Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

জম্মু-কাশ্মীরের প্রথম মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন মেহবুবা

প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : জম্মু-কাশ্মীরে প্রথম মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে যাচ্ছেন পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি। গত বৃহস্পতিবার দলীয় বিধায়কদের এক বৈঠকে মেহবুবাকে সর্বসম্মতভাবে নেতা নির্বাচন করা হয়। দলীয় এই সিদ্ধান্তের ফলে তার মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পথ প্রশস্ত হয়ে গেল। কারণ, সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের নেতাকেই মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসানো হয়। তাকে দলীয় বিধায়কদের নেতা নির্বাচন করায় নেতা-কর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন মেহবুবা। একটি সূত্রে প্রকাশ, মেহবুবা মুফতি আগামী ২৯ মার্চ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে পারেন। এর ফলে রাজ্যে তিনিই প্রথম মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হতে চলেছেন। সরকার গঠন নিয়ে আলোচনা করতে গতকাল শুক্রবার মেহবুবা জম্মু-কাশ্মীরের গভর্নর এন এন ভোরার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। মেহবুবা মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পরে তাকে বিধানসভা বা বিধান পরিষদের যে কোনো একটির সদস্য হতে হবে। এর পাশাপাশি মেহবুবাকে সংসদ সদস্য পদ থেকেও ইস্তফা দিতে হবে। তিনি বর্তমানে দক্ষিণ কাশ্মীর এলাকার অনন্তনাগ কেন্দ্র থেকে নির্বাচিত পার্লামেন্টের সদস্য। গত বৃহস্পতিবার মেহবুবা মুফতির বাসভবনে দলীয় বিধায়কদের নিয়ে বৈঠকে বসার কয়েক ঘণ্টা আগে তার মরহুম বাবা এবং রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মুফতি মুহাম্মদ সাঈদের কবরে যান। পিডিপির এক নেতা বলেন, রাজ্যে বিজেপির সঙ্গে জোট সরকার গড়ার শেষ সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে তিনি দোয়া প্রার্থনা করতে বাবার কবরের সামনে যান। বিজেপি-পিডিপি জোট সরকারের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন মুফতি মুহাম্মদ সাঈদ। প্রায় ১০ মাস ধরে সরকার চালানোর পরে গত জানুয়ারিতে মারা যান মুফতি মুহাম্মদ সাঈদ। সেই থেকে রাজ্যে নির্বাচিত সরকার না থাকায় কার্যত সাংবিধানিক সংকট দেখা দেয়। বর্তমানে সেখানে গভর্নরের শাসন চালু রয়েছে। মেহবুবা মুফতি শপথ নেয়ার পরেই গভর্নরের শাসনের অবসান হবে। ওয়েবসাইট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।