Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী

খোঁজ মেলেনি নিখোঁজ সাবেক রাষ্ট্রদূতের

সাখাওয়াত হোসেন : | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

গাড়ি উদ্ধার ও বাসার সিসিটিভির ফুটেজ পুলিশের হাতে
৪ মাসে রাজধানী থেকে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ ১২ জন
অপহরণ, গুম ও নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা থামছেই না। বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষ ঘর থেকে বেরিয়ে আর ফিরছেন না, নিখোঁজ হয়ে যাচ্ছেন। রাতের পাশাপাশি দিনদুপুরেও অপহরণের শিকার হচ্ছেন অনেকেই। দুই দিনেও খোঁজ মিলেনি নিখোঁজ সাবেক রাষ্ট্রদূত এম মারুফ জামানের। তার ব্যবহৃত গাড়িটি উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার সন্ধান পেতে পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দারাও মাঠে কাজ করছেন। বিদেশ ফেরত মেয়েকে আনতে গত সোমবার সন্ধ্যায় বিমানবন্দরের উদ্দেশে ধানমন্ডির বাসা থেকে গাড়ি নিয়ে বের হন মারুফ জামান। এরপর থেকেই তিনি নিখোঁজ বলে জানায় তার পরিবার। অন্যদিকে গত চার মাসে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ ১২জনের মধ্যে ৪ জন ফিরে এলেও বাকি ৮জন এখনও ফিরেননি। নিখোঁজদের অপেক্ষায় রয়েছেন তাদের স্বজনরা। নিখোঁজ স্বামীর জন্য স্ত্রী, বাবার জন্য সন্তান আর পুত্রের শোকে বাবা-মা অঝোর ধারায় কাঁদছেন। গতকাল বুধবার পর্যন্ত নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক ড. মুবাশ্বার হাসান সিজারের সন্ধান মেলেনি। নিখোঁজ সন্তানের শোকে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন তার মা উম্মে কুলসুম। গুলশান-২ নম্বরের ৫১ নম্বর সড়কের বাড়ি থেকে আটক করে নিয়ে যাওয়া করিম ইন্টারন্যাশনাল নামের পুস্তক আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের স্বত্ত¡াধিকারী তানভীর ইয়াসিন করিমের সন্ধান মিলেনি। নিখোঁজ হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে বেলারুশের অনারারি কনস্যুলার অনিরুদ্ধ কুমার রায়, নকিয়া-সিমেন্সের সাবেক প্রকৌশলী আসাদুজ্জামান আসাদ, এভেনটিস-সানোফির ফার্মাসিস্ট জামাল রহমান ও শাজাহানপুরের ফল ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন ফিরে এসেছেন বলে জানা গেছে। বেলারুশের অনারারি কনস্যুলার অনিরুদ্ধ কুমার রায় ফিরে এলেও রহস্য রয়ে গেছে। কারা এবং কেন তাকে অপহরন করেছিল এ বিষয়টি এখনও পারিস্কার হয়নি। ঢাকা মহানগর পুলিশের ডিসি (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান গত রাতে দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, সাবেক রাষ্ট্রদূত এম মারুফ জামানকে উদ্ধার এবং জড়িতদের আইনের আওতায় আনতে সক্রিয় রয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশ। এরই মধ্যে তার ব্যবহ্নত গাড়িটি উদ্ধার করা হয়েছে। তার (মারুফ জামান) বাসার সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। দ্রæত সময়ের মধ্যে তাকে উদ্ধার ও জড়িতদের গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে বলে ডিসি মাসুদুর রহমান জানান। মারুফ জামানের ছোটভাই রিফাত জামান সাংবাদিকদের বলেন, বেলজিয়াম ফেরত তার ছোট মেয়ে সামিহা জামানকে আনতে গত (৪ ডিসেম্বর) সোমবার সন্ধ্যায় বিমানবন্দরের উদ্দেশে ধানমন্ডির বাসা থেকে গাড়ি নিয়ে বের হন মারুফ জামান। তার মোবাইল নম্বর বন্ধ পেয়ে মেয়ে সামিহা একাই বাসায় চলে আসেন। পরে তার মুঠোফোন বন্ধ পেয়ে একদিন পর গত মঙ্গলবার দুপুরে ধানমন্ডি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন সামিহা জামান। ধানমন্ডি থানার সাধারণ ডায়েরি নম্বর-২১৩। তিনি আরো বলেন, মারুফ জামানের ছোট মেয়ে সামিহা জামান তার বড়বোনের সাথে দেখা করতে কয়েক সপ্তাহ আগে বেলজিয়াম গিয়েছিল। গত সোমবার রাত ৮টায় ঢাকা বিমানবন্দরে সে পৌঁছায়। তার বাবার জন্য দুই ঘণ্টা অপেক্ষা করে না পেয়ে ধানমন্ডির বাসায় চলে আসে সামিহা। রিফাত আরও জানান, মারুফ নিজেই গাড়ি চালিয়ে বিমানবন্দরে যাচ্ছিলেন। গত মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে খিলক্ষেত থানা পুলিশ তিনশ ফুট সড়ক থেকে মারুফ জামানের গাড়িটি উদ্ধার করে। রিফাত জামান বলেন, গত সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে গাড়ি নিয়ে বেরোনোর ঘণ্টাখানেক পর মারুফ জামান নিজেই বাসায় ফোন করেন। এ সময় তিনি বলেন, কয়েকজন লোক গেলে তাদের কাছে নিজের ল্যাপটপটি দিয়ে দিতে। পরে তিনজন লোক বাসায় আসেন। তারা একটি ল্যাপটপ, কম্পিউটারের সিপিইউ, ক্যামেরা ও একটি স্মার্টফোন নিয়ে যান এবং মারুফ জামানের ঘরে তল্লাশি করেন। ধানমন্ডির ৯/এ নম্বর সড়কের ৮৯ নম্বর বাড়ির ছয়তলা ভবনের তৃতীয় তলায় থাকেন মারুফ জামান। আর ওই বাড়ির পঞ্চম তলায় তার ছোট ভাই রিফাত জামান থাকেন। ধানমন্ডি থানার ওসি আবদুল লতিফ বলেন, গত মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে কুড়িল বিশ্বরোড থেকে পূর্বাচলমুখী তিনশ ফুট সড়কে মারুফ জামানের গাড়ি পাওয়া গেছে। তবে তার মুঠোফোন বন্ধ রয়েছে। তার বাড়ি থেকে আমরা ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করেছি। বাসায় আগত তিনজনের ছবি দেখে তাদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। তবে তার অবস্থান সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি। পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, এম মারুফ জামান ১৯৭৭ সালে সেনাবাহিনীতে সিগন্যাল কোরের ষষ্ঠ শর্ট কোর্সে ক্যাপ্টেন হিসেবে যোগ দেন। পরে শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিনি ওই চাকরি থেকে চলে আসেন। ১৯৮২ সালে আর্মি থেকেই ফরেন সার্ভিসে যোগ দেন তিনি। প্রথম দিকে লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি ছিলেন। পরে ২০০৭ সালের পর থেকে কাতারে এবং তারপর ভিয়েতনামে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ছিলেন। মারুফ জামান সর্বশেষ বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্রাটেজিক স্টাডিজের (বিআইএসএস) অতিরিক্ত মহাপরিচালক ছিলেন। ২০১৩ সালে অতিরিক্ত সচিব হিসেবে পদোন্নতি পাওয়ার পর চাকরি থেকে অবসরে যান তিনি। এদিকে গত ২২ আগস্ট বিকালে বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এবিএন গ্রæপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সৈয়দ সাদাত আহমেদ বিমানবন্দর সড়ক থেকে অপহূত হলেও এখনও উদ্ধার হননি। বিএনপি’র চেয়ারপার্সনের প্রেস ইউংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল করিব খান গতকাল দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, পরিবারসহ আমরা সকলেই সৈয়দ সাদাত আহমেদের জন্য অপেক্ষা করছি। আমরা আশাবাদি তিনি সুস্থভাবে দ্রæত আমাদের মাঝে ফিরে আসবেন। গত ২৭ অক্টোবর পুরান ঢাকার ফরাশগঞ্জ এলাকা থেকে মিঠুন চৌধুরী ও আশিক ঘোষকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে তুলে নেয়ার পর পরিবারের সদস্যদের মধ্যে এক ধরনের শোকের আবহ বিরাজ করছে। এছাড়া গত ১০ অক্টোবর নিখোঁজ হন অনলাইন নিউজ পোর্টাল পূর্বপশ্চিম ডটকমের সাংবাদিক উৎপল দাস। তার নিখোঁজের ঘটনায় মতিঝিল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তার বাবা চিত্ত রঞ্জন দাস। গতকাল পর্যন্ত এ সাংবাদিকের কোনো হদিস মেলেনি। টানা ৭৯ দিন নিখোঁজ থাকার পর ব্যবসায়ী ও বেলারুশের অনারারি কনসাল অনিরুদ্ধ রায় বাড়ি ফিরেন। অনিরুদ্ধ রায় গত ২৭শে আগস্ট গুলশান-১ থেকে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হন। পরে ১৮ নভেম্বর তিনি ফিরে আসেন। ইউনিয়ন ব্যাংক থেকে বের হওয়ার পর গাড়িচালকের সামনেই তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া যায়। ঘটনাস্থলের ভিডিও ফুটেজে তেমনটাই দেখা গিয়েছিল। সা¤প্রতিক সময়ে নিখোঁজ হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ফিরে এসেছেন আইএফআইসি ব্যাংকের কর্মকর্তা শামীম আহমেদ। অপহরণের পাঁচ দিন পর দুর্বৃত্তরা তাকে চোখ বাঁধা অবস্থায় মতিঝিল থানা এলাকায় ফেলে যায়। তাকে অপহরণের সাথে জড়িত কেউ এখনও ধরা পড়েনি। ফলে কারা তাকে অপহরণ করল তা অজানাই রয়ে গেছে।

 


Show all comments
  • Abdur Rahim Al-Hasan ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১:২৭ এএম says : 0
    Very bad news what is going on in Bangladesh Mr Zaman is from my village Badepasha, Golap gonj, Sylhet. Bangladeshi government should take immediate action to find him out alive.
    Total Reply(0) Reply
  • Rifat Sakib ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১:২৮ এএম says : 0
    এমন অসংখ্য মানুষ গুম হচ্ছে, শুধু ভি আই পি দের খবর ই আমরা সাধারণ মানুষ জানতে পারি।
    Total Reply(0) Reply
  • Amzad Ali ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১:২৮ এএম says : 0
    যদিও বাংলাদেশর জন্য নতুন খবর নয়। তবুও দুঃখজনক।
    Total Reply(0) Reply
  • Razaul Korim ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১:২৯ এএম says : 0
    এই ভাবে আর কত মায়ের বুক খালি হবে?
    Total Reply(0) Reply
  • Md Shabbir ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১:৩১ এএম says : 0
    অামরা এই গু‌মের বাংলা চাই‌নি , অামরা স্বাভা‌বিক মরার গ্যারা‌ন্টি চাই
    Total Reply(0) Reply
  • Faruq Ahammed ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১:৩১ এএম says : 0
    কেউ গুম হলে সবাই সরাসরি সরকার কে দোষারোপ দেয়া শুরু করে , এতে এই ধরনের কাজ যারা করে তাদের জন্য কাজটা খুব সহজ হয়ে যায়।
    Total Reply(0) Reply
  • জুলফিকার আলী ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১:৩৩ এএম says : 0
    অরাজনৈতিক ব্যক্তিদের এভাবে গুম বা নিঁখোজ হওয়ার পিছনে অবশ্যই একটা রাজনৈতিক মহল বা অপরাধী চক্র জড়িত। সরকারের উচিৎ এসব রহস্যের সমাধান করে নিজেদের দায়মুক্ত করা।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর