Inqilab Logo

শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৯ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

উৎসবের আমেজে রিটার্ন দাখিল

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

করদাতাদের উপচেপড়া ভিড়ে আয়কর সপ্তাহের শেষ দিনে রাজধানীর প্রতিটি কর অফিসে ছিল রিটার্ন দাখিলে উৎসবের আমেজ। গতকাল বৃহম্পতিবার রাজধানীর সব সার্কেল অফিসেই তিলধারণের ঠাঁই ছিল না। দিনভর দীর্ঘলাইনে দাঁড়িয়ে রিটার্ন জমা দেন করদাতারা।
এদিন শেষ মুহূর্তের তাড়ায় অফিসের সিঁড়িতে বসেই তথ্য পূরণ করতে দেখা যায় অনেক করদাতাকে। শেষ দিনে যারা কর অফিসগুলোতে ভিড় করেছেন তাদের অধিকাংশই জমা দিয়েছেন রিটার্ন। ব্যক্তি শ্রেণীর করদাতাদের কর প্রদানে উৎসাহিত করতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) দ্বিতীয় বারের মতো আয়কর সপ্তাহ পালন করেছে। আয়কর প্রদানের বিভিন্ন শ্লোগান সংবলিত টি-শার্ট, ক্যাপ ও ছাতা নিয়ে র‌্যালিতে বিভিন্ন কর অঞ্চলের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ বিভিন্ন স্তরের শত শত মানুষ অংশগ্রহণ করেন। এ ছাড়া র‌্যালিতে ঘোড়ার গাড়ি, স্কাউট, আনসার-ভিডিপির একটি বাদক দল অংশ নেয়। আয়কর বিষয়ে জনসচেতনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০০৮ সাল থেকে এ দিনটি উদযাপন করছে এনবিআর। এর আগে গতকাল সকালে আয়কর দিবস উপলক্ষে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) প্রাঙ্গণে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে র‌্যালির উদ্বোধন করেন অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও এনবিআর’র চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান। এনবিআরের প্রধান কার্যালয় থেকে আয়কর দিবসের বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি সেগুনবাগিচা থেকে মৎস্য ভবন, প্রেসক্লাব হয়ে পুনরায় এনবিআর কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।
সংস্থাটির কর্মকর্তা-কর্মচারী, চলচ্চিত্র, টেলিভিশন ও সংগীত শিল্পীসহ সংস্কৃতি অঙ্গনের বিভিন্ন তারকাদের উপস্থিতি ওই উৎসবকে আরো রঙিন করে তোলে। আনন্দ বাড়িয়ে দেয় ‘ইনকাম ট্যাক্স আইডি কার্ড’ এর কপিরাইট নিবন্ধন। যেখানে প্রণেতা বা রচয়িতা অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমানকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে।
‘আয়কর দিবস-২০১৭’ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে নজিবুর রহমান বলেন, উন্নয়নের বীজ হিসেবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) তৈরি করেছিলেন জাতির জনক। তারই কন্যার হাতে আজ এটি বড় বৃক্ষে পরিণত হয়েছে। এই দিনটি রাজস্ব ক্ষেত্রে একটি বড় সম্মাননার দিন। এছাড়া ট্যাক্স আইডি কার্ড বাংলাদেশে যেভাবে প্রবর্তিত হয়েছে সেভাবে সারা পৃথিবীতে অন্য কোথাও হয়নি। তিনি বলেন, স¤প্রতি বাংলাদেশে আসা বিদেশি রাষ্ট্রদূতদেরও একটি করে এই কার্ড দেওয়া হয়েছে। কার্ডটি ছড়িয়ে পড়বে বাঙালিদের ওয়ালেটে। এনবিআর চেয়ারম্যান আরও বলেন, মন্ত্রীরা ট্যাক্স কার্ড সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলেন, নাগরিকদের জন্য এ কার্ডটির কি প্রয়োজন? তখন বলেছিলাম, আমেরিকায় গেলে যদি কোনো কাজ করতে চান তাহলে তাকে দু’টি আইডি কার্ড দেখাতে হয়। পাসপোর্ট ও ইনকাম ট্যাক্সের আইডি কার্ড। আর যদি তাদের কাছে কার্ডটি থাকে তাহলে আমেরিকা তাদের কাজও করবে, স্যালুটও দেবে। তাই এটি জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) বড় একটি অর্জন।
‘সারাদেশে রাজস্ববান্ধব সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করা হচ্ছে। পাশাপাশি যারা কর বাহাদুর সম্মাননা পাচ্ছেন এটি তাদের অর্পণ নয়, বরং অর্জন। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নে এনবিআর নিরন্তর কাজ করছে। অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব ইব্রাহীম হোসেন খান জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যানের হাতে ইনকাম ট্যাক্স আইডি কার্ডের কপিরাইট সম্মাননা স্মারক তুলে দেন। ৯০ বছরের জন্য এ কার্ড পেলো প্রতিষ্ঠানটি।
এ সময় এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, আজই (বৃহস্পতিবার) আয়কর বিবরণী দাখিলের শেষ সময়। এ সময়ের মধ্যে রিটার্ন জমা দিতে হবে। যারা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে রিটার্ন জমা দেবেন না তারা সময়ের আবেদন করে রিটার্ন জমা দিতে পারবেন। করদাতাদের জন্য এনবিআরের দরজা সব সময় খোলা। তবে যারা করযোগ্য থাকা সত্তে¡ও আয়কর দিবেন না তাদের খুঁজে বের করা হবে। তিনি আরও বলেন, এবারে করবান্ধব পরিবেশে আয়কর রিটার্ন জমা নিতে বিশেষ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।
বৃহস্পতিবার রিটার্ন দাখিলের শেষ দিনে প্রতিটি কর অঞ্চলে যতক্ষণ করদাতা উপস্থিত থাকবেন ততক্ষণ তাদের রিটার্ন জমা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে সময় আর বাড়ানো হবে না। সকল করাঞ্চলে মেলার ন্যায় সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা বজায় রাখার কথাও জানান নজিবুর রহমান।
এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, আমরা জাতীয় রাজস্ব বোর্ড থেকে যে বার্তাটি পাচ্ছি সেটা হচ্ছে যদি উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি করি, নিয়মকানুন সহজ করি তাহলে করদাতারা করদানে কখনও পিছপা হবেন না। এজন্য আমি আমাদের কর্মকর্তাদের অনুরোধ জানিয়েছি কেবলমাত্র একটা মাস নয়, সারাবছর যাতে সব অফিসে উপযুক্ত পরিবেশ থাকে।
নাট্যব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম বলেন, ‘আমি আনন্দিত। করদাতার সংখ্যা বাড়ছে। কর দেওয়ার যে দৈন্যতা আছে, আশা করছি সামনে এটা আর থাকবে না। যারা কর দিচ্ছেন না তাদেরকে কর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’
অভিনেত্রী সারা জাকের বলেন, ‘আমি কর বিষয়ে সচেতন আছি। আশা করছি ধীরে ধীরে সবাই সচেতন হবে। ১০ বছর আগে কর ফাঁকির প্রবণতা বেশি ছিল। এখন এই প্রবণতা কমে এসেছে। এনবিআর কর আদায়ে পূর্বের চেয়ে উন্নত ও আধুনিক হয়েছে।’
সংগীত শিল্পী ফাতেমা তুজ জোহরা বলেন, ‘কর দিলে করদাতার সম্মান বৃদ্ধি পায়। আমিও যখন প্রথম কর দিয়েছিলাম তখন মনে হয়েছে, কেন কর দেব। কিন্তু পরে বুঝলাম একজন সুনাগরিক হিসেবে দেশের জন্য কর দেওয়া উচিত। কর প্রদানে ভয়ভীতি দূর হয়েছে।’
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরপরই শোভাযাত্রা অংশ নেন নাট্যব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, সারা জাকের, চলচ্চিত্র অভিনেতা ওমর সানি, অভিনেত্রী চম্পা, মৌসুমী, অমিত হাসান, নাট্য অভিনেতা জাহিদ হাসান, চঞ্চল চৌধুরী, অপি করিম, নাবিলা, বাধন, সংগীত শিল্পী রফিকুল ইসলাম, ফাতেমা তুজ জোহরাসহ বিভিন্ন তারকা।
গতকাল রাজধানীর বেশ কয়েকটি কর অঞ্চল ঘুরে দেখা গেছে, অফিসের বাইরে প্যান্ডেল করে কর্মকর্তারা রিটার্ন জমা নিচ্ছেন। এতে অনেকটা মেলার মতো উৎসবের পরিবেশ তৈরি হয়েছে। ভবনের ফটকগুলো রঙিন বেলুন দিয়ে সাজানো, রং-বেরঙের কাপড় দিয়ে মোড়ানো হয়েছে গেট। গ্যারেজের মধ্যে তৈরি করা ছোট ছোট বুথের সামনের চেয়ারে বসে আয়কর বিবরণীর ফরম পূরণ চলছে। ঢাকা কর অঞ্চলের বেশ কয়েকটি অফিস রয়েছে সেগুনবাগিচা এলাকায়। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের সামনে দুটি আবাসিক ভবনের নিচতলায় কর অঞ্চল-১, কর অঞ্চল-৭ ও কর অঞ্চল-১১-এর তিনটি মেলা ঘুরে দেখা গেছে, বেশিরভাগই নতুন করদাতা রিটার্ন পূরণ ও দাখিল করতে এসেছেন। অন্য করদাতাদের বেশ ভিড়ও রয়েছে। শেষ মুহূর্তের তাড়ায় অফিসের সিঁড়িতে বসেই তথ্য পূরণ করতে দেখা যায় কাউকে কাউকে। এর আগে করদাতাদের সুবিধার জন্য বুধবার ও বৃহস্পতিবার সব ব্যাংকের শাখা রাত আটটা পর্যন্ত খোলা রাখারও নির্দেশনা দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।
এনবিআর কর্মকর্তারা জানান, ২০১৬-১৭ করবর্ষে ব্যক্তিশ্রেণীর করদাতাদের আয়কর বিবরণী জমার সময় শেষ হয়েছে বৃহস্পতিবার। আজ ১ ডিসেম্বর থেকে যারা রিটার্ন জমা দিতে চাইবেন যৌক্তিক কারণ দেখিয়ে সময় বাড়িয়ে নিতে পারবেন করদাতারা। এজন্য ওই করদাতাকে নির্ধারিত করের ওপর প্রতি মাসে দুই শতাংশ হারে সুদ দিতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রিটার্ন দাখিল
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ