Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৮, ৬ বৈশাখ ১৪২৫, ০২ শাবান ১৪৩৯ হিজরী

ফেনী নদীতে মৈত্রী সেতু নির্মাণ কাজ পরিদর্শনে সেতুমন্ত্রী ও ভারতীয় হাইকমিশনার

রামগড় (খাগড়াছড়ি) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

বাংলাদেশের রামগড় পৌরসভার মহামুনি ও ভারতের সাবরুম মহকুমার দোলবাড়ী সীমান্ত সংযোগ ফেনী নদীতে মৈত্রী সেতু-১ নির্মাণের অগ্রগতি কাজ পরিদর্শন করলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা।
গতকাল বুধবার দুপুর ১টায় দু’দেশের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল রামগড় পৌরসভার সম্মেলন কক্ষে বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠকে ব্রিজটি নির্মাণের বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়। বৈঠক শেষে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের জানান, রামগড়ের মহামুনি এলাকার ফেনী নদীতে মৈত্রী সেতু-১ নির্মাণে আর কোন বাধা রইলো না। এটি নির্মিত হলে এই অঞ্চলের মানুষ অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হবে। এসময় ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা জানান, গত ১০ বছরে বাংলাদেশ ভারতের মধ্যে যোগাযোগ ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন অতুলনীয়ভাবে এগিয়েছে। ফেনী নদীর উপর প্রস্তাবিত এই ব্রিজ বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে খুবই গুরুত্বপূর্ণ সংযোগসহ ব্যবসা, পর্যটন বৃদ্ধি করবে। এসময় হাইকমিশনার মন্ত্রীর প্রসংশা করে বলেন তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধা দেশের স্বাধীনতা ও সাংবিধানিক মূল্যবোধ রক্ষা তিনি লড়াই করছেন।
এসময় সেতুমন্ত্রী ও হাইকমিশনার ছাড়াও খাগড়াছড়ি জেলার সাংসদ উপজাতীয় শরনার্থী ট্রাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, সাবেক সাংসদ ও শরনার্থী ট্রাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান যন্তিন্দ্র লাল ত্রিপুরা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মোঃ রাশেদুল ইসলাম, খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার আলী আহমদ খাঁন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কাজী মোহাম্মদ চাহেল তস্তরী, চট্টগ্রাম সড়ক ও জনপদ বিভাগের এডিশনাল চীপ আফতাব হোসেন, মন্ত্রীর সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। অপরদিকে ভারতীয় সড়ক ও জনপদ বিভাগের উচ্চপদস্ত কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।