Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী

দেশ এখন গভীর সঙ্কটে রয়েছে -ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ

কোম্পানীগঞ্জে বিএনপির নেতাকর্মী গণহারে গ্রেফতার

| প্রকাশের সময় : ২৫ নভেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

নোয়াখালী ব্যুারো ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা সংবাদদাতা : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেছেন, সংবিধান মানুষের জন্য, মানুষ সংবিধানের জন্য নয় এবং সংবিধান জনগণের উর্ধেও নয়। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন করতে সংবিধান কোনো বাধা হবে। তিনি বলেন, দেশ এখন অত্যন্ত গভীর সঙ্কটের মধ্যে রয়েছে। সমঝোতার মাধ্যমে সরকারকে এ সঙ্কট নিরসন করতে হবে। আমরা ভোটের অধিকার হারিয়েছি, গণতন্ত্র হারিয়েছি, মৌলিক অধিকার হারিয়েছি, আইনের শাসন হারিয়েছি, সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নেই, সর্বশেষ বিচার বিভাগের স্বাধীনতা হারিয়েছি। বেগম খালেদা জিয়া এবং জাতীয়তাবাদী দলের নেতৃত্বে এই অধিকারগুলো ফিরিয়ে আনতে হবে। আমরা চাই একটি সমঝোতার মাধ্যমে আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক। তিনি গতকাল জেলা শহর মাইজদীর স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে নোয়াখালী জেলা বিএনপির নির্বাহী কমিটির প্রথম সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম হায়দারের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবদুর রহমানের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন, বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহাজাহান, বরকত উল্লা বুলু, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা জয়নুল আবেদীন ফারুক, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম ও শামীমা বরকত লাকী। এছাড়াও জেলা, উপজেলা ও পৌরসভার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেন, এই সরকার বিএনপির অগণিত নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি বিধায় ধৈর্য্য ধরে আছি। যদি সমঝোতা না করে ২০১৪ সালের মতো সরকার নির্বাচন করতে চায় জনগণ তা কখনো হতে দেবে না। সংবিধান মানুষের জন্য, মানুষ সংবিধানের জন্য নয় এবং সংবিধান জনগণের উর্ধেও নয়। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন করতে সংবিধান কোনো বাধা হবে। যারা বারবার সংবিধানের দোহাই দিয়ে যাচ্ছে তাদের মুখে এগুলো শোভা পায় না। যদি সরকার দেশের ভালো চায়, অগ্রগতি চায় এবং উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় তাহলে সমঝোতায় আসতে সংবিধান কোনো বাধা হবে না। ব্যারিস্টার মওদুদ আরো বলেন, ১৯৯১ সালে বিচারপতি সাহাবুদ্দিন সাহেবের নেতৃত্বে যে সরকার গঠন হয়েছিলো তাও সংবিধান সম্মত ছিলো না। একটি সুষ্ঠু গ্রহণযোগ্য, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করার জন্য সমঝোতার কোনো বিকল্প নেই।
এদিকে, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় গতকাল শুক্রবার বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার মওদুদ আহমদের কোম্পানীগঞ্জে আগমনকে কেন্দ্র করে বসুরহাট পৌরসভার বিভিন্ন ওয়াডের বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ৫ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশ।
জানা যায, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় ব্যারিষ্টার মওদুদ আহমদ কোম্পানীগঞ্জের মানিকপুরের তার নিজ বাস ভবনে আগমনকে কেন্দ্র করে পুলিশ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের বাড়িতে হানা দিয়ে ৫ জনকে গ্রেফতার করে। আতঙ্কে রয়েছে উপজেলার বিএনপি জামায়াতের নেতাকর্মীরা। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে রয়েছে, বসুরহাট পৌরসভা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক দুলাল (৪৮), পৌরসভা ৫নং ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি হুমায়ুন কবির (৩৮), বসুরহাট পৌরসভা ২নং ওয়ার্ডের যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক আলমগীর (৩৫), যুবদলের নেতা তাজুল ইসলাম, বসুরহাট পৌরসভা ৩নং ওয়ার্ডের ছাত্রদলের সভাপতি সোহাগ (২২)।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি সৈয়দ মোঃ ফজলে রাব্বী জানান, এদের বিরুদ্ধে সদর ও কোম্পানীগঞ্জ থানায় মামলা রয়েছে।
নেতাকর্মীদের গ্রেফতার প্রসঙ্গে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি হাজী আবদুল হাই সেলিম বলেন, আমাদের নেতা ব্যারিষ্টার মওদুদ আহমদ সাহেব যতবার কোম্পানীগঞ্জে আসে ততবার পুলিশ আমাদের নেতাকর্মীদের বাড়িতে হানা দেয় এবং গণহারে গ্রেফতার করে।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর