Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫, ১৫ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌
শিরোনাম

আপত্তি থাকলেও ব্যাংক কোম্পানি আইন পাস হবে -অর্থমন্ত্রী

| প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : কারও কারও আপত্তি থাকলেও ব্যাংকের পরিচালনা পরিষদে একসঙ্গে এক পরিবারে চার সদস্য থাকার সুযোগ তৈরিতে এবং পরিচালক পদে একটানা নয় বছর থাকার বিধান রেখে ব্যাংক কোম্পানি আইন সংশোধনের বিল জাতীয় সংসদে পাস হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেন, ‘আপত্তি ছিল, আপত্তি থাকুক। যখন আইন করা হয় তখন তো অনেকেরই আপত্তি থাকে।’ পার্লামেন্টে সংশোধিত ব্যাংক কোম্পানি আইন কি উঠছে- সাংবাদিকরা জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘হ্যাঁ আমি যাচ্ছি।’ এ আইনটি নিয়ে অনেকের আপত্তি ছিল। এটা কি পাস হয়ে যাবে- এর জবাবে মুহিত বলেন, ‘হ্যাঁ, নিশ্চয়ই পাস করব। ক্যাবিনেট পাস করে দিয়েছে, আই হ্যাভ টু পাস ইট।’ গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এই কথা বলেন তিনি।
এ আইন হলে তো পরিবারের কর্তৃত্ব বাড়বে- এ প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘পরিবারের কর্তৃত্ব বাড়বে? এখন তো পুরো পরিবার কন্ট্রোল করে। আমার তো মনে হয় স্পেসিফিক করছি।’
গত সেপ্টেম্বর মাসে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বিলটি উত্থাপন করেন। তবে গত বছরের ৮ মে মন্ত্রিসভার বৈঠকে সংশোধিত আইনের খসড়া অনুমোদনের পর থেকে ব্যাংক খাত সংশ্লিষ্টরা সরকারের এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে আসছেন।
নতুন এই সিদ্ধান্তে বেসরকারি ব্যাংকে ‘পরিবারতন্ত্র’ কায়েমের সুযোগ তৈরি হবে বলেও প্রতিক্রিয়া আসে। প্রভাবশালীদের সুযোগ দিতে আইনে এই সংশোধন আনা হচ্ছে বলেও অভিযোগ ওঠে।
বিদ্যমান আইনে এক পরিবার থেকে সর্বোচ্চ দুজন সদস্য একটি ব্যাংকের পরিচালক হতে পারেন। আর তিন বছর করে পরপর দুই মেয়াদে মোট ছয় বছর একই ব্যক্তি পরিচালক হতে পারেন। এরপর তিন বছর বিরতি দিয়ে আবারও পরিচালক হতে পারেন। বিলটি পরীক্ষার জন্য পাওয়ার পর গত অক্টোবরে সংসদীয় কমিটির সভাপতি রাজ্জাক বলেছিলেন, কোন যুক্তিতে আইন সংশোধনের এই প্রস্তাব আনা হয়েছে, তা অর্থমন্ত্রীর কাছে জানতে চাইবেন তারা।
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে উপস্থিত হননি। তাতে অংশ নিয়ে সরকারের সিদ্ধান্তের পক্ষে যুক্তি দিয়েছিলেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান। ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ পাস হওয়ার পর থেকে বেসরকারি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদে পরিচালকদের মেয়াদ-সম্পর্কিত ধারাটি পাঁচবার সংশোধন করা হয়েছে। এই ধারায় ব্যাংকের পরিষদে একজন পরিচালক কত বছর পরিচালক থাকতে পারবেন, সে কথা বলা রয়েছে। সর্বশেষ ধারাটি সংশোধন করা হয় ২০১৩ সালে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ