Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

সেমিনারে সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ তাসাউফ চর্চায় মানুষ আত্মশুদ্ধি ও স্রষ্টাপ্রেম লাভ করতে পারে

প্রকাশের সময় : ২৪ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

চট্টগ্রাম ব্যুরো : মাইজভা-ার দরবারের সাজ্জাদানশীন, আন্তর্জাতিক সুফী ঐক্য সংহতি (সুফীজ)-এর চেয়ারম্যান শাহ্সুফী মাওলানা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী বলেছেন, ধর্ম ও নীতি-নৈতিকতা বিবর্জিত বর্তমান দুঃসহ পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেতে হলে সমাজ-রাষ্ট্র ও বিশ্বে তাসাউফ চর্চার বিকল্প নেই। তাসাউফ চর্চায় মানুষ আত্মশুদ্ধি ও স্রষ্টাপ্রেম লাভ করতে পারে; যার অন্তরে স্রষ্টাপ্রেম জাগরূক থাকবে সে কখনও কোনো সৃষ্টির ক্ষতি করতে পারে না। গত সোমবার ভারতের নয়াদিল্লির ইসলামী সেন্টারে ‘একবিংশ শতাব্দীর বৈশ্বিক সমস্যা মোকাবেলায় তাসাউফের গুরুত্ব’ শীর্ষক আলোচনায় সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ এসব কথা বলেন।
সাইফুদ্দীন আহমদ বলেন, বিশ্বে জাতি-ধর্ম, বর্ণ-গোত্রে বিভেদ-বৈষম্য লেগেই আছে। একশ্রেণীর মানুষের লোভ-লালসা, একে অপরের ওপর প্রভুত্ব কায়েমের প্রতিযোগিতা ও মোড়লিপনার কারণে শান্তি-সম্প্রীতি ও স্বস্তি উধাও। সর্বত্রই অস্থিরতা বিরাজ করছে। বর্তমান বৈশ্বিক আতঙ্ক জঙ্গিবাদ বিশ্বমানবতাকে ভীতিকর পরিস্থিতিতে দাঁড় করিয়েছে। তিনি বলেন, প্রিয় নবী (সা:) ধৈর্য-ক্ষমা, সম্প্রীতি ও উদারতার মাধ্যমে ইসলাম ধর্মের প্রসারতা ঘটিয়েছেন। ইসলাম শান্তি-সম্প্রীতি ও মানবকল্যাণের ধর্ম। এ ধর্মে জঙ্গিবাদ ও অসহিষ্ণুতার কোনো স্থান নেই। সেমিনারে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন পিএইচপি ফ্যামিলির চেয়ারম্যান আল্হাজ সুফী মিজানুর রহমান, জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানের সাবেক অ্যাডভাইজার ড. আহমদ মহিউদ্দিন, ইন্টারন্যাশনাল সুফীজমের উপদেষ্টা ড. আহমদ তিজানী বিন ওমর, সৈয়দ মুহাম্মদ আশরাফ কিসওয়াছিসহ বিশ্ব ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ। 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ