Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ০৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

মানববন্ধনেও নেতাকর্মীদের ঢল : অবস্থান কর্মসূচি আজ

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি

প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১২:৪৮ এএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে কারাদন্ড দেওয়ার পর শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন দলের নেতাকর্মীরা। অহিংস ও শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আনতে চায় তারা। দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া নিজেও রায়ের আগের দিন নেতাকর্মীদেরকে ধৈর্য ধরতে এবং শান্তিপূর্ণ ও গণতান্ত্রিকভাবে আন্দোলন পরিচালনা করার নির্দেশ দিয়েছেন। দলের তৃণমূল থেকে সিনিয়র নেতারাও এই এক নির্দেশেই একই সূতোয় গেথে গেছেন। দলীয় প্রধানের এক নির্দেশেই বদলে গেছে বিএনপির আন্দোলন কৌশলও। উস্কানীমূলক ও সহিংস কর্মসূচি দিয়ে সরকারকে কোন সুযোগ করে দিতে চায়না দলের নেতারা। শান্তিপূর্ণ মিছিল, মানববন্ধন, অবস্থান কর্মসূচি ও অনশনের মাধ্যেমে প্রতিবাদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। আর প্রতিটি কর্মসূচিতেই নামছে নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষের ঢল। হাজার হাজার নেতাকর্মী স্বমস্বরে চিৎকার করে দাবি জানাচ্ছে প্রিয় নেত্রীকে মুক্তি দেওয়ার। গতকাল (সোমবার) বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ‘ভিত্তিহীন’ ‘বানোয়াট’ মামলায় সাজা প্রদানের প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে ঢাকাসহ সারাদেশে মানববন্ধন করেছে বিএনপি। রাজধানীতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বেলা ১১ টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত মানববন্ধন করেন নেতাকর্মীরা। ঢাকায় মানববন্ধনে নামে নেতাকর্মীদের ঢল। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে সচিবালয়ের মোড় এবং কদম ফোয়ারা মোড় পর্যন্ত কয়েক লাইনে বিভক্ত হয়ে নেতাকর্মীরা সারিবদ্ধভাবে মানববন্ধনে দাঁড়ান। এর আগে কর্মসূচির নির্ধারিত সময়ের আগেই সকাল ১০টা থেকে মানববন্ধনে দলটির নেতাকর্মীরা অবস্থান নিতে শুরু করেন। বেলা ১১টার দিকে প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে হাজার হাজার নেতাকর্মী জড়ো হন। কিছুক্ষণ পর পর নেতাকর্মীদের মুখে উচ্চারিত হতে থাকে ‘বন্দি আছে আমার মা, ঘরে ফিরে যাবো না’, ‘হামলা করে আন্দোলন- বন্ধ করা যাবে না’, ‘জেল জুলুম টিয়ার গ্যাস, জবাব দেবে বাংলাদেশ’- ইত্যাদি ¯েøাগান। নেতকর্মীদের ¯েøাগানে মুখরিত হয়ে ওঠে প্রেসক্লাব চত্বর। পূর্বঘোষিত মানববন্ধনে বিএনপি ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, চিকিৎসক, প্রকৌশলী, আইনজীবী, কৃষিবিদসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করে সাধারণ মানুষও দাঁড়িয়ে যান মানববন্ধনে। এ মানববন্ধনের মাধ্যমেই বিএনপির কর্মসূচিতে ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ শুরু করলেন। যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল গত রোববার জোটের শীর্ষ নেতাদের বৈঠকে। সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ি বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের শরিক দলের শীর্ষ নেতা এবং ব্যাপক সংখ্যা মহিলা কর্মী-সমর্থকরা মানববন্ধনে অংশ নেন। মানববন্ধনকে ঘিরে প্রেসক্লাবের সামনে আইনশৃক্সক্ষলা বাহিনীর সদস্যদের ব্যাপক উপস্থিত থাকলেও তারা বিএনপির কর্মসূচিতে কোনো বাধা দেননি। এদিকে আজও একই দাবিতে সারাদেশে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি। রাজধানীতে সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউটের সামনে নেতাকর্মীরা অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন। সারাদেশের সকল বিভাগ, জেলা ও উপজেলায়ও একই কর্মসূচি পালন করতে নির্দেশনা দিয়েছে বিএনপি।
গতকাল মানববন্ধনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, খালেদা জিয়াকে ছাড়া কোন নির্বাচন হবে না। নেত্রীকে নিয়েই আমরা আগামী নির্বাচনে যাবো ইন্শাআল্লাহ। এসময় মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, বরকত উল্লাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহজাহান, আবদুল আউয়াল মিন্টু, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, শওকত মাহমুদ, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু, প্রফেসর ড. সুকোমল বড়–য়া, মাহমুদুল হাসান, আবদুস সালাম, মো: শাহজাদা মিয়া, কেন্দ্রীয় নেতা ড. মামুন আহমেদ, হাবিবুর রহমান হাবিব, ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, প্রফেসর ডা. রফিকুল কবির লাবু, জয়নাল আবদীন ফারুক, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সাখাওয়াত হোসেন জীবন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, শিরিন সুলতানা, ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনীন, এমরান সালেহ প্রিন্স, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, আমিনুল হক, শামীমুর রহমান শামীম, অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, মুহাম্মদ আবদুল আউয়াল খান, ড. মোর্শেদ হাসান খান, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, হারুনুর রশিদ, কাদের গণি চৌধুরী, নিলোফার চৌধুরী মনি, হেলেন জেরিন খান, শাম্মী আখতার, রাশেদা বেগম হীরা, রফিক সিকদার, শেখ রবিউল আলম রবি, বজলুল করিম চৌধুরী আবেদ, তাবিথ আউয়াল, আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, নিপুন রায়, ঢাকা মহানগরীর কাজী আবুল বাশার, তানভীর আহমেদ রবিন, যুবদলের সাইফুল আলম নীরব, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, নূরুল ইসলাম নয়ন, মাহবুবুল হাসান পিঙ্কু, রফিক আহমেদ ডলার, স্বেচ্ছাসেবক দলের শফিউল বারী বাবু, সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, মোস্তাফিজুর রহমান, গোলাম সরোয়ার, বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান, মহিলা দলের আফরোজা আব্বাস, সুলতানা আহম্মেদ, মুক্তিযোদ্ধা দলের ইশতিয়াক আজিজ উলফা, সাদেক আহমেদ খান, ছাত্রদলের মামুনুর রশিদ মামুন, আলমগীর হাসান সোহান, নাজমুল হাসান, আবু আতিক আল হাসান মিন্টু, আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ।
২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতাদের মধ্যে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মোহাম্মদ ইবরাহিম, ন্যাপ ভাসানীর চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আজহারুল ইসলাম, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, খেলাফত মজলিসের শেখ গোলাম আসগর, তোফাজ্জল হক মিয়াজী, মাওলানা আজিজুল হক, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মাওলানা মহিউদ্দিন ইকরাম, এনডিপির গোলাম মোর্ত্তজা, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমেদ, ডিএল’র সাইফুদ্দিন মনি, এনপিপি চেয়ারম্যান ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, মহাসচিব মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, এলডিপির শাহাদাত হোসেন সেলিম, বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া, লেবার পার্টির একাংশের মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, অপর অংশের হামদুল্লাহ আল মেহেদী, জাগপার লুৎফর রহমান, আসাদুর রহমান, বেলায়েত হোসেনসহ জোটের নেতারা, জিয়া পরিষদের আব্দুল্লাহিল মাসুদ সহ অনেকেই কর্মসূচির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মানববন্ধন: বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন বানোয়াট মামলায় সাজা প্রদানের প্রতিবাদে এবং অবিলম্বে তার নি:শর্ত মুক্তির দাবিতে মুখে কালো কাপড় বেঁধে মানববন্ধন করেছেন ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের প্রায় শতাধিক শিক্ষক। গতকাল দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে তারা এই মানববন্ধন করেন। ঢাবি সাদা দলের আহŸায়ক ড. মো: আখতার হোসেন খান, যুগ্ম আহŸায়ক প্রফেসর ড. মো: আবদুর রশিদ ও প্রফেসর ড. মোর্শেদ হাসান খানের নেতৃত্বে সাদাদলের প্রফেসর ড. সদরুল আমিন, ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, লুৎফর রহমান, প্রফেসর ড. মহব্বত খান, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান খান, ড. মাহফুজুর রহমান, ড. মামুন আহমেদ, প্রফেসর ড. নূরুল আমিন, ড. মহিউদ্দিন আহমেদ, ড. আল মোজাদ্দেদী আলফেছানী, ড. মিজানুর রহমান, ইসরাফিল প্রামাণিক রতন, প্রফেসর অনুপম সেন, প্রফেসর দেবশীষ পাল, প্রফেসর ড. নূরুল আমিন, প্রফেসর ড. গোলাম রব্বানী, প্রফেসর আলামিন, ড. এহসানুল মাহবুব যোবায়ের, প্রফেসর আবুল কালাম আজাদ, প্রফেসর শহিদুল ইসলাম, প্রফেসর জসিম উদ্দিন, মো: আনোয়ার হোসেন, মো: নূরুল আমিন প্রমুখ।জাতীয় প্রেসক্লাবের প্রধান গেইটের সামনে মুখে কালো কাপড় বেধে মানববন্ধনে দাঁড়ান ঢাবির শিক্ষকেরা। তারা অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেন।
চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, চট্টগ্রামে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবু সুফিয়ান সভাপতিত্বে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি। চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা বিএনপির এসব মানববন্ধনে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেয়। মানববন্ধন কর্মসূচিতে বিএনপি নেতারা বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।
রাজশাহী ব্যুরো জানায়, আমার নেত্রী আমার মা। বন্দি থাকতে দেব না। শ্লোগান দিয়ে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কারাদন্ডের রায়ের প্রতিবাদে রাজশাহীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। মানববন্ধন বক্তব্য দেন- নগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক মিলনসহ প্রমুখ।
নোয়াখালী ব্যুরো জানায়, নোয়াখালীতে জেলা বিএনপির সভাপতির সভাপতিত্বে জেলা বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের যৌথ উদ্যোগে নোয়াখালী প্রেসক্লাব সড়কে এক বিরাট মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়।
বিশেষ সংবাদদাতা, ময়মনসিংহ থেকে জানান, ময়মনসিংহে আইনজীবী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুরুল হকের সভাপতিত্বে মানববন্ধন করেছে আইনজীবী ফোরাম। সোমবার দুপুরে নগরীর জেলা আইনজীবী সমিতির সামনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের আয়োজনে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।
দিনাজপুর অফিস জানায়, দনাজপুর প্রেসক্লাবের সামনে জেলা বিএনপি শান্তিপূর্ন মানববন্ধন করে। মানবন্ধনের উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপি’র যুগ্ন আহŸায়ক মোর্কারম হোসেন, এ্যাডভোকেট মোফাজ্জল হোসেন দুলালসহ অন্যান্য নেতাকর্মীবৃন্দ। মানবন্ধনের এক পর্যায়ে পুলিশ এসে বাঁধা দেয়। এসময় তারা মানববন্ধন সমাপ্ত করতে বাধ্য হয়। পরে পুলিশ মানববন্ধন থেকে তিন জনকে গ্রেফতার করে।
নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা জানান, নওগাঁয় জেলা বিএনপির সভাপতির সভাপতিত্বে জেলা বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। সোমবার বেলা ১২টায় শহরের মুক্তির মোড়ের প্রধান সড়কে ঘন্টাকাল ব্যাপী এ মানব বন্ধন কর্মসুচী পালিত হয়।
সরকার আদম আলী, নরসিংদী থেকে জানান, গতকাল নরসিংদী প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে নরসিংদী জেলা বিএনপি। মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তৃতা করেছেন, নরসিংদী জেলা বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি সুলতান উদ্দিন মোল্লা, জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মাষ্টারসহ প্রমুখ।
নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা জানান, নেত্রকোনায় মানববন্ধন করতে চাইলে পুলিশী বাঁধায় তা পন্ড হয়ে যায়।
কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা জানান, কুড়িগ্রামে জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপি অংঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন। এসময় বক্তারা অবিলম্বে রায় বাতিল করে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেন।
ল²ীপুর জেলা সংবাদদাতা জানান, ল²ীপুরে বিএনপির মানববন্ধনে পুলিশের ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে ল²ীপুর জেলা বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসুচি পন্ড হয়ে যায়। এ সময় যুুবদলনেতা শিপন, রাশেদ, নুরু ও সুমন হোসেনসহ ৬ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়
মেহেরপুর জেলা সংবাদদাতা জানান, গতকালমেহেরপুর জেলা বিএনপি’র উদ্দ্যোগে মানব বন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি মাসুদ অরুন।
ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা জানান, ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় কন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সহসভাপতি ও ভাঙ্গা উপজেলা বিএনপির সভাপতির সভাপতিত্বে মানববন্ধন করেছে বিএনপি।
গাজীপুর জেলা সংবাদদাতা জানান, গাজীপুরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। রোববার সকালে গাজীপুর মহানগর বিএনপির ব্যানারে নগরীর ভোগড়া বাইপাস মোড় এলাকায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। দুপুরে নগরীর কৃষি গেইট এলাকায় পৌর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে মানববন্ধন করেছে বিএনপি ।
ঝালকাঠি জেলা সংবাদদাতা জানান, ঝালকাঠিতে বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচিতে পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে। এতে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান খান বাপ্পিসহ তিনজন আহত হয়েছে। লাঠিচার্জে নেতাকর্মীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। পুলিশ মানববন্ধনের ব্যানার ছিনিয়ে নিয়ে যায়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতা জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ভাদুঘরের বড় হুজুর বাড়ির সামনে মানববন্ধন করার চেষ্টা করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপি ও এর অংগ সংগঠন। পুলিশ ধাওয়া করে তাদের ছত্রভংগ করে দেয়। পরে তারা সিলেট রোডের শহরের পাইকপাড়ায় পাবলিক হেলথ অফিসের সামনে মানববন্ধন করে।
চাঁদপুর জেলা সংবাদদাতা জানান, চাঁদপুরে সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে ঘণ্টাব্যাপী মাবনবন্ধন করেছেন দলের নেতাকর্মীরা। এদিকে, শহরের নতুনবাজারের কদমতলা এলাকায় একই সময় আরেকটি মানববন্ধন করেন বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
জাবি সংবাদদাতা জানান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতীয়তাবাদী শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী ফোরাম মানববন্ধন করেছে। ফোরমটির সদস্য সচিব অধ্যাপক মো. শরিফ উদ্দিনের সঞ্চালনায় বিশ^বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের পাদদেশে এ মানববন্ধন করে তারা।
বিশ্বনাথ (সিলেট) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে বিশ্বনাথ উপজেলা বিএনপি ও সহযোগি সংগঠন। মানববন্ধন কর্মসূচী শেষে এক বিএনপি নেতাকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। এদিকে একই সময়ে বিশ্বনাথ নতুনবাজারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি গ্রæপের নেতাকর্মীরা।
ছাতক (সুনামগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, ছাতকে বিকেল ৩টায় শহরের ট্রাফিক পয়েন্টে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে বিএনপি। মানববন্ধন শেষে শহরে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।
গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদাতা জানান, ময়মনসিংহের গৌরীপুরে ময়মনসিংহ (উঃ) জেলা যুবদলের (একাংশ) উদ্যোগে এক বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে শহর প্রদক্ষিন করে মধ্যবাজার এসে শেষ হয়।
কালাইম (জয়পুরহাট) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, জয়পুরহাটের কালাইয়ে থানা বিএনপির আহŸায়কের সভাপতিত্বে থানা ও পৌর বিএনপি মানববন্ধন করেছে।
মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে বিএনপির নির্বাহী কমিটির শিশু বিষয়ক সম্পাদকে নেতৃত্বে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করেছে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
সরিষাবাড়ী (জামালপুর) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, গতকাল সোমবার সকালে জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের আয়োজনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, তাড়াশে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠন। সোমবার উপজেলা সদরের জিকেএস মোড় ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।



 

Show all comments
  • তামান্না ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৩:৫৮ এএম says : 1
    সময়ের সাথে সাথে বিএনপি আরো শক্তিশালী হচ্ছে
    Total Reply(0) Reply
  • আজাদ ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৩:৫৯ এএম says : 0
    এভাবে চলতে থাকলে বিএনপি ও বেগম জিয়া জনপ্রিয়তার উচ্চ শিখরে আরোহণ করবে।
    Total Reply(0) Reply
  • গনতন্ত্র ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৮:১৩ এএম says : 0
    এই কারাবরণ বিএনপি পেয়েছে রাজনীতিতে নবজীবন। বিএনপির র এই নবকৌশলে কোটি কোটি জনতা যোগ দিবে গনতন্ত্রের দলে। গনতন্ত্রের জয় চিরদিন হয়ে এসেছে, এখন হবে জয়।ইনশাল্লাহ ।
    Total Reply(0) Reply
  • Noor Ul Islam ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৩:১৩ পিএম says : 2
    ঢল দিয়ে কি হবে,কাজে লাগাতে না পারলে?
    Total Reply(0) Reply
  • Khan Azizul ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৩:১৪ পিএম says : 0
    মুক্তি চাই।দিতে হবে
    Total Reply(0) Reply
  • Foyze Rana ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৩:১৬ পিএম says : 0
    ইনশাআল্লাহ দেশমাতা মুক্তি পেয়ে আমাদের মাঝে ফিরে আসবে
    Total Reply(0) Reply
  • Rakibul Hasan ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৩:১৬ পিএম says : 0
    ‘এই যৌবন জলতরঙ্গ রুধিবি কি দিয়া বালির বাঁধ? কে রুধিবে এই জোয়ারের জল গগনে যখন উঠিছে চাঁদ’
    Total Reply(0) Reply
  • Mir Kasem ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৩:১৭ পিএম says : 0
    Go ahead
    Total Reply(0) Reply
  • তারেক মাহমুদ ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৩:১৯ পিএম says : 0
    নেতাকর্মীর পাশাপাশি জনসম্পৃক্ততা বাড়াতে হবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ