Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫, ৯ যিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী

মুনরোর রেকর্ডে চূর্ণ উইন্ডিজ

| প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম


স্পোর্টস ডেস্ক : প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে তিনটি সেঞ্চুরি করলেন কলিন মুনরো। মাউন্ট মুঙ্গানুইয়ে তার ব্যাটিং তোপেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১১৯ রানের বিশাল ব্যবধানে হারায় নিউজিল্যান্ড। তার মানে নিউজিল্যান্ড সফরের শেষটাও বিষাদময় হয়েই থাকলো ক্যারিবীয়দের। শুধু তাই না, সেই ১৯৯৯-২০০০ মৌসুমের পর থেকে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে জয়বঞ্চিত ওয়েস্ট ইন্ডিজ। টেস্ট ও ওয়ানডেতে ধবলধোলাইয়ের পর টি-২০ সিরিজও তারা হারল ২-০ ব্যবধানে। বৃষ্টির কারণে দ্বিতীয় ম্যাচটি পরিত্যাক্ত হওয়ায় এ যাত্রায় হোয়াইটওয়াশের হাত থেকে বাঁচে উইন্ডিজ।
আগের দুই ম্যাচেও ফিফটি করেছিলেন মুনরো। কাল করলেন ৫৩ বলে ১০৪। আগের দুই ইনিংসে সিঙ্গেল ডিজিটে আউট হওয়া মার্টিন গাপটিলও এদিন খেলেন ৩৮ বলে ৬৩ রানের ইনিংস। দুই ওপেনারকে বিচ্ছিন্ন করতেই উইন্ডিজের লেগে যায় ১১.৩ ওভার। ততক্ষণে স্কোরবোর্ডে জমে গেছে ১৩৬ রান। এমন বিস্ফোরক শুরুর পর সংগ্রহটাও আকাশছোঁয়া হওয়ারই কথা। নিজেদের আগের সর্বোচ্চ ২১৪ পেরিয়ে এবার তাই ৫ উইকেটে ২৪৩ রানের দলীয় সংগ্রহের রেকর্ড গড়ে কিউইরা। সফরকারী প্রত্যোক বোলারেরই ইকোনমি রেট ছিল দশের উপরে।
মুনরো এদিন ছক্কা হাঁকান ১০টি, ৩টি গাপটিল। এরপর যিনিই ক্রিজে এসেছেন তিনিই হাঁকিয়েছেন ছক্কা। সব মিলে ১৯টি ছক্কা হাঁকায় বø্যাক ক্যাপ বাহিনী। টি-২০’র এক ইনিংসে যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ড। সর্বোচ্চ ২১টি করে ছক্কা আছে ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের। মুনরো আউট হন ইনিংসের শেষ ওভারের প্রথম বলে টাইমিং গড়বড়ে লং-অনে ক্যাচ দিয়ে।
বিশাল লক্ষ্যের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি উইন্ডজ। প্রথম ওভারে কোন রান না করেই ফেরেন দুই ওপেনার কেসরিক ওয়ালটন ও ক্রিস গেইল। তিনে নামা আন্দ্রে ফ্লেচার ৩২ বলে ৪৬ রান করে চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু সেটা কিসের চেষ্টা সেটা অবশ্য রহস্যই। বাকিদের কেউই যে ২০ পার করতে পারেননি। প্রথম ওভারে ২ উইকেট নেয়া সাউদি পরে নেন আরো একটি। ২টি করে উইকেট নেন টেন্ট বোল্ট ও ইশ সোধি। সফরকারীরাও গুটিয়ে যায় মাত্র ১৬.৩ ওভারে ১২৪ রানে।
নিউজিল্যান্ড : ২০ ওভারে ২৪৩/৫ (গাপটিল ৬৩, মুনরো ১০৪, ব্রæস ২৩; টেইলর ১/৫৩, ব্র্যাথওয়েট ২/৫০, এমরিট ১/৪২)। ওয়েস্ট ইন্ডিজ : ১৬.৩ ওভারে ১২৪ (গেইল ০, ফ্লেচার ৪৬, নার্স ১৪*; সাউদি ৩/২১, বোল্ট ২/২৯, কিচেন ১/৩৩, সোধি ২/২৫)। ফল : নিউজিল্যান্ড ১১৯ রানে জয়ী। সিরিজ : ৩ ম্যাচে নিউজিল্যান্ড ২-০ ব্যবধানে জয়ী। ম্যাচ ও সিরিজ সেরা : কলিন মুনরো।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর