Inqilab Logo

শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

ময়মনসিংহ নগরীকে নান্দনিক করতে হলে ১৭ হাজার স্থাপনা ভাঙতে হবে

বিশেষ সংবাদদাতা, ময়মনসিংহ ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১২:১১ এএম

ময়মনসিংহকে নান্দনিক ও বিভাগীয় শহরের উপযোগী করতে হলে কমপক্ষে ১৭ হাজার স্থাপনা ভাঙতে হবে বলে জানিয়েছেন ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন। তিনি বলেন, এসব স্থাপনা ভাঙা সহজ কোন কাজ নয়। শহরের বর্তমান অবস্থা প্রধানমন্ত্রী জানেন। এখানকার রাস্তাঘাট ছোট, ড্রেনেজ ব্যবস্থা পুরনো, এটাও প্রধানমন্ত্রী জানেন। নতুন বিভাগ প্রতিষ্ঠার সময়ে প্রধানমন্ত্রী ময়মনসিংহকে সুন্দর ও পরিকল্পিত করে সাজানোর নির্দেশনা দিয়েছিলেন।
বুধবার বিকেলে নগরীর বাউন্ডারী রোড এলাকায় ময়মনসিংহ পৌরসভার তৃতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ প্রকল্প ইউজিপ ৩’র আওতায় ৩ টি প্যাকেজের অন্তর্ভুক্ত ৩০টি স্কিমের উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু’র সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলররা বক্তব্য রাখেন।
ময়মনসিংহ শহরকে সুন্দর হিসেবে গড়ে তোলার কাজ চলছে জানিয়ে বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন বলেন, ময়মনসিংহ পৌরসভার ২১টি প্যাকেজে প্রায় ৩২ কোটি টাকার কাজ শেষ করা সম্ভব হলে এ শহর বদলে যাবে। এখানকার আরো ৫০টি সড়কের কাজ শিগগির শুরু হবে। পরিচ্ছন্ন, সুন্দর ও সবুজ ময়মনসিংহ উপহার দিতে মেয়র ইকরামুল হক টিটু আন্তরিক প্রচেষ্টা নিয়ে কাজ করছেন।
তিনি বলেন, ময়মনসিংহের ৪টি খাল খনন করতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় একটি বড় প্রকল্প গ্রহণ করছে। এ ৪টি খালের সঙ্গে ৩০টি খাল কানেকটেড থাকবে। এগুলো খনন করে ড্রেনেজ সিস্টেমকে সংযুক্ত করে দিলে শহরের জলাবদ্ধতা সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।
সভাপতির বক্তৃতায় মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, নগরীর বিভিন্ন সড়কের উন্নয়নের জন্য ১৮টি প্যাকেট অন্তর্ভুক্ত করেছি। প্রায় ৫০টি সড়ক প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, যেটি দ্বিতীয় ধাপে বাস্তবায়ন হবে। ইতোমধ্যে আরো কিছু প্যাকেজে ২০ কোটি টাকার টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। এসব প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে ড্রেনেজ ব্যবস্থা, ফুটপাতের উন্নয়ন ও বিভিন্ন সড়কগুলোর সমস্যা সমাধান হবে। এজন্য সময়ের প্রয়োজন। কাজগুলো যেন মানসম্পন্ন হয় এজন্য এলাকাবাসীকে সহযোগিতা করতে হবে। তিনি প্রকৌশল বিভাগের সংশ্লিষ্টদের কাজের গুণগত মান ঠিক রেখে কাজগুলো বাস্তবায়নের জন্য কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ