Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮, ৫ শ্রাবণ ১৪২৫, ৬ যিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী

নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনে উৎসাহী কৃষক

| প্রকাশের সময় : ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

গোয়ালন্দ উপজেলা সংবাদদাতা : রাসায়নিক সার বর্জন করো, জৈবসার ব্যবহার করে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন বৃদ্বি করো, ২০১৫ সাল থেকে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনের লক্ষে কেঁচো কম্পোষ্ট সার তৈরী করে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করে লাভবান হয়েছে। রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের চড়গোদা গ্রামের মৃত হাজী আব্দুর সাত্তার মোল্লার ছেলে মো. রুহুল আমিন বুলু।
উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের উদ্দ্যোক্তা মো. রুহুল আমিন বুলু জানিয়েছেন, রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করে ফসল ফলায় কৃষক নিজেই জানে না রাসায়নিক আগ্রাশনের প্রভাবে দেশ, জাতি পরিবেশ, জীববৈচিত্র, মাটির উর্বরতা ও উৎপাদনের শক্তি কমছে। কৃষক ফসলে উচ্চমাত্রায় রাসায়নিক সার ব্যবহার করায় বর্তমানে ফসলের ফলন কমছে। সে কারণে রাসায়নিক সার ব্যাবহারে ফসলে বিষাক্ত পদার্থ থেকেই যাচ্ছে। নিজে বিষ খাব না অন্যকে বিষ খাওয়াবো না এ লক্ষে নিজ উদ্দ্যোগে জৈব সার উৎপাদন করে বিভিন্ন ফসলে ব্যবহার করে পরিক্ষা চালিয়ে সার ব্যবহারের পদ্ধতি গ্রহণ করে জৈব কৃষি চাষাবাদ করা হচ্ছে। তিনি আরো জানিয়েছেন, উপজেলার বিভিন্ন এলাকার কৃষক কেঁচো কম্পোষ্ট জৈব সার ব্যবহার করে বিষমুক্ত খাদ্য উৎপাদন করছে, সেসাথে ফসল উৎপাদনে খরচও কমছে। এতে কৃষক ব্যাপক লাভবান হচ্ছে। বিষমুক্ত সবজি বাজারে রপ্তানী হচ্ছে এতে মানুষ নানা রোগ থেকে রক্ষা পাচ্ছে। কেচো কম্পোষ্ট সারের খামার ও নিরাপদ খ্যদ্য উৎপাদনের সবজি খামারগুলো পরিদর্শণ করলেন কানাডা মেমোরিয়াল প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. নাসির গত শুক্রবার বিকালে বিভিন্ন সবজি খামার ও কেঁচো কম্পোষ্ট সারের খামার পরিদর্শন করেছেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন কৃষি বিভাগের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা বিভিন্ন সময়ে পরিদর্শন করেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।