Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

দু’পক্ষ সম্মত না হলে কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতা করবে না জাতিসংঘ

| প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ভারত ও পাকিস্তান দু’পক্ষই রাজি না হলে কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতা করবে না জাতিসংঘ। জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের পক্ষে এ কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতার পথে না গেলেও অন্য বকেয়া বিষয়গুলো সমাধান করতে দু’দেশকে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। ভারত ও পাকিস্তানের সীমান্ত ও নিয়ন্ত্রণরেখা জুড়ে গত দশ দিন ধরে ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে। দুই পক্ষের মধ্যেই গোলাগুলি হচ্ছে। এর জেরে শুধু নিরাপত্তাবাহিনীর জওয়ানরাই নয়, মৃত্যু হচ্ছে সাধারণ মানুষের। সীমান্ত জুড়ে এই উত্তেজনা নিয়ে জাতিসংঘের মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন দুজারিককে প্রশ্ন করা হয়। তিনি বলেন, গত ১০ দিন ধরে সেখানে যা হচ্ছে, আমরা তার দিকে নজর রাখছি। গোটা ব্যাপারটাই আমরা জানি। এই সঙ্কট কাটাতে জাতিসংঘের মহাসচিব উদ্যোগী হচ্ছেন না কেন, সাংবাদিকরা দুজারিকের কাছে সে কথা জানতে চান। মুখপাত্রের জবাব, নীতিগত ভাবে গুতেরেসের দফতর মধ্যস্থতা করার ব্যাপারে রাজি আছে। কিন্তু যতক্ষণ না পর্যন্ত এর সঙ্গে জুড়ে থাকা সব পক্ষ জাতিসংঘের মধ্যস্থতাকে স্বীকার করছে, তত ক্ষণ এটা সম্ভব নয়। তবে জাতিসংঘের মহাসচিবের মুখপাত্র স্পষ্ট করে দেন, সংঘাতে জড়িয়ে থাকা পক্ষগুলোকে সামলাতে জাতিসংঘের মধ্যস্থতার প্রশ্নে তিনি নীতিগত অবস্থানের কথাই জানাচ্ছেন। বিশেষ কোনও ঘটনা কিংবা বিষয়কে সামনে রেখে কোনও কথা বলছেন না। তাঁর মন্তব্য, যে কোনও বিষয়েই যদি একাধিক পক্ষ জড়িয়ে থাকে, তা হলে জাতিসংঘের মধ্যস্থতা করার প্রশ্নে সবাইকে একমত হতে হবে। কাশ্মীর নিয়ে টানাপড়েনের মধ্যে বিভিন্ন সময়ে জাতিসংঘের মধ্যস্থতা চেয়ে এসেছে ইসলামাবাদ। এমনকী মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে জাতিসংঘের প্রতিনিধি দলকে কাশ্মীরে পাঠানোরও দাবি করে এসেছে তারা। কিন্তু ভারত বারবারই জানিয়ে দিয়েছে, এই ধরনের কোনও উদ্যোগ মেনে নেবে না দিল্লি। কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ এবং এ ব্যাপারে তৃতীয় পক্ষেই মধ্যস্থতার প্রয়োজন নেই। নানা সময়ে মার্কিন প্রশাসনের তরফে আসা এমন প্রস্তাবও ফিরিয়ে দিয়েছে নয়াদিল্লি। ফলে আজ জাতিসংঘের এই অবস্থান নয়াদিল্লির অবস্থানকে সমর্থন দিলো। এবিপি।



 

Show all comments
  • Shahen Ahmed ২৫ জানুয়ারি, ২০১৮, ১:৩৭ পিএম says : 1
    কাশ্মিরকে স্বাধীনতা দেওয়া হোক। বিশ্বের বুকে আরও একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসাবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ