Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৮, ১০ বৈশাখ ১৪২৫, ০৬ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
শিরোনাম

পুরনোদের দুর্গে নতুনদের হানা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ‘লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌড়-ঝাঁপ

তারেক সালমান : | প্রকাশের সময় : ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

আগামী সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালিকার বেশ বড় একটা অংশে থাকবে তরুণদের নাম। এসব তরুণ ও নতুন প্রার্থীরা দলের মনোনয়ন পেতে দীর্ঘদিন ধরে যার যার ‘টার্গেট’ এলাকায় নিজের অবস্থান তৈরিতে কাজ করে যাচ্ছেন। খোঁজ-খবর রাখছেন স্থানীয় নেতাকর্মী-সমর্থকদের। অংশ নিচ্ছেন বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় কর্মসূচিতে। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, নতুন মুখগুলোর বেশির ভাগই সাবেক ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও বর্তমান আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা। এছাড়া আওয়ামী লীগ-সমর্থিত বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতারাও রয়েছেন এই দলে।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পুরনোদের সরিয়ে দলের মনোনয়ন প্রার্থী নতুনদের বক্তব্য, প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা আগামী নির্বাচনে তাদের হাতে নৌকার প্রতীক তুলে দিলে স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচন করে বিজয়ের মধ্যদিয়েই নেত্রীর আস্থার উপযুক্ত জবাব তারা দিতে পারবেন। আর দীর্ঘদিন ধরে এসব মনোনয়ন প্রত্যাশী নতুন প্রার্থীরা নিজ নিজ এলাকায় রাজনৈতিক ও সাংগঠনিক কর্মকান্ডের মধ্যদিয়ে নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিবির সম্পর্ক গড়ে তুলেছেন। তারা আশা করছেন, দল তাদের দীর্ঘদিনের এ কর্মকান্ডকে মূল্যায়ণ করবে।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে এলাকায় মাঠপর্যায়ে তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। নিজ নিজ সংসদীয় আসনের মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক বৃদ্ধি এবং সমর্থন আদায়ের জন্য তারা এলাকায় যাচ্ছেন, গণসংযোগ করছেন। বিভিন্ন উৎসব উপলক্ষে নবীন-প্রবীণ মনোনয়ন প্রত্যাশী সব নেতার নজর এখন এলাকার দিকে। ক্ষমতাসীন দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী এই নেতাদের অনেকে এলাকায় ইতোমধ্যে বেশ আলোচিত হয়ে উঠেছেন। মনোনয়নের দৌঁড়ে পুরনো প্রার্থীদের সামনে বড় প্রতিদ্ব›দ্বী হয়ে দাঁড়িয়েছেন তারা। তাদের মধ্যে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির গুরুত্বপূর্ণ নেতা যেমন রয়েছেন তেমনি আছেন ছাত্রলীগ কিংবা অঙ্গসংগঠনের নেতাও।
মনোনয়ন প্রত্যাশী এসব আলোচিত নেতাদের মধ্যে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম (শরীয়তপুর-২), নেত্রকোনা-৫ আসন থেকে আাওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন, সিলেট-১ আসনে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহউদ্দিন সিরাজ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল (নেত্রকোনা-৩), আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ-দুমকি থেকে, কৃষি ও সমবায়বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী (ল²ীপুর-৪), ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী (চাঁদপুর-৩), উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম (চট্টগ্রাম-১৫), শরীয়তপুর-১ (সদর পালং-জাজিরা) ইকবাল হোসেন অপু থেকে, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য এবিএম রিয়াজুল কবীর কাওছার (নরসিংদী-৫) পুরনোদের সরিয়ে দলের টিকেট প্রার্থী।
আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে মুন্সিগঞ্জ-২ আসনে প্রচারণায় নেমেছেন এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। অন্যদিকে ফরিদপুর-১ আসনে রীতিমতো আলোড়ন তুলেছেন ঢাকাটাইমস ও সাপ্তাহিক ‘এই সময়’ সম্পাদক আরিফুর রহমান দোলন। দোলন আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন বাংলাদেশ কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি।
পটুয়াখালী-বাউফল (২) আসনটিতে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা জোবাইদুল হক রাসেল। চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন। কক্সবাজার (৩) সদর-রামু আসন থেকে কক্সবাজার ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি ইশতিয়াক আহমেদ জয়ের নাম শোনা যাচ্ছে বেশ জোরেসোরেই।
আলোচিত অন্যদের মধ্যে রয়েছেন কেন্দ্রীয় সদস্য মারুফা আক্তার পপি (জামালপুর-৫), নুরুল ইসলাম ঠান্ডু, হাসান আলী (সিরাজগঞ্জ-১), হাবিবুর রহমান স্বপন, চয়ন ইসলাম (সিরাজগঞ্জ-৫)। গাইবান্ধার-৫ সাঘাটা ফুলছড়িতে ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপন।
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আমিরুল আলম মিলন এবং ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বদিউজ্জামান সোহাগ (বাগেরহাট-৪), নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি এএইচএম মাসুদ দুলাল, ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক খলিলুর রহমান, মহিলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক রোজিনা নাসরীন (বরগুনা-১), কোহেলি কুদ্দুস মুক্তি (নাটোর-৪), নারায়ণগঞ্জ আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান দিপু (নারায়ণগঞ্জ-৫), ময়মনসিংহ আনন্দমোহন কলেজের সাবেক ভিপি সাজ্জাদ হোসেন শাহীন (ময়মনসিংহ-৪)। ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বাহাদুর বেপারী (শরীয়তপুর-৩)। ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহকারী একান্ত সচিব সাইফুজ্জামান শিখর মাগুরা-১ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী।
বরিশাল-২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহে আলম। সাবেক সভাপতি মাইনুদ্দিন হাসান চৌধুরী (চট্টগ্রাম-১৪), সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইসহাক আলী খান পান্না পিরোজপুর-২ আসনের নৌকার টিকেট প্রত্যাশী। পিরোজপুর-১ আসনে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ সাকিব বাদশা। পটুয়াখালী-১ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সাবেক সহসম্পাদক আলী আশরাফ, কক্সবাজার ৩ আসনে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইশতিয়াক আহমেদ জয় মনোনয়ন প্রত্যাশী।
আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মরহম আব্দুল জলিলের ছেলে নিজাম উদ্দিন জন নওগাঁ-৫ আসন, নড়াইল-১ আসন বা ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে নারী সংসদ সদস্য ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী, মনিরুজ্জামান মনির (ঝালকাঠি-১), শফি আহমেদ (নেত্রকোণা-৪), কিশোরগঞ্জ-২ আসনে ড. জায়েদ মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ, অজয় কর খোকন কিশোরগঞ্জ-৫ আসনে আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী। একই আসনে মনোনয়ন চান ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আজিজুল হক রানাও।
রাজধানী ঢাকার আসনগুলোতে আওয়ামী লীগের টিকেট প্রার্থী নতুনদের মধ্যে আলোচিতরা হলেন মনিরুজ্জামান তরুণ (ঢাকা-১), আওলাদ হোসেন (ঢাকা-৪), স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য হাজী মো. সেলিমের বড় ছেলে সোলায়মান সেলিম, ঢাকা-৫ আসন থেকে বর্তমান এমপি হাবিবুর রহমান মোল্লার বড় ছেলে মশিউর রহমান মোল্লা সজল, (ঢাকা-৭), আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওছার, যুবলীগের ইসমাঈল চৌধুরী স¤্রাট (ঢাকা-৮), সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য সাবিনা আক্তার তুহিন (ঢাকা-১৪), যুবলীগের মাঈনুল হোসেন খান নিখিল, মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম কৃক, স্বেচ্ছাসেবক লীগের গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু (ঢাকা-১৫)। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের যেকোনো একটি আসন থেকে মনোনয়ন চাইবেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ। আর ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান মনোনয়নপ্রত্যাশী ঢাকা-১৩ আসনে।
এ ছাড়া আলোচনায় আছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শেখ সোহেল রানা টিপু (রাজবাড়ী-২), নারী সংসদ সদস্য নূরজাহান বেগম মুক্তা (চাঁদপুর-৫), মহিলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক ও অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী ও জহিরউদ্দীন মাহমুদ লিপ্টন (ফেনী-৩)। সাবেক ছাত্রনেতা ও মঠবাড়িয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুর রহমান (পিরোজপুর-৩), নারী সংসদ সদস্য সেলিনা আক্তার লিটা, এমদাদুল হক (ঠাকুরগাঁও-৩), জামালপুরের ইসলামপুর থেকে নারী সংসদ সদস্য মাহজাবিন খালেদ, ময়মনসিংহ-৮ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ইশ্বরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মাহমুদ হাসান সুমন। এ ছাড়া বিশ্বনাথ সরকার বিটু (রংপুর-২), সাফিয়া রহমান (রংপুর-৩), রাশেক রহমান, জাকির হোসেন সরকার (রংপুর-৫), কামাল আহমেদ তালুকদার, এ্যাডভোকেট মমতাজ (নীলফামারী-২) মাজহারুল হক প্রধান, আনোয়ার সাদাত স¤্রাট (পঞ্চগড়-১), আব্দুল মালেক চিশতি (পঞ্চগড়-২) মনোনয়ন চান।
কুড়িগ্রাম সংসদীয় ৪ আসনে সাবেক ছাত্রনেতা আজিম উদ্দিন মাস্টার ও সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা সাইফুল ইসলাম আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী।

 


Show all comments
  • আরাফাত ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭, ৪:৩৬ এএম says : 0
    নতুনদের জন্য পুরাতনদের তো জায়গা ছাড়তেই হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • তাজ ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৭, ৬:০৬ পিএম says : 0
    পাবনা ৩ এর মনোনয়ন প্রতাশী আতিকুর রহমান আতিক তার খুব ভালো অবস্তা।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর