Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৯ মে ২০১৯, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৩ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু কণ্ঠশিল্পী কৃষ্ণকলির স্বামী ২ দিনের রিমান্ডে

প্রকাশের সময় : ২৫ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর শেরে বাংলানগর থানা এলাকার একটি ফ্ল্যাটে গৃহকর্মী জান্নাত আক্তার শিল্পীর (১৫) রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় কণ্ঠশিল্পী কৃষ্ণকলির স্বামী ও গৃহকর্তা খালিকুর রহমানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুই দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে খালিলুরকে ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ নুরু মিয়ার আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড চায় শেরে বাংলানগর থানা পুলিশ। শুনানি শেষে আদালত দুই দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
শেরে বাংলানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিজি বিশ্বাস জানান, গৃহকর্মীর মৃত্যুর ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের সময় গ্রহকর্তার কথাবার্তা ও আচরণে সন্দেহ হয়। এছাড়া তার মুখে বেশ কিছু খামচির দাগ দেখে সন্দেহভাজন হিসেবে তাকে প্রথমে ফৌজদারী কার্যবিধির ৫৪ ধারায় আটক করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। খালিকুরকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ওসি আরো জানান, আটক গৃহকর্তা খালিকুর দাবি করেছেন যে গৃহকর্মী জান্নাত ফ্যানের সাথে গলার ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। তবে তার গাল ও শরীরে নখের আচড় অনেক প্রশ্নের জন্ম দেয়। ময়নাতদন্ত রিপোর্টের আগে এ বিষেয়ে নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না।
উল্লেখ্য, বুধবার তালতলার বাসা থেকে অচেতন অবস্থায় গৃহকর্মী জান্নাতকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে বিকেল সাড়ে ৫টায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
শিশু ধর্ষণ মামলায় এক ব্যক্তি রিমান্ডে
রাজধানীর তুরাগে দশ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের মামলায় হেলাল উদ্দিন নামের এক ব্যক্তিকে দুই দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই ব্যক্তিকে আদালতে হাজির করে পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ গোলাম নবী দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ঘটনার শিকার শিশুটি হেলাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে আদালতে জবানবন্দী দিয়েছে।
মামলার বিবরণীতে জানা যায়, ওই শিশুটি পরিবারের সঙ্গে রাজধানীর তুরাগ থানা এলাকায় থাকে। তার মা বিভিন্ন বাসাবাড়িতে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করেন। গত ১৭ মার্চ পাশের বাড়ির হেলাল উদ্দিন শিশুটিকে তার বাসায় ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। পরে শিশুটিকে গাজীপুরের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় আজ শিশুটির মা তুরাগ থানায় একটি মামলা করেন। পরে হেলাল উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
মানবপাচারকারী দুদিনের রিমান্ডে
রাজধানীর পল্টন এলাকা থেকে ১৭৪টি পাসপোর্টসহ গ্রেপ্তার মানবপাচারকারী চক্রের সদস্য জাহাঙ্গীর আলম মিন্টুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দু’দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মহানগর হাকিম এস এম মাসুদ জামান আজ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন। ওই মানবপাচারকারীর নাম মো. গতকাল বুধবার তাকে রাজধানীর নয়াপল্টন থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে র‌্যাব-৩ এর জ্যেষ্ঠ ওয়ারেন্ট অফিসার মো. শফিউল আলম বাদী হয়ে পল্টন থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পল্টন থানার উপ-পরিদর্শক সুমন বড়ুয়া আসামিকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আদালত শুনানি শেষে দুদিন মঞ্জুর করেন।
রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, এই আসামি উগান্ডায় কাজ দেয়ার কথা বলে ২০-২৫ জন ব্যক্তিকে ১৪ দিনের ভ্রমণ ভিসায় পাঠান। ১৪ দিন শেষে তারা সে দেশের পুলিশের হাতে আটক হন। এরপর এসব ব্যক্তির স্বজনেরা মিন্টুর সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের ফিরিয়ে আনতে বললে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন। মামলার এজাহারে বলা হয়, উগান্ডায় পাঠানো ওই ব্যক্তিদের স্বজনেরা বিষয়টি র‌্যাবকে জানায়। র‌্যাব গোয়েন্দা নজরদারির মাধ্যমে জানতে পারে এই মানবপাচারকারী চক্র রাজধানীর নয়াপল্টনের মসজিদ গলির সনজরী টাওয়ারের সপ্ত তলায় ‘অল শুভ ওভারসিস’ নামক প্রতিষ্ঠান খুলে সাধারণ মানুষদের কাছ থেকে পাসপোর্ট নিয়ে বিদেশ পাঠানোর নামে টাকা আদায় করছিল। অথচ এ প্রতিষ্ঠানের সরকারি অনুমোদন নেই। এছাড়া এই চক্রের আরেক সদস্য বিদেশ যেতে ইচ্ছুক মানুষের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাৎ করে উগান্ডায় অবস্থান করছে। তার নাম জাহাঙ্গীর আলম ওরফে আলম। তিনি এ মামলার দুই নম্বর আসামি।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন