Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

প্র দ র্শ নী শিল্পকর্মের বৃহত্তম আন্তর্জাতিক প্লাটফর্ম আর্ট সামিট

| প্রকাশের সময় : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

শিল্পকর্মকে নতুন আঙ্গিকে মানুষের সঙ্গে পরিচয় করে দিতে সামদানী আর্ট ফাউন্ডেশন-এর উদ্যোগে এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সহযোগিতায় চলছে ঢাকা আর্ট সামিট (ডাস)। ২ ফেব্রæয়ারি থেকে শুরু হওয়া বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে এই সামিট চলবে ১০ ফেব্রæয়ারি পর্যন্ত। ঢাকা আর্ট সামিট একটি আন্তর্জাতিক, অবাণিজ্যিক, দক্ষিণ এশিয়া আর্ট এবং আর্কিটেকচার সম্বন্ধীয় গবেষণাধর্মী এবং প্রদর্শনীধর্মী প্ল্যাটফর্ম। সামিট ২০১৮ সংস্করণে দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পৃক্ততাকে তুলে ধরা হয়েছে নতুনভাবে। জাতীয় উন্নয়নকে বিশেষভাবে প্রভাবিত করার জন্য রয়েছে শ্রীলঙ্কার অজানা শিল্পকলার ইতিহাস। এছাড়াও দক্ষিণ এশিয়ার প্রদর্শনীর ইতিহাসের ওপর আলোকপাত করা হয়। সামিটে এবার প্রথমবারের মত সম্পৃক্ত হয়েছে ইরান ও তুরস্ক। এসব প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছে ৩৫টি দেশের তিন শতাধিক শিল্পী। এবারের চতুর্থ সংস্করণে ঢাকা আর্ট সামিটের অন্যতম আকর্ষণীয় দিক হচ্ছে এবারই প্রথমবারের মত মূল লোগোতে ইংরেজির পাশাপাশি বাংলা ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে। বাংলাদেশের প্রায় শতাধিক শিল্পীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা হয়েছে এবারের সামিটে। বাংলাদেশি ১২টি আর্টিস্ট-লেড অর্গানাইজেশন তাদের শিল্পীদের নিয়ে ঢাকা আর্ট সামিটে অংশগ্রহণ করছে। বাংলাদেশের শিল্পকর্ম আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পৌঁছে দেওয়া আর্ট সামিটের অন্যতম উদ্দেশ্য। এর অংশ হিসেবে আর্ট সামিটে রয়েছে এশীয় শিল্পকর্ম প্রদর্শনীর অন্যতম পুরানো প্ল্যাটফর্ম এশিয়ান আর্ট বিয়েনালের উপর একটি বিশেষ প্রদর্শনী যেখানে প্রখ্যাত বাংলাদেশি শিল্পী সফিউদ্দিন আহমেদ, এম এম সুলতানসহ অন্যান্য শিল্পীদের শিল্পকর্ম প্রদর্শনী করা হয়েছে। ঢাকা আর্ট সামিট দক্ষিণ এশীয় শিল্পকর্মের জন্য বৃহত্তম আন্তর্জাতিক প্লাটফর্ম। এখানে চিত্রকর্ম ছাড়াও ভাস্কর্য, ভিডিও আর্ট ছাড়াও রয়েছে আন্তর্জাতিক শিল্পীদের অংশগ্রহণে মাল্টিস্টেজ পারফরম্যান্স প্রোগ্রাম যা ঢাকা আর্ট সামিটের বিশেষ আকর্ষণ।

গ্রন্থনা : লোকমান তাজ



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।