Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৫ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

দীর্ঘ ১৬ মাস পর জাতীয় দলের ব্যস্ততা!

| প্রকাশের সময় : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস রিপোর্টার : এক দিন, দুই দিন নয়- দীর্ঘ ১৬ মাস পর ব্যস্ততা বাড়ছে জাতীয় ফুটবল দলের। আসন্ন সাফ চ্যাম্পিয়নশিপকে সামনে রেখে অনুশীলন ক্যাম্পে ফিরলেন ফুটবলাররা। আর দায়িত্ব পাওয়ার প্রায় একবছর পর প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট পেলেন জাতীয় দলের বৃটিশ বংশোদ্ভুত অস্ট্রেলিয়ান কোচ অ্যান্ড্রু ওর্ড। গত বছরের ১৬ মে জাতীয় দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে বলা চলে বেকারই ছিলেন ওর্ড। কারণ ২০১৬ সালের ১০ অক্টোবর বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে ভুটানের বিপক্ষে প্রথম হারের পর থেকেই বাংলাদেশ দীর্ঘ সময় ধরে আন্তর্জাতিক ফুটবল খরায় ভুগেছে। বলা যায় তখন থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত জাতীয় দলের বড় কোন অ্যাসাইনমেন্ট ছিলো না। তাই বয়সভিত্তিক দল নিয়ে কাজ করেই সময় কাটিয়েছেন অ্যান্ড্রু ওর্ড। আগামী সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠেয় সাফ চ্যাম্পিয়নশিপকে সামনে রেখেই গতকাল বিকেএসপিতে শুরু হয়েছে জাতীয় দলের অনুশীলন ক্যাম্প। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) ঘোষিত ৩৫ সদস্যের জাতীয় দলের প্রাথমিক স্কোয়াডের ২৬ জন যোগ দিলেন এই ক্যাম্পে। বাকি ৯ জন ২১ ফেব্রæয়ারি যোগ হবেন দলের সঙ্গে। পুরনো ও নতুন মিশেলে জাতীয় ফুটবল দল গঠন হলেও এই দলে প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন ঢাকা আবাহনীর কোন ফুটবলার নেই। এএফসি কাপের খেলা থাকায় আবাহনীর সাত ফুটবলারকে রাখা হয়নি প্রাথমিক স্কোয়াডে। তবে কোচ বলেছেন এএফসি কাপের খেলা শেষে তারা ক্যাম্পে যোগ দেবে।
সাফে খেলার আগে কাতার ও থাইল্যান্ডে অনুশীলন এবং লাওসে ফিফা প্রীতি ম্যাচও খেলবেন মামুনুল-হেমন্তরা। অ্যান্ড্রু ওর্ডের সঙ্গে জাতীয় দলকে সহযোগিতা করবেন নতুন ফিটনেস কোচ পর্তুগালের মারিও লিচিনিও লেমোস। কাল বাফুফে ভবনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সহ-সভাপতি ও জাতীয় দল ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান কাজী নাবিল আহমেদ, এমপি। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন ও জাতীয় দলের ম্যানেজার সত্যজিৎ দাস রুপু।
২০২২ কাতার বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন অনেক আগেই দেখিয়েছেন বাফুফে সভাপতি। সেই কাতারেই যাচ্ছে বাংলাদেশ। তবে বিশ্বকাপে খেলতে নয়, অনুশীলন ক্যাম্পে পুনঃজীবন পেতে। তার আগে বিকেএসপিতে দু’সপ্তাহ কঠোর অনুশীলন করবেন জাতীয় দলের ফুটবলাররা। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ২৮ ফেব্রæয়ারি কাতারে অনুশীলনের জন্য গেলেও দলটি দেশে ফিরবে ১৪ মার্চ। এরপর ১৯ মার্চ থাইল্যান্ডের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবে বাংলাদেশ দল। সেখানে ২১ ও ২৩ মার্চ স্থানীয় দু’টি ক্লাবের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলবে তারা। সেখান থেকেই দু’দিন পর বাংলাদেশ পৌঁছবে লাওসে স্বাগতিক জাতীয় দলের বিপক্ষে একটি ফিফা প্রীতি ম্যাচ খেলতে। লাওস সফর শেষে ২৭ মার্চ ঢাকায় ফিরে আসবে লাল-সবুজরা। এভাবেই চলবে বাংলাদেশের সাফের প্রস্তুতি।
জাতীয় দলকে নতুন করে পথ চলার আহŸান জানালেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। তিনি বলেন,‘ সাফের আগে জাতীয় দল ব্যবস্থাপনা কমিটির এই পরিকল্পনা অবশ্যই ভালো। এদেশে এমন পরিকল্পনা আগে কখনো হয়নি। এবার ফুটবলারদের সব রকম সুবিধা দেয়া হচ্ছে।’ ফেডারেশন কাপ, প্রিমিয়ার লিগ ও স্বাধীনতা কাপে নয় মাস খেলা দেশের ফুটবলারদের ক্লান্তির অভিযোগ উঠলে সালাউদ্দিন বিষয়টিকে উড়িয়ে দেন। তার কথা, ‘মেসিতো সারা বছরেই ফুটবল খেলে। আবার বিশ্বকাপের জন্য আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে যোগ দেয়। কোথায় তার মধ্যে তো ক্লান্তির ছাপ দেখা যায় না। তাহলে আমাদের ফুটবলাররা এত পরিশ্রান্ত হবে কেন?’ কাজী নাবিল আহমেদ বলেন, ‘গত নয় মাস ছেলেরা খেলার মধ্যেই ছিল। তাই তাদেরকে নিয়ে অনুশীলন করতে কোন সমস্যা হবে না কোচ অ্যান্ড্রু ওর্ডের।’
অ্যান্ড্র ওর্ড বলেন, ‘ইটস টাইম ফর এ্যাকশন। আই ক্যান্ট প্রমিজ ইউ এনিথিং। বাস্তবতা হলো, ন্যাশনাল টিম কমিটি, বাফুফের সভাপতি একটা ভিশন নিয়ে আমাকে নিযুক্ত করেছেন। আমি তাদের সঙ্গে আলোচনা করেছি। যা প্রয়োজনীয় তা সরবরাহ করার কথা বলেছি। খেলোয়াড় নিয়ে যেহেতু কোন আইডিয়াই ছিল না আমার তাই শেষ কয়েকমাস ধরে আমি তাদের লক্ষ্য করেছি।’ তিনি যোগ করেন, ‘আমাদের সামনে একটা আন্তর্জাতিক ম্যাচ আছে। সঙ্গে টুর্নামেন্টও আছে। বিভিন্ন দায়িত্ব বর্তাচ্ছে শুধু একটা ভালো ফলাফলের। আমাদের এখন উন্নতি করতে হবে। খেলোয়াড়দের কমপক্ষে ৯৫ মিনিট খেলার উপযোগী করে তুলতে হবে। অনেক খেলোয়াড়ই ফিট না। আমার দায়িত্ব হচ্ছে অনুশীলন ঠিকমতো চালিয়ে নেয়া। খেলোয়াড়দের নিয়ে কাজ করা। আমি আমার আর খেলোয়াড়রা তাদের কাজটা করবে। তাদের কষ্ট করতে হবে ভালো ফল পেতে।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন