধুলা

‘এমন জয় তৃপ্তির, মন ভরানোর’

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

একই সময়ে শুরু হলো দুটি ম্যাচ। তবে একটি যায়গায় দুবাই আর আবু ধাবি মিশে গেলো এক বিন্দুতে, বাংলাদেশের ফাইনাল স্বপ্ন।এশিয়া কাপের ফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখতে গতপরশু শেখ আবু জায়েদ স্টেডিয়ামে আফগানিস্তানকে শুধু হারালেই হতে না, দুবাইয়ে চির প্রতিদ্ব›দ্বীতার ম্যাচে ভারতের কাছে হারতে হতো পাকিস্তানকে। রোহিত-ধাওয়ানের...

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

আজকের প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন: আমরা জানি যে, আকিকার নিয়ম হলো ছাগল দিয়ে করা। যদি কেউ গরু দিয়ে আকিকা করতে চায় এর নিয়ম কি?

 উত্তর : আকিকার নিয়ম মূলত দুম্বা, ছাগল বা খাসি দিয়ে দেওয়া। ইজতেহাদ করে বিশেষজ্ঞ ফকীহগণ বড় পশুর ভাগ দিয়েও আকিকা করা যায় বলে মত প্রকাশ করেছেন। যার ওপর উম্মতের আমলও পাওয়া যায়। তবে, খাসী দিয়ে দিতে পারলে কেউ গরু দিয়ে...

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
inqilabqna@gmail.com

প্রবাস জীবন

দুবাই স্টেডিয়াম যেন এক টুকরো বাংলাদেশ

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ মানেই বাড়তি উত্তেজনা। এশিয়া কাপের সুপার ফোরের প্রথম পর্বে শুক্রবার দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার খেলা দেখার জন্য প্রবাসী বাংলাদেশী ক্রিকেটপ্রেমীদের ছিল উপচে পড়া ভিড়। প্রচন্ড গরম ও শত কর্মব্যস্ততা ঊপেক্ষা করে দেশটির বিভিন্ন প্রদেশের দূর-দুরান্ত থেকে স্টেডিয়ামে উপস্থিত হন...

শান্তি ও সমৃদ্ধির পথ ইসলাম

মোয়াবিয়া’র (রা.) দরবারে শাদ্দাদের বেহেশত দেখা আবু কালাবা

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

সাধারণভাবে প্রচলিত যে, শাদ্দাদ তার নির্মিত বেহেশতে প্রবেশ করতে পারেনি। সেখানে পা রাখার আগেই আজরাইল (আ:) তার জান কবজ করেন এবং তার বেহেশতও ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়ে যায়। তবে শাদ্দাদের সাথেই তার বেহেশত ধ্বংস হয়েছিল কিনা তা নিয়ে মতভেদ রয়েছে। বলা হয়ে থাকে, শাদ্দাদের পরও তার...

দুদকের হয়রানি বন্ধ করতে হবে

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) গঠিত হয়েছিল দেশের মধ্যে জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠা করার জন্য এবং দুর্নীতিমুক্ত সমাজ কায়েমের লক্ষ্যে। অত্যন্ত দু:খজনক হলেও বলতে হচ্ছে, রাষ্ট্রীয় এই প্রতিষ্ঠানটি এক্ষেত্রে তেমন কোনো ভূমিকা ও অবদান রাখতে পারেনি। উল্টো এটি একটি বিতর্কিত প্রতিষ্ঠানে পর্যবসিত হয়েছে। এর স্বাধীন চরিত্র কখনোই লক্ষ্যযোগ্য...

মেয়রদের দু’বছর এবং নগরবাসীর প্রত্যাশা

৬ মে, ২০১৭
img_img-1537838702

হোসেন মাহমুদ : এই ঢাকা মহানগরীকে স্মার্ট সিটি হিসেবে গড়ে তোলা হবে। সে কাজ শুরু হবে ২০১৮ সালে। আমরা এমন ব্যবস্থা চালু করতে চাই যাতে কোনো নাগরিক সমস্যায় পড়লে একটামাত্র ক্লিকেই সমাধানের উপায় খুঁজে পান। এ কথাগুলো দিন কয়েক আগে একটি সংবাদ মাধ্যমের সাথে সাক্ষাৎকারে...

কেউ শোনে না হাওরের কান্না

২৬ এপ্রিল, ২০১৭
img_img-1537838702

এস এম মুকুল : ফেসবুকে একটা স্ট্যাটাস- ‘গ্রাম থাইক্কা স্বজনরা ফোন করতাছে, চৈত মাসে অভাইগ্যা আষাঢ়ের ঢল মানুষের এই বচ্ছরের আশাডারে লন্ডভন্ড কইরা দিতাছে। বেকতা মিইল্ল্যা একটাই কতা একটাই দাবি- আমাগো সরহার (সরকার), লেম্বার (মেম্বার), চিয়ারম্যান আর এমপি আওহাইন খারোওহাইন আমরার সাথে। মোডেতো একটাই বান-চরহাজদিয়ার...


অভ্যন্তরীণ

মনোনয়ন যুদ্ধে আ.লীগ মামলায় জর্জরিত বিএনপি, সিদ্ধান্তহীনতায় কাদের সিদ্দিকী

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
img_img-1537838702

টাঙ্গাইল-৮ আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ.লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দলীয় মনোনয়ন পেতে জোর তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন, বিএনপির মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মীরা ভৌতিক মামলায় এলাকা ছাড়া। কৃষক শ্রমিক জনতালীগ সভাপতি বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী বীরোত্তম জোট প্রশ্নে দ্বিধাদ্ব›েদ্ব রয়েছেন, জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা পরিস্থিতি অবলোকন করছেন। এ ছাড়া দুই...

অনলাইন জরিপ

অর্থনীতিতে নির্বাচনের প্রভাব পড়বে না। অর্থমন্ত্রীর এ কথার সঙ্গে আপনি কি একমত?


লাইভ স্কোর
ই-পেপার
আর্কাইভ
রোব সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি

সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮

ওয়াক্তওয়াক্ত শুরুআযানজামাত
ফজর০৪-৩৪০৪-৫০০৫-২০
যোহর১১-৫৩১২-৪৫০১-১৫
আসর০৪-১১০৪-৩০০৪-৪৫
মাগরিব০৫-৫৬০৫-৫৮০৬-০০
এশা০৭-০৯০৭-৩০০৮-০০

আগামীকাল সূর্যোদয় - ০৫-৪৮ ফজর শুরু- ০৪-৩৫

সূত্র : ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ |

img_img-1537838702

আল্লাহর সামনে আত্মসমর্পণ

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

ইতিহাস ও জীবনীমূলক কিতাবাদি থেকে জানা যায় যে, পৃথিবীতে এমন কোনো জাতি ছিল না যারা স্বীয় মাযহাব অনুসারে কুরবানি করেনি। বর্তমানে সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে হযরত আদম (আ.)-এর সন্তান হাবিল ও কাবিলের মাঝে তাদের বোন আকলিমার বিবাহ নিয়ে দ্ব›দ্ব দেখা দিলে হযরত আদম (আ.) তাদেরকে এখলাসের সাথে কুরবানি করার নির্দেশ দিয়ে বলেন, তোমাদের মধ্যে যার কুরবানি কবুল হবে তার সঙ্গেই এ মেয়েকে বিবাহ দেওয়া হবে। তখনকার যুগে কুরবানি কবুল হওয়ার আলামত...

img_img-1537838702

দশ মহররম : মুসলিম মিল্লাতের দায়িত্ব ও কর্তব্য

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আমাদের দেশে তিন ভাষায় সন বা বর্ষ গণনা করা হয়। আরবী, বাংলা ও ইংরেজী। দেশ হিসেবে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ এবং স্বাধীন ভাষা হিসেবে বাংলা ভাষার নিজস্ব স্বকীয়তা ও মর্যাদা থাকলেও সন গণনার ক্ষেত্রে বাংলার অবস্থান দ্বিতীয়। মুসলিম জাতি হিসেবে আরবী ভাষার একটা স্বতন্ত্র মর্যাদা থাকলেও আমাদের কাছে তা নেই। ফলে আরবী সন গণনার স্তর গিয়ে দাঁড়িয়েছে তৃতীয়তে। কেবল প্রাধান্য পাচ্ছে ইংরেজী গণনা। প্রায় দু’শ বছরের ইংরেজ শাসন আমাদের মন-মগজকে যেভাবে...

img_img-1537838702

শিশু-কিশোরদের অস্বাভাবিক দৈহিক উচ্চতা

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

মাঝে মাঝে কিছু কিছু ছেলে মেয়ে অস্বাভাবিক দৈহিক উচ্চতা নিয়ে চিকিৎসকের কাছে যেতে বাধ্য হয়। সেটি বাংলাদেশ বা পৃথিবীর যে কোন দেশের জন্যই সত্য হতে পারে। যদি কোন শিশুর দৈহিক উচ্চতা তার জনগণের আদর্শ দৈহিক উচ্চতার ত‚লনায় ৯৭ শতাংশের বেশি হয় (+২ ঝউ-এর বেশি) তবে তাকে অস্বাভাবিক দৈহিক উচ্চতা বলা হবে। সারা পৃথিবীর প্রতি ১০০ জন শিশু-কিশোরের মধ্যে ৩ জন এরূপ। তবে কোন কোন পরিবারের সবাই বা অধিকাংশই এ আকারের...

img_img-1537838702

সিকানদার আবু জাফরের সিরাজউদ্দৌলা

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

সিকানদার আবু জাফর (১৯ মার্চ ১৯১৯-৫ আগস্ট ১৯৭৫) বাংলা সাহিত্যের প্রায় সব শাখাই বিচরণ করেছেন। তবে কবি ও নাট্যকার হিসেবে তিনি বেশি পরিচিত। তাঁর অধিকাংশ রচনা দেশপ্রেম ও বাঙালি চেতনায় উজ্জীবিত। ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি স্বাধীনতা, দেশপ্রেম ও বিপ্লবী চেতনা সম্পন্ন অনেক গান ও কবিতা রচনা করেছেন - যা এ দেশের মুক্তিকামী মানুষকে অনুপ্রাণিত করেছিল। তাঁর দেশপ্রেমমূলক রচনাগুলোর মধ্যে ‘‘সিরাজউদ্দৌলা’’ একটি উল্লেখযোগ্য নাটক। ‘‘সিরাজউদ্দৌলা’’ নাটকে দেখা যায় জাতীয় চেতনা নতুন...

img_img-1537838702

খেজুরের যত গুণ

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আমাদের দেশে সাধারণত রমজানেই সবচেয়ে বেশি খেজুর খাওয়া হয়ে থাকে। তার মানে এই নয় যে অন্য সময় খেজুর খাওয়া হয় না, খাওয়া যাবে না। চাইলে সারা বছরই খেজুর খেতে পারেন আপনি। জেনে খুশি হবেন যে মিষ্টি এই ফলটি খেলে দূর হতে পারে অনেক রোগ। এছাড়া কাস্টার্ডে মিশিয়ে স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস হিসেবে খেতে পারেন খেজুর।খেজুর মরু অঞ্চলের ফল। পুষ্টিমানে যেমন এটি সমৃদ্ধ, তেমনি এর রয়েছে অসাধারণ কিছু ওষুধিগুণ। চিকিৎসাবিজ্ঞানে বলা হয়েছে, সারা...