Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২১ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক তিন

গোদাগাড়ী উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৮ নভেম্বর, ২০১৭, ১২:১৯ পিএম

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সদরের চর আলাতুলি গ্রামের জঙ্গি আস্তানার বাড়ি মালিক রাসিকুলসহ তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। আটককৃত অপর দু’জন হলেন, রাসিকুলের স্ত্রী নাজমা ও তাঁর শ্বশুর খোরশেদ আলম। রাসিকুলের বাড়ি গোদাগাড়ীর চড় আষাড়িয়াদহ গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের পাকুর ছেলে। কিছু প্রিন্ট, অনলাইন পত্রিকা ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় ভুল করে গোদাগাড়ী ব্যবহার করায় গোদাগাড়ীর মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাবেক কর্মকর্তা ক্ষোভ প্রকাশ করে এ প্রতিবেদককে বলেন, ঘটনা ঘটেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার আলাতুলিতে সাংবাদিকের লিখছে গোদাগাড়ীতে গাজী টিভিসহ কয়েকটি পত্রিকায় এ ধরণের ভুল নিউজ প্রকাশ করেছেন। তিনি সঠিক নিউজ প্রকাশের আহ্বান জানান।

বিষয়টি এ প্রতিবেদককে নিশ্চিত করেছেন রাজশাহী র‌্যাব-৫-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মাহাবুব আলম। তিনি বলেন, ‘যেহেতু তারা বাড়ির মালিক। তাই তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। তবে তারা জঙ্গিবাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত কিনা-সেটি আমরা এখনো নিশ্চিত নয়। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।’র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘এই জঙ্গি আস্তানায় কারা যাতায়াত করত, কাদের সাথে সম্পর্ক সেটি হয়তো বাড়ির মালিক হিসেবে রাসিকুলসহ আটককৃতরা জানেন। এই কারণেই তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। আবার তারা নিজেরাও জঙ্গিবাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত কিনা সেটিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’এদিকে স্থানীয় চর আলাতুলি গ্রামের লতিফুর জানান, গোদাগাড়ীর চড় আষাড়িয়াদহ গ্রামের বাসিন্দা রাসিকুল চার বছর আগে বাড়ি করেন চর আলাতুলির দুর্গম চরে। এরপর থেকে সেখানে স্ত্রী সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন রাসিকুল। তারা তাদের জমি দেখাশুনা করতেন। কালাই কাটা শেষ হলে নাটোরসহ বাইরের এলাকা হতে ঘোষসহ অন্যান্য অনেক মানুষের যাওয়া-আসা হত এই বাড়িতে। বাইরের লোকজনের যাতায়াতে স্থানীয়দের মাঝে সন্দেহ সৃষ্টি হয়। স্থানীয়রা জিজ্ঞাসাবাদ করলে তাদের জানানো হয়, একটি এনজিওর কাজে এসেছি এবং চর এলাকার বিদেশী পাখি শিকার করব। র‌্যাব রাজশাহী-৫ এর পরিচালক মুফতি মাহমুদ মঙ্গলবার সকাল নয়টার দিকে সাংবাদিকদের জানান, র‌্যাব সদস্যরা রাত থেকে ঘিরে রাখে বাড়িটি। এরপর থেকে জঙ্গিদের বারবার আত্মসমর্পণের আহবান জানানো হয়। কিন্তু বাড়ির ভিতর থেকে দুই দফায় বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা। জঙ্গি আস্তানায় আরও বিস্ফোরক থাকতে পারে। বিস্তারিত আবারও পরে জানাবেন বলেও জানান র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা। এর আগে মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) ভোর ৪টা থেকে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে বাড়িটি ঘিরে রাখে র‌্যাব-৫। এদিকে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালাতে ঢাকা থেকে রওনা দিয়েছে সোয়াট সদস্যরা। রাজশাহী র‌্যাব-৫-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মাহাবুব আলম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চর আলাতুলি গ্রামের একটি বাড়ি ঘেরাও করে জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হয়। এসময় জঙ্গিরা বাড়ির ভেতর থেকে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড নিক্ষেপ ও গুলি করে। এ সময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। এরপর বাড়িটিতে আগুন লেগে যায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জঙ্গি আস্তানা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ