Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৭ মাঘ ১৪২৭, ০৭ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

নাটোরের গুরুদাসপুরে ভুল চিকিৎসায় গর্ভপাত

জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে মা

| প্রকাশের সময় : ২৭ অক্টোবর, ২০১৭, ১২:০০ এএম


নাটোর জেলা সংবাদদাতা : নাটোরের গুরুদাসপুরের চাঁচকৈড় রসুন হাটায় অবস্থিত আল্পনা ক্লিনিক ও ডায়গনস্টিক সেন্টারে ভুল চিকিৎসা নিয়ে প্রসুতির গর্ভপাত ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেই সাথে গর্ভবতী মার উন্নত চিকিৎসা নিয়েও জীবন-মৃত্যুর স্বন্ধিক্ষনে দাড়িয়ে আছে। রোগীর স্বজনরা জানায়, গত বৃহস্পতিবার (১৭ আগস্ট ) পৌর সদরের আনন্দনগর মহল্লার শাহীনের আড়াই মাসের অন্তস্বত্বা স্ত্রী জেসমিন আকতারের পেট ব্যথা করলে চাঁচকৈড় বাজারস্থ আল্পনা ক্লিনিক এন্ড ডায়গনস্টিক সেন্টারে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত হারবাল চিকিৎসক উম্মে কুলসুম তাকে প্রথমেই ১১০ টাকা মুল্যের একটি ইনজেকশন দেয়। এর পর সিবিসি, আর/ই, ইউএসজি, আরবিএস, বøাড গ্রæপিং পরীক্ষার নির্দেশ দেন। পরীক্ষা শেষে টিউমার হয়েছে বলে অপারেশনের পরামর্শ দেন। পেশক্রিপশন করে দিলে তাকে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। বাসায় নিয়ে ঔষধ গুলো খাওয়ানোর পর রোগী ঘুমিয়ে পড়লে সন্ধ্যার দিকে তার অল্প অল্প রক্তক্ষরণ হয়। রাতে আবার বন্ধ হয়ে যায়। এভাবে সময় সময় হালকা রক্তক্ষরণ হতে থাকা অবস্থায় গত মঙ্গলবার রাজশাহী ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে বিশেষজ্ঞ ডা. হাওয়া বেগম সিদ্দিকা পরীক্ষা শেষে বাচ্চা পড়ে গেছে বলে জানান। আল্পনা ক্লিনিক এন্ড ডায়গনস্টিক সেন্টারের সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক ডা. উম্মে কুলসুমের সাথে কথা বলে জানা যায়, তিনি ঢাকার মীরপুরস্থ সরকারী ইউনানী ও আয়ুর্বেদী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল থেকে ২০১৫ সালে বিএএমএস পাশ করেছেন। বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব মেডিকেল ডায়গস্টিক এ্যান্ড রিসোর্চ থেকে ২০১৬ তে আলট্রাসনোগ্রাফীতে ডিপ্লোমা করেছেন। ইউনানী ও আয়ুর্বেদী মেডিকেল কলেজ থেকে পাশ করে মেডিসিনের চিকিৎসা দিতে পারেন কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান, মেডিসিনের চিকিৎসা দেওয়ার অনুমতি এখনও হয়নি। তবে অনুমতি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। জানতে চাইলে আল্পনা ক্লিনিকের স্বত্বাধিকারী মোঃ সানোয়ার হোসেন বলেন, নিয়মনীতির মধ্যে থেকেই আমরা ক্লিনিক পরিচালনা করি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ