Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৮, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫, ০৯ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
শিরোনাম

ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধের পথে হাঁটছে তিন দেশ : ম্যাখোঁ

| প্রকাশের সময় : ১০ জানুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ইরান ইস্যুতে মিত্র দেশ যুক্তরাষ্ট্র, ইসরাইল ও সউদী আরবের কড়া সমালোচনা করলেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রঁ। তার অভিযোগ, ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ আরম্ভ করার পথে হাঁটছে এই তিন দেশ। রয়টার্সের খবরে বলা হয়, ইরানে চলমান সরকার-বিরোধী বিক্ষোভ নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে ব্যাপক আলোচনা চলছে। বিভিন্ন দেশের নেতারা এই বিক্ষোভ নিয়ে নিজ নিজ অবস্থান ব্যক্ত করেছে। এই ইস্যুতে তেহরানের সঙ্গে সংলাপের আহŸান জানিয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট। যুক্তরাষ্ট্র, ইসরাইল ও সউদী আরবের কড়া সমালোচনা করে ইম্যানুয়েল ম্যাক্রঁ বলেন, এই দেশগুলো ইরানের ব্যাপারে যুদ্ধংদেহী অবস্থান নিয়েছে। তিন দেশই বেশ কয়েক বছর ধরে আন্তর্জাতিকভাবে ইরানকে একঘরে করর চেষ্টা করছে। তিনি হুশিঁয়ারি দিয়ে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, ইসরাইল ও সউদী আরব, যারা বিভিন্নভাবেই আমাদের মিত্র, তাদের নেয়া আনুষ্ঠানিক অবস্থান প্রায় নিশ্চিতভাবেই আমাদেরকে যুদ্ধের দিকে ধাবিত করবে। এই দেশগুলোর মধ্যে কেউ আবার উদ্দেশ্যমূলকভাবেই এমন কৌশল হাতে নিয়েছে। ইরানে বিক্ষোভ শুরু হওয়ার পর থেকেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প, ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু আক্রমণাত্মক অবস্থান নেন। সউদী আরবও ইরানকে এক নম্বর শত্রæ মনে করে দেশটির মালিকানাধীন বিভিন্ন টিভি চ্যানেল আক্রমণাত্মক প্রচারণা চালিয়ে আসছে। ইরানের সরকারি কৌঁসুলি মোহাম্মদ জাফর মোনতাজেরিন এই বিক্ষোভের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ, ইসরাইল ও সউদী আরবকে দায়ী করেছেন। বিক্ষোভ দমন করা হয়েছে বলে দাবি করেছে ইরান। দেশটির বিপ্লবী রক্ষী বাহিনী বলছে, দেশে শৃঙ্খলা পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হয়েছে। দেশটির বিভিন্ন স্থানে সরকারপন্থী সমাবেশও অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতা সংঘটন, সেন্সরশিপ আরোপ ও ইরানের জনগণের সম্পদ আত্মসাৎকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার যথেষ্ট কর্তৃত্ব রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। রয়টার্স।

 


Show all comments
  • তামিম ১০ জানুয়ারি, ২০১৮, ২:৩৩ এএম says : 0
    ওই তিন দেশের সময় শেষ হয়ে আসতেছে
    Total Reply(0) Reply
  • সোহরাব হোসেন ১০ জানুয়ারি, ২০১৮, ২:৩২ এএম says : 0
    সউদী আরব কীভাবে কোন মুসলীম দেশ শত্রু ভাবে ?
    Total Reply(0) Reply
  • ১০ জানুয়ারি, ২০১৮, ৩:২৮ এএম says : 0
    অতিত ,বতমান ,সাউদী আরবের রাজনীতি ডাসবিনে ময়লামত।কারণঃ ওআইছি মিএ দেশ গোলোর যত রকম সাংঘাদ হয়েচে সব সাংঘাদের সাউদী আরব দাই ।
    Total Reply(0) Reply
  • alim ১০ জানুয়ারি, ২০১৮, ৭:৪৭ এএম says : 0
    “ রাজতন্ত্র ধরে রাখার তরে, সৌদি নাচে যুক্তরাষ্ট্র –ইসরাইল যখন ইশারা করে,মরলে মরুক লাখ মুসলিম সৌদির আসে যায়না কিছু তাতে,গদি আর ......... থাকলে সাথে ৷”
    Total Reply(0) Reply
  • Imran Shobuj ১০ জানুয়ারি, ২০১৮, ৩:৩৪ পিএম says : 0
    ইরান এমন একটি দেশ, যেটাকে মধ্যেপ্রাচ্ছের মিসাইলের গোডাউন বলা হয়। প্রতি ৭ মিনিটে ১০০ টি ব্যালিস্টিক মিসাইল ছোড়ার ক্ষমতা রাখে। ২০১২ সালে যখন ইরানের কোন বড় মিত্র ছিলনা, তখন ও সৌদি, ইজরাইল ও যুক্তরাষ্ট্র সাহস করেনি ইরান আক্রমণ করার আর এখন তো অনেক উন্নত সাথে মিত্র হিসেবে বড় দুই শক্তি রাশিয়া ও চিন
    Total Reply(1) Reply
    • Siddikur Rahman ১৫ জানুয়ারি, ২০১৮, ১০:৪৯ এএম says : 0
      Alhamdulillah , Iran Zindabad
  • Murtuza Chowdhury ১০ জানুয়ারি, ২০১৮, ৩:৩৫ পিএম says : 0
    একের পর এক মুসলিম রাষ্ট্রের উপর আমেরিকার আগ্রাসন থামাতে এগিয়ে আসতে হবে বিশ্ব নেতৃবৃন্দকে।
    Total Reply(1) Reply
    • Siddikur Rahman ১৫ জানুয়ারি, ২০১৮, ১০:৫০ এএম says : 0
      Right
  • ইসকান্দার আলম ১৬ জানুয়ারি, ২০১৮, ৯:১২ এএম says : 0
    আগামীতে গোটা মধ্যপ্রাচ্য নিয়ন্রণ করবে ইরান।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর