Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫ আশ্বিন ১৪২৭, ০২ সফর ১৪৪২ হিজরী

আত্মরক্ষায় কারাতে

| প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম


মো: আলতাফ হোসেন : কারাতে মানে মারামারি নয়, এটি নিখাদ একটি খেলা। এই খেলা থেকে আতœরক্ষার কৌশল রপ্ত করা যায় বলেই দিন দিন বাড়ছে কারাতের জনপ্রিয়তা। তাই ছেলেদের পাশাপাশি কারাতে শিখতে এগিয়ে আসছে রক্ষণশীল পরিবারের মেয়েরাও। প্রিয় পাঠক/পাঠিকা ‘আতœরক্ষায় কারাতে’ ধারাবাহিক প্রতিবেদনের ৪২তম পর্বে আজ আমরা আলোচনা করবো ‘কাতা বা ফং-৭ (জি)’ ইভেন্ট নিয়ে।

কাতা বা ফং-৭ (জি)....
কিছুক্ষণ ওয়ার্মআপের পর কিবাডাসী পজিশনে গিয়ে ‘কাতা বা ফং-৭ (জি)’ ইভেন্ট প্রশিক্ষণ শুরু করতে হবে। কিবাডাসী থেকেই মুষ্টিবদ্ধ অবস্থায় দুই হাত দিয়ে সামনের দিকে ঘুরিয়ে ডবল পাঞ্চ মারতে হবে। এরপর দুই হাত দু’পাশে মুষ্টিবদ্ধ অবস্থায় চলে যাবে। ডান পা এক স্টেপ সামনে যাবে এবং হাটু ভাঙ্গা অবস্থায় থাকবে আর বাম পা থাকবে হাটু ভাঙ্গা ডান পা বরাবর পেছনে। একই সঙ্গে বাম হাত চলে যাবে মুষ্টিবদ্ধ অবস্থায় বাম কোমড়ে এবং মুষ্টিবদ্ধ ডান হাত নিচের বাম দিক থেকে উপরের ডান দিক হয়ে ডান বুক বরাবর থাকবে। পরের স্টেপে ডান পা বাম পায়ের ভেতরে চলে যাবে এবং বাম হাত উপরে দিকে উঠবে মুষ্টিবদ্ধ অবস্থায় আর ডান হাত নিচের দিকে মুষ্টিবদ্ধ অবস্থায় চলে যাবে। এসময় ডান পায়ে উল্কাগিরী মারতে হবে। এক স্টেপ সামনে গিয়ে বাম পা ডান পায়ের ভেতর ঢুকে যাবে। আর ডান হাত উপরে উঠবে ও বাম হাতটি আর্ট ফুল অবস্থায় ডান হাতের ভেতর দিয়ে ঢুকবে আর আঙ্গুলগুলো থাকবে আর্ট ফুল অবস্থায়। এরপর বাম দিকে ঘুরতে হবে। এসময় ডান পা থাকবে হাটু ভাঙ্গা অবস্থায় ও বাম পা থাকবে হাটু ভাঙ্গা ডান পা বরাবর পেছনে। তারপর বাম হাত বাম কোমড়ে মুষ্টিবদ্ধ অবস্থায় চলে যাবে ও ডান হাতের পাঁচ আঙ্গুল দিয়ে ঘুরিয়ে চপ মারতে হবে। আবার ডান হাত ডান কোমড়ে চলে যাবে মুষ্টিবদ্ধ অবস্থায় আর বাম হাতের পাঁচ আঙ্গুল দিয়ে ঘুরিয়ে চপ মারতে হবে। পরে বাম পায়ে কিংগারী মারতে হবে। এটা মারার পর ডান পা বাম পায়ের ভেতরে ঢুকবে আর বাম হাত উপরে উঠবে আর্ট ফুল অবস্থায় অর্থাৎ দু’আঙ্গুল থাকবে উপরের দিকে বাঁকী আঙ্গুলগুলো থাকবে নিচের দিকে একটু বাঁকা অবস্থায়। এরপর ডান হাতের আঙ্গুলগুলো আর্ট ফুল অবস্থায় বাম হাতের ভেতর দিয়ে ঢুকবে। এরপর বাম পায়ে উল্কাগিরী এবং ডান পা ঘুরিয়ে কিক মারতে হবে। এসময় ডান পা থাকবে হাটু ভাঙ্গা অবস্থায় ও বাম পা থাকবে হাটু ভাঙ্গা ডান পা বরাবর পেছনে। আর দু’হাতে লাজুইক মারতে হবে সামনের দিকে। এরপর একবার ডান হাতে পরেরবার বাম হাতে পর পর দু’বার পাঞ্চ করতে হবে। এবার ডান পায়ে ইচাগিরী ও সঙ্গে ডান পা দিয়ে উল্কাগিরী মারতে হবে। ও মুষ্টিবদ্ধ ডান হাত দিয়ে উপরের দিকে পাঞ্চ করতে হবে। এসময় বাম হাতটি থাকবে বাম কোমড়ে মুষ্টিবদ্ধ অবস্থায়। আর ডান পা থাকবে হাটু ভাঙ্গা অবস্থায় আর বাম পা ডান পা বরাবর পেছনে থাকবে। এরপর বাম দিক দিয়ে ঘুরে বাম পা এক স্টেপ পেছনে যাওয়ার সময় ডান পা থাকবে হাটু ভাঙ্গা অবস্থায়। এসময় একটু ঝাকুনি দিয়ে মুষ্টিবদ্ধ দুই হাতে সোজরে সামনের দিকে দোসখী অর্থাৎ ডবল পাঞ্চ মারতে হবে। এরপর যেখান থেকে শুরু করা হয়েছিল এই ইভেন্ট প্রশিক্ষণ সেখানে এসেই শেষ করতে হবে।
লেখক: সাবেক জাতীয় ক্রীড়াবিদ, কারাতে কোচ ও চেয়ারম্যান গ্রীন ক্লাব, মানিকগঞ্জ

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন