Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কোথাও দ্বিমুখী কোথাও ত্রিমুখী লড়াইয়ের আভাস

প্রকাশের সময় : ২৮ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বোদা (পঞ্চগড়) উপজেলা সংবাদদাতা

পঞ্চগড়ের বোদায় আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন জমে উঠেছে। দিন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীরা শেষ মুহূর্তের প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছে। আগামী ৩১ মার্চ ২য় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বোদা উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের মধ্যে ৬টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বাকি ৪টি ইউনিয়নে বিলুপ্ত ছিটমহলবাসীরা ভোটার হতে না পারায় নির্বাচন স্থগিত করেছেন বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন। সরজমিনে নির্বাচনী এলাকা ঘুরে সাধারণ ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায় ভোটের হিসাব নিকাশ। ১নং ঝইশালশির ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩১ জন প্রাথী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এখানে আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান মো. আবুল হোসেনের সাথে হাডাহাড্ডি লডাই হবে বিএনপির ধানের শীর্ষের প্রার্থী মো. সফিকুল আলমের সাথে। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে মোটরসাইকেল মার্কায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন মো. তহিদুল ইসলাম। ৩নং বেংহারী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১২ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এখানে আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার প্রার্থীর মো. আবুল কালাম আজাদ আবুর সাথে ত্রিমুখী লড়াই হবে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মোটরসাইকেল মার্কার সাবেক চেয়ারম্যন মো. লুৎফর রহমান এবং বিএনপিধানের শীষের প্রার্থী মো. আলতাফ আলী সাথে। এ ছাড়া জাতীয় পার্টির লাঙ্গল মার্কায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন আবুল হাসান, আর স্বতন্ত্র প্রার্থী ঘোড়া মার্কায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন নজমুল হক। ৭নং চন্দনবাড়ি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১১ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এখানে বর্তমান চেয়ারম্যান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোটরসাইকেল মার্কায় মোয়াজ্জম হোসেন বাবুলের সাথে বিএনপির ধানের শীর্ষের প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সাথে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে। এখানে আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার প্রার্থী মো. মনিরুল কাদের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছেন। জাতীয় প্রার্থীর লাঙ্গল মাকায় সাবেক ইউপি সদস্য তোরাব আলী ফুলফুল খান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। স্বতন্ত্র প্রার্থী অটোরিক্সা মার্কায় মহানন্দ কুমার রায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। ৮নং বোদা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১১ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩১ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার প্রার্থী মশিউর রহমান মানিক এবং বিএনপিধানের শীষের প্রার্থী মো. দেলোয়ার হোসেন সাইদের চেয়ে এগিয়ে আছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোটরসাইকেল মার্কায় মো. আবু বক্কর ছিদ্দিক মহব্বত এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী ও সাবেক ইউ’পি সদস্য আনারস মার্কায় মো. দেলোয়ার হোসেন প্রধান। এ ২জন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে লড়াই হবে বলে সাধারণ ভোটারদের ধারণা। ৯নং সাকোয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৭ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৩ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এখানে আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার বর্তমান চেয়ারম্যান প্রার্থী সায়েদ জাহাঙ্গীর হাসান সবুজের সাথে চতুর্মুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। স্বতন্ত্র প্রার্থী ঘোড়া মার্কায় মো. মোজাফর রহমান এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা মার্কার মো. রাজিউর রহমান প্রধান এবং কমিউনিস্ট পার্টির কাস্তে মার্কার প্রার্থী দীপক কুমার দেব বাবুলর লড়াই হবে। তবে বিএনপিধানের শীষের প্রার্থী বেনাজির হাবিব আল আলম (তপন মাহমুদ) এগিয়ে যাওয়া চেষ্টা করছেন। জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রার্থী প্রমোদা রঞ্জন বর্মন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস মাকায় প্রতিদ্বন্দ্বিতায় করছেন রাজীব কুমার বকসী। ১০নং পাঁচপীর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৮ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩০ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এছাড়া আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান মো. খায়রুল আলম খানের সাথে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে স্বতন্ত্র প্রার্থী ঘোড়া মার্কার হুমায়ুন করিব প্রধানের। বিএনপিধানের শীষের প্রার্থী হাবিবুল আলম মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। স্বতন্ত্র প্রার্থী হাছিনুজ্জামান চেীধুরী আনারস মার্কায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। কিন্তু তিনি এখনও কোন পোস্টার লিফলেট বের করেননি। এখানে খান ও প্রধানের লড়াইয়ে কে জিতবে তা বলা মুসকিল। তবে আগামী ৩১ মার্চ নির্বাচনে জয়-পরাজয় নির্ধারিত হবে সাধারণ মানুষের ভোটাধিকার প্রয়োগে। উপজেলা নির্বাচন অফিসের তথ্য মতে উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের ভোটার সংখ্যা ৮২ হাজার ১৪৬ জন। এর মধ্যে নারী ভোটর ৪১ হাজার ২৭৮ জন পুরুষ ভোটার ৪০ হাজার ৮৬৮ জন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কোথাও দ্বিমুখী কোথাও ত্রিমুখী লড়াইয়ের আভাস
আরও পড়ুন