Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী

ভবিষ্যত নিয়ে হতাশ অর্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

জাতীয় ফুটবল দলের ব্রিটিশ বংশদ্ভুত অস্ট্রেলিয়ান কোচ অ্যান্ড্রু অর্ড বাংলাদেশ ফুটবলের ভবিষ্যত নিয়ে হতাশ। প্রায় ছয় মাস আগে প্রধান কোচের দায়িত্ব নিয়ে ঢাকায় আসলেও এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় দল নিয়ে কাজ করতে পারেননি তিনি। যে কারণে হতাশার সঙ্গে কিছুটা ক্ষুব্ধও অর্ড। গতকাল হঠাৎ করেই বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের প্রেস বক্সে দেখে মেলে এই অস্ট্রেলিয়ান কোচের। কয়েক মিনিটের আলাপে সাংবাদিকদের নিজের হতাশার কথা জানান তিনি।
বাংলাদেশের বয়স ভিত্তিক দল নিয়ে কাজ করলেও জাতীয় দল নিয়ে কাজ করার সুযোগ না পাওয়ায় হতাশ অর্ড। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয় দলের দায়িত্ব নিয়ে এখানে আসলেও কাজ শুরু করতে পারিনি এখনো। জাতীয় দলের ক্যাম্প কবে শুরু তা নির্দিষ্ট করে বলতেও পারছি না। ঘরোয়া টুর্নামেন্ট স্বাধীনতা কাপ হবে কিনা সেটাও জানিনা।’ তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয় দল আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলার মতো পরিস্থিতিতে নেই, এটা ঠিক। তাই বলে বসে থাকলে তো চলবে না। খেলতে হবে। চ্যালেঞ্জ নিতে হবে। জাতীয় দল নিয়ে কাজ শুরু করার সুযোগ করে দিতে হবে আমাকে।’
অর্ড আরও বলেন, ‘আমার পেছনে যে অর্থ ব্যয় করা হচ্ছে, তা আদায় করে নেয়া উচিত। বাংলাদেশ দলকে প্রশিক্ষণ দেয়ার মতো অনেক কোচই রয়েছেন এ দেশে। আমার কাছ থেকে বাড়তি কিছু নেয়ার আছে, যা আদায় করার দায়িত্ব বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে)। পাশাপাশি আমাকে দেয়ার ক্ষেত্র তৈরি করতে হবে তাদের। তাছাড়া বর্ষপঞ্জি ঠিক মতো অনুসরণ হচ্ছে না এখানে। যদিও আমি ঘরোয়া সূচি ও আন্তর্জাতিক সূচির সঙ্গে সামঞ্জস্য করে পরিকল্পনা করছি।’
নিজের পরিকল্পনা জানাতে গিয়ে অর্ডের কথা,‘আমার পরিকল্পনা দক্ষিণ এশিয়ার বাইরে গিয়ে বাংলাদেশের ফুটবলারদের খেলানো। অথবা বিদেশী দল ঢাকা এনে তাদের বিপক্ষে জাতীয় দলকে খেলানোর। কারণ এতে খেলোয়াড়রা কিছু শিখতে পারবে। দক্ষিণ এশিয়ার দলগুলোর প্রায় সবারই একই সমস্যা। তাই বলে বসে থাকলে আর চলে না। খেলার মধ্যে থাকতে হবে ফুটবলারদের। আমার জানা মতে, আগামী মার্চে কিছু প্রীতি ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা রয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের।’ চুক্তির প্রসঙ্গে অস্ট্রেলিয়ান কোচ বলেন, ‘আমার চুক্তির মেয়াদ আগেই শেষ হবে। তারপরও ইচ্ছে রয়েছে সাফ ((সেপ্টেম্বরে) পর্যন্ত থাকার। আশাকরি চুক্তির মেয়াদ বাড়াব।’

 

 

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।