Inqilab Logo

শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ মুহাররম ১৪৪৪

সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনে আওয়ামীপন্থীরা সংখ্যাগরিষ্ঠতায় জয়ী

প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১১:৪০ পিএম, ২৫ মার্চ, ২০১৬

শেখ জামাল ও এম এ মালেক : দীর্ঘ ছয় বছর পর সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতায় বিজয়ী হয়েছে সরকারপন্থী আইনজীবীদের সমন্বয় পরিষদের সাদা প্যানেল। এবারের (২০১৬-১৭) নির্বাচনে কার্যনির্বাহী পরিষদের ১৪টি পদের মধ্যে সভাপতি ও সহ-সভাপতিসহ ৮টি পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত আইনজীবীরা বিজয়ী হয়েছে। সম্পাদক ও সহ-সভাপতি একটি পদসহ ৬টিতে নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপি ও জামায়াতপন্থী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্যপরিষদের নীল প্যানেল।
জয়ী সভাপতি ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন ও তার প্রতিদ্বন্দ্বী জয়নুল আবেদীন এর গ্রামের বাড়ী বরিশাল হওয়ায় নির্বাচনের আগে আইনজীবীদের মধ্যে গুঞ্জন উঠেছিল। যদিও ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য, আর জয়নুল আবেদীন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা। তাদের রাজনৈতিক মতাদর্শে পার্থক্য থাকলেও দু’জনেরই বাড়ি বরিশালে। আইনজীবীদের আলোচনায় ছিল, সভাপতি প্রার্থী দু’জনের মধ্যে থেকে ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন নির্বাচিত হবেন। আর সম্পাদক পদে দুই প্রার্থীর গ্রামের বাড়ী এর নোয়াখালী হওয়ায় এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন সম্পাদক নির্বাচিত হবেন। যদিও মো. আজাহার উল্লাহ ভুঁইয়া আওয়ামী সমর্থিত প্রার্থী, আর এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাবিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সমার্থিত এই দুটি প্যানেল ভিতরে ভিতরে সমঝোতা করেছে বলে সভাপতি ও সম্পাদক পদ জিতেছেন বলে মনে করেন সাধারণ আইনজীবীরা। তফসিল ঘোষণার পর থেকে আইনজীবীদের মাঝে গুঞ্জুন ছিল এবছর সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি হবেন বরিশালের এবং সম্পাদক হবেন নোয়াখালীর। ফলাফলে তাদের গুঞ্জন সত্যি হল বলে মনে করেন আইনজীবীরা।
এর আগে সর্বশেষ ২০০৯ সালের নির্বাচনে সভাপতি, সম্পাদকসহ ১৩ পদ জিতে নিয়ে সমিতিতে নিরঙ্কুশ বিজয় অর্জন করেছিলেন আওয়ামী সমর্থক আইনজীবীরা। টানা অর্ধযুগ ধরে প্রতিটি নির্বাচনে দুই শীর্ষ পদসহ অধিকাংশ পদ বিএনপি-জামায়াত জোট সমর্থকদের হাতে যাওয়ায় তারাই ছিলেন সংগঠনের কতৃত্বে। টানা দু’দিন ভোটের পর গতকাল শুক্রবার সকালে নির্বাচন পরিচালনা উপ-কমিটির প্রধান মো. হারুন অর রশিদ এ ফল ঘোষণা করেন। এবছর নির্বাচনে ৭৮ শতাংশ ভোট পড়েছে।
ঘোষিত ফলে দেখা যায়, সাদা প্যানেল থেকে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন ২ হাজার ৪৭ ভোট পেয়ে সমিতির নতুন সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নীল প্যানেলের জয়নুল আবেদীন পেয়েছেন ১ হাজার ৭৭৯ ভোট। সম্পাদক পদে নীল প্যানেলের প্রার্থী ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন বিজয়ী হয়েছেন, তিনি পেয়েছেন ২ হাজার ৫৭ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী সাদা প্যানেলের মো. আজাহার উলাহ ভুঁইয়া পেয়েছেন ১ হাজার ৭৪৯ ভোট। সহ-সভাপতি দুইটি পদে (সাদা) প্যানেল থেকে মো. তাহেরুল ইসলাম ভোট পেয়েছেন ১৮৮০ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। আর জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য (নীল) প্যানেলে ফাহিমা নাসরীন মুন্নী পেয়েছেন ২০৩১ ভোট পেয়ে সহ-সভাপতি সহ-সভপতি নির্বাচিত হন।
সাদা প্যানেলের বিজয়ীরা হলেন, ১৮৮০ ভোট, কোষাধ্যক্ষ: রমজান আলী শিকদার পেয়েছেন ২০৬৮ ভোট, সহ-সম্পাদক: একেএম রবিউল হাসান সুমন পেয়েছেন ১০৭৫ ভোট ও শেখ সিরাজুল ইসলাম সেরাজ ১৭৯১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
যারা সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন : খান মোহাম্মদ শামীম আজিজ পেয়েছেন ২০৮৭ ভোটে সদস্যদের মধ্যে প্রথম হয়েছেন, মো. আব্দুল আজিজ মিয়া মিন্টু ১৮৬৮ ভোট পেয়ে পঞ্চম স্থানে রয়েছেন, নাসরীন সিদ্দিকা লিনা ১৯৫৭ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন।
নীল প্যানেলের সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন তারা হলেন: নাসির উদ্দিন আহমেদ অসীম ২০৩৮ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন, মো. নাসির উদ্দিন খান সম্রাট ১৮৮৫ ভোট পেয়ে চতুর্থ হয়েছেন, রেজাউল করিম রেজা ১৮৬৪ ভোট পেয়ে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছেন এবং সর্বশেষ সদস্য মো. কামাল হোসেন ১৮৫৪ ভোট পেয়ে সপ্তম স্থান পেয়েছেন।
সমিতির (২০১৬-১৭) দু’দিনব্যাপী (২৩ ও ২৪ মার্চ) নির্বাচনে ভোটগ্রহণ বৃহস্পতিবারে বিকেল ৫টায় সম্পন্ন হয়। এবার ৫ হাজার ২৮ জন ভোটারের মধ্যে ৩ হাজার ৯২১ জন আইনজীবী ভোট দিয়েছেন। উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। দু’দিনব্যাপী এ নির্বাচনে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হয়। ভোটগ্রহণ শেষে গতকাল রাত ১১টা থেকে গণনা শুরু হয়।
টানা অর্ধযুগ ধরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিএনপি সমর্থক প্যানেল সংখ্যাগরিষ্ঠতায় নির্বাচিত হয়ে আসছে। সভাপতি পদে বিএনপি সমর্থক প্যানেলে খন্দকার মাহবুব হোসেন এবারসহ ৪ বার নির্বাচিত হন। এ প্যানেলে এজে মোহাম্মদ আলী ও জয়নুল আবেদীন একবার করে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। সম্পাদক পদে মাহবুব উদ্দিন খোকন টানা ৪ বার নির্বাচিত হলেন। এবারের নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে নতুন মুখের সংখ্যা ছিল বেশি। ১৪টি পদের মধ্যে অল্প বয়সেই সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে অংশ নিয়ে জয়ী হয়েছেন কয়েকজন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনে আওয়ামীপন্থীরা সংখ্যাগরিষ্ঠতায় জয়ী
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ