Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫, ৮ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌
শিরোনাম

লারার পাশে কোহলি

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ নভেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

গেল বছরের জুলাইয়ে বিরাট কোহলির নামের পাশে ছিল না ডাবল সেঞ্চুরির কোন তকমা। আর এখন পাঁচ-পাঁটটি! ভারতীয়দের মধ্যে কেবল বীরেন্দ্র শেবাগ ও শচীন টেন্ডুলকার আছেন তার সামনে। প্রায় ৮০ স্ট্রাইকরেটে ২৬৭ বলে নাগপুর টেস্টে ২১৩ রান করলেন কোহলি।
এরপর অপেক্ষা ছিল রোহিত শর্মার সেঞ্চুরির জন্যে। সেটা হয়ে গেলেই শ্রীলঙ্কাকে ৯ ওভার ব্যাটিং করার সুযোগ দেয় ভারত। তা থেকে ২১ রান তুলতে গিয়েই ১ উইকেট হারিয়েছে লঙ্কানরা। ইনিংস হার এড়াতে দিনেশ চান্দিমালদের এখনো করতে হবে ৩৮৪ রান। এজন্য হাতে সময় আছে পুরো দুই দিন।
১৭৬.১ ওভার ব্যাট করে ৬ উইকেটে ৬১০ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে ভারত। আগের দিন মুরালি বিজয় ও চেতস্বর পূজারার পর চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে এদিন সেঞ্চুরির দেখা পান রোহিত। ভারতীয় এক ইনিংসে চার ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরি করার তৃতীয় ঘটনা এটি। ১৩ মাস পর প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে মাঠে নামেন রোহিত। আর চার বছর পর পেলেন শতকের দেখা। ১৬০ বলে ৮ চার ও ১ ছয়ে তার সেঞ্চুরি পূর্ণ হওয়ার পরপরই তাকে ও সঙ্গী ঋদ্ধিমান শাহাকে মাঠ থেকে উঠে আসার ইঙ্গিত দেন ভারত অধিনায়ক কোহলি।
এর আগে ২২ গজ শাসন করেন বর্তমান ব্যাটিং মাস্টার কোহলি। ১২১ রানে দিন শুরু করা পুজারা কোহলির সঙ্গে ১৮৩ রানের জুটি গড়ার পর থামেন ১৪৩ রানে। এরপর রাহানে দ্রæত বিদায় নিলেও রোহিতের সঙ্গে আবার ১৭৩ রানের বড় জুটি গড়ে তারপর আউট হন কোহলি। ততক্ষণে তার নামের পাশে ২১৩ রানের জ্বলজ্বলে ইনিংস। যার মধ্যে বাউন্ডারি ১৭টি, ২টি ছক্কা।
এর মাধ্যমে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি (১২টি) শতকের রেকর্ড গড়লেন কোহলি। সার্বিক বিবেচনায় অধিনায়ক হিসেবে ডন ব্রাডম্যানের রেকর্ড ভাঙতে তাকে করতে হবে আরো দুটি শতক। ১৩ সেঞ্চুরি নিয়ে তার সামনে আছেন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথও। যেভাবে এগুচ্ছেন কোহলি তাতে ব্রাডম্যানকে ছাড়িয়ে যাওয়া এই ব্যাটিং দানবের কাছে এখন সময়ের ব্যপার মাত্র।
তাছাড়া সব ধরনের ক্রিকেট মিলে বছরে এটি তার দশম শতক। অধিনায়ক হিসেবে এক বর্ষপঞ্জিকায় যা সর্বোচ্চ। ৯টি করে সেঞ্চুরি আছে রিকি পন্টিং (২০০৫ ও ২০০৬) ও স্মিথের (২০০৫)।
একই সঙ্গে অধিনায়ক হিসেবে ব্রায়ান লারার সর্বোচ্চ ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন কোহলি। সর্বোচ্চ ডাবল হান্ড্রেডের রেকর্ড ছুঁতে অবশ্য এখনো অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে কোহলিকে। ১২ দ্বিশতকের সেই মালিক? কে আবার, ডন ব্রাডম্যান। কুমার সাঙ্গাকারার (১১টি) সামনে সুযোগ ছিল তাকে টপকে যাওয়ার। কিন্তু লঙ্কান ব্যাটিং গ্রেট যে একটু আগেভাগেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন।
কোহলির এমন রেকর্ডময় দিনে রানে পিষ্ট তো শ্রীলঙ্কা হয়েছেই সেই সাথে একটি কেলেঙ্গারির সঙ্গেও জড়িয়ে গেছে লঙ্কানদের নাম। বল বিকৃতি (টেম্পারিং) করার দায়ে ম্যাচ ফি’র ৭৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে অলরাউন্ডার দাসুন শানাকাকে। এক বিবৃতিতে আইসিসি জানায়, ‘আইসিসি কোড অব কনডাক্টের ২.২.৯ ধারা ভেঙ্গেছেন শনাকা। তাই জরিমানার পাশাপাশি তার নামের পাশে যোগ হয়েছে তিনটি ডিমেরিট পয়েন্টও।’
শ্রীলঙ্কা : ২০৫ ও ৯ ওভারে ২১/১ (সামারাবিক্রমা ০, করুনারতেœ ১১*, থিরিমান্নে ৯*; ইশান্ত ১/১৫, অশ্বিন ০/৫, জাদেজা ০/০)। ভারত ১ম ইনিংস : ১৭৬.১ ওভারে ৬১০/৬ ডি. (আগের দিন ৩১২/২) (রাহুল ৭, বিজয় ১২৮, পুজারা ১৪৩, কোহলি ২১৩, রাহানে ২, রোহিত ১০২*, অশ্বিন ৫, ঋদ্ধিমান ২*; লাকমল ০/১১১, গামাগে ১/৯৭, হেরাথ ১/৮১, শানাকা ০/১০৩, দিলরুয়ান ৩/২০২, করুনারতেœ ০/৮)।
*তৃতীয় দিন শেষে ৩৮৪ রানে পিছিয়ে শ্রীলঙ্কা

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ