Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৯ আগস্ট ২০১৮, ০৪ ভাদ্র ১৪২৫, ০৭ যিলহজ ১৪৩৯ হিজরী‌

ইরাক পুনর্গঠনে প্রয়োজন ৮৮০০ কোটি ডলার

| প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে তিন বছরের লড়াই শেষে ইরাক পুনর্গঠনের পরিকল্পনা করেছে দেশটির সরকার। ইরাকের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এ পুনর্গঠন কাজে প্রয়োজন হবে ৮ হাজার ৮০০ কোটি ডলারেরও বেশি অর্থ। সোমবার কুয়েতে আন্তর্জাতিক এক সম্মেলনে পুনর্গঠন পরিকল্পনা তুলে ধরে এই তহবিলের প্রয়োজনীয় জানায় যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি।
ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, ইরাকের অর্থনৈতিক ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও পুনর্গঠনের জন্য কুয়েতে বিনিয়োগকারী ও দাতা সংস্থাগুলো এক সম্মেলনে একত্রিত হয়। সম্মেলনে ইরাকের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক কাসি আবদুলফাত্তাহ বলেন, প্রাথমিকভাবে প্রয়োজন ২ হাজার ২০০ কোটি ডলার প্রয়োজন। আর দীর্ঘমেয়াদে প্রয়োজন আরও ৬ হাজার ৬০০ কোটি ডলার। তবে ঠিক কতদিনে এই পুনর্গঠন সম্পন্ন হবে তার কোনও সময়সীমা উল্লেখ করেননি তিনি।
পরিকল্পনামন্ত্রী সালমান আল জুমালি বলেন, ‘ইরাককে পুনর্গঠন করার চেষ্টা করছি আমরা। আমাদের বিশ্বাস এতে করে এই অঞ্চলে স্থিতিশীলতা ফিরে আসবে।’ এই পুনর্গঠনে সহায়তা করা আন্তর্জাতিক স¤প্রদায়েরও দায়িত্ব বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
আইএসের বিরুদ্ধে লড়াই করা মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট পুনর্গঠনে কোনও আর্থিক সহযোগিতা দেবে না বলে জানিয়েছেন ইরাকি কর্মকর্তারা।
ইরাকের মন্ত্রিসভার মহাসচিব মাহদী আল আলাক বলেন, অবকাঠামোগত উন্নয়নে ইরাকের এখন সহজ শর্তে ঋণ সুবিধা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে কয়েকটি দেশ এগিয়ে আসতে পারে বলেও ধারণা করছেন তারা।
বিশ্বব্যাংকের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ রাজা রেহান আরশাদ বলেছেন, আবাসন প্রকল্পে জরুরি ভিত্তিতে সহায়তা প্রয়োজন।
ইরাকের পুনর্গঠন তহবিল পরিচালনা করা মুস্তাফা আল হিতি বলেন, আইএসবিরোধী যুদ্ধে প্রায় ১ লাখ ৩৮ হাজার বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে এর প্রায় অর্ধেক। গৃহহারা হয়েছেন ২৫ লাখ মানুষ।
গত ১৫ বছর ধরে সহিংসতা চলছে ইরাকে। সাবেক প্রেসিডন্ট সাদ্দাম হুসেনকে উৎখাতের পর শিয়া-সুন্নির সংঘর্ষ দেখেছে দেশটি। কুর্দি বাহিনীও ছিল সশস্ত্র লড়াই শুরু করে। এরপর ২০১৪ সালে আইএস বিস্তীর্ণ এলাকা দখল করে তাÐব শুরু করে। গত ডিসেম্বরে তিন বছরের যুদ্ধের পর দখলকৃত অঞ্চল থেকে আইএসকে উৎখাত করে জয় ঘোষণা করে ইরাক। দেশটির প্রায় এক-তৃতীয়াংশ অঞ্চল এই জঙ্গির গোষ্ঠীর দখলে ছিল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর