Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৭, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী

২০১৮ সালে দ্রুতগতিতে বাড়বে বৈশ্বিক অর্থনীতি : লাগার্দে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২১ নভেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

বিশ্ব অর্থনীতি এ মুহূর্তে একটি শক্তিশালী, বিস্তৃত পুনরুদ্ধারের পথে রয়েছে। আগামী বছর বৈশ্বিক অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের গতি আরো দ্রুততর হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। তবে এ পরিস্থিতিতেও কিছু ঝুঁকি বহাল রয়েছে বলে মনে করছেন আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টিনা লাগার্দে। খবর স্ট্রেইট টাইমস।

চলতি সপ্তাহে সিঙ্গাপুরে দুদিনের সফরকালে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বৈশ্বিক অর্থনীতি নিয়ে কথা বলেন আইএমএফ প্রধান। সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, বর্তমানে বিশ্বের ৭৫ শতাংশ অর্থনীতি প্রবৃদ্ধির পথে রয়েছে। স্থানীয় চাহিদা ও বাণিজ্যের পাশাপাশি দীর্ঘ বছর ধরে পিছিয়ে থাকা বিনিয়োগেও গতি ফিরে এসেছে। গত বছরের তিন দশমিক দুই শতাংশের তুলনায় সম্প্রতি চলতি বছরের জন্য বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধি পূর্বাভাস বাড়িয়ে তিন দশমিক ছয় শতাংশ এবং আগামী বছরের জন্য প্রবৃদ্ধি পূর্বাভাস তিন দশমিক সাত শতাংশ করেছে আইএমএফ।
আর্থিক সংস্থাটি জানায়, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের নিম্নমুখী প্রবণতার তুলনায় ইউরো অঞ্চল, জাপান, উদীয়মান এশিয়া, উদীয়মান ইউরোপ ও রাশিয়ার ব্যাপকভিত্তিক ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা অনেক বেশি ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। বিস্তৃত পরিধিতে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ভারসাম্যপূর্ণ হলেও বেশকিছু অঞ্চল নিয়ে এখানো উদ্বেগ বিদ্যমান রয়েছে বলে জানিয়েছেন লাগার্দে। বিশেষ করে বৈশ্বিক পুনরুদ্ধারে গতি না পাওয়া ৪০টির মতো দেশ নিয়ে উদ্বেগ বহাল রয়েছে, যেগুলোর অধিকাংশই সাব-সাহারান আফ্রিকার।
লাগার্দে বলেন, প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা নিয়ে আমাদের চিন্তিত হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে। এ মুহূর্তে প্রবৃদ্ধি সম্ভাবনা আমাদের প্রত্যাশার তুলনায় বেশ নিচে রয়েছে এবং এর সঙ্গে উৎপাদনশীলতার বিষয়টি জড়িয়ে রয়েছে। উৎপাদনশীলতা এখনো অনেক নিচে রয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। এছাড়া অন্যান্য কিছু বিষয় নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন লাগার্দে, যার মধ্যে উচ্চমাত্রার বৈষম্য, জনমিতি, ভূরাজনৈতিক ও আর্থিক ঝুঁকি রয়েছে। সাক্ষাৎকারে আরো কয়েকটি বিষয় তুলে ধরেন সাবেক ফরাসি অর্থমন্ত্রী লাগার্দে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও রোবোটিক্স, বিশ্বায়নের সম্ভাব্য ক্ষতিকর প্রভাব এবং ২০১১ সালে আইএমএফের দায়িত্ব নেয়ার পর সংস্থাটির এজেন্ডার পরিবর্তন নিয়ে কথা বলন তিনি। ####

 

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।