Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫, ৯ যিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী

আড়াই টাকার নোটের বর্ষপূর্তি

| প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : কাগুজে নোট বুকপকেট, আলমারির দেরাজ কিংবা অন্য কারো হাতে, যেখানেই শোভা পাক না কেন, নোটগুলো আমাদের কাছে খুবই পরিচিত। তবে এ দেশেই এমন একটি নোট প্রচলিত ছিল, যেটি অপরিচিত তো বটেই, শুনলে বা দেখলে হতভম্ব হয়ে যেতে পারেন। আজ থেকে ঠিক ১০০ বছর আগে ব্রিটিশ শাসনাধীন ভারতবর্ষে প্রচলন করা হয়েছিল এমনই একটি নোট। নোটটির মূল্য ছিল দুই রুপি আট আনা, অর্থাৎ আড়াই টাকা। সে সময় এই আড়াই টাকার বিনিময় মূল্য ছিল এক মার্কিন ডলারের সমান। গত মঙ্গলবার সেই আড়াই টাকার নোটের ১০০ বছরপূর্তি হলো। ব্রিটিশ সরকার প্রচলিত নোটটি ছিল একেবারেই সাদামাটা। এক টুকরা কাগজের একেবারে ওপরে লেখা ছিল ‘ভারত সরকার’। এর নিচে লেখা ছিল ‘চাহিবা মাত্র এর বাহককে দুই রুপি আট আনা দিতে বাধ্য থাকবে’। নোটটিতে বাঁ দিকে ওপরে পঞ্চম জর্জের ছবি এবং নিচে তৎকালীন ব্রিটিশ অর্থ সচিব এম এম এস গুব্বের সই ছিল। তবে কী কারণে বাজারে এই নোট আনা হয়েছিল, তার সঠিক কারণ জানা যায়নি। অনেকে বলেন, প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় রুপার চাহিদা বেড়ে যায়। ফলে দাম বাড়ে ধাতুটির। এ অবস্থায় রুপার আধুলি, সিকি ও দুই আনার মুদ্রা তৈরি করা লাভজনক ছিল না। এ ছাড়া কালোবাজারিরা রুপা গোপনে মজুদ শুরু করে। পরিস্থিতি সামাল দিতে তাই আড়াই টাকার নোট বাজারে ছাড়া হয়। ওয়েবসাইট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।