Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

আ’লীগের নির্দেশেই মনগড়া রায় -মেজর হাফিজউদ্দিন আহমেদ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৫:৪৮ পিএম

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজউদ্দিন আহমেদ অভিযোগ করেন, বেগম খালেদা জিয়ার ‘রায় আগে লেখা হয়নি। এখন লেখা হচ্ছে এবং তা সম্পূর্ণ আওয়ামী লীগের নির্দেশেই মনগড়াভাবে লেখা হচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জাতীয় কল্যাণ পার্টি আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়ার মামলার ৬৩২ পৃষ্ঠার রায়ের সত্যায়িত কপি দিতে এত দেরি হচ্ছে কেন? রায়ের দিন বলা হয়েছিল যে, ৬৩২ পৃষ্ঠার রায় লেখা হয়েছে। সেখান থেকে অল্প কিছু পড়ে শোনানো হবে। কিন্তু ৮ ফেব্রুয়ারির পর থেকে আজ পর্যন্ত আমরা রায়ের কপি পাচ্ছি না। ফলে আমরা ওই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করতে পারছি না। এ থেকেই বোঝা যায় যে, রায় আগে লেখা হয়নি। এখন লেখা হচ্ছে এবং তা সম্পূর্ণ আওয়ামী লীগের নির্দেশেই মনগড়াভাবে লেখা হচ্ছে।’

হাফিজ বলেন, ‘দেশে নিম্ন আদালতের যে কোনও স্বাধীনতা নেই, তা দেশের জনগণ জানে। এমনকd প্রধান বিচারপতিকেও স্বাধীন বিচার ব্যবস্থা পালনে বিরত রাখতেই অপসারণ করা হয়েছে। দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের টাকা লুটপাট এবং পাচার হচ্ছে। ব্যাংকের নথিপত্র ধ্বংস করে দেওয়া হচ্ছে। সেসব মামলায় তো কাউকে গ্রেফতার হতে দেখা যাচ্ছে না,বিচারও হচ্ছে না।’

আওয়ামী লীগ বিএনপিকে ধ্বংস করতে চায় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বিএনপিকে ধ্বংসের ষড়যন্ত্র করেই যাচ্ছে আওয়ামী লীগ। তাই তারা বিএনপির শান্তিপূর্ণ কার্যক্রমে বাধা দিতে লিপ্ত। বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে জনতার ঢল দেখে, তারা ভয় পাচ্ছে। তাই তারা ষড়যন্ত্রে মগ্ন।’

জাতীয় কল্যাণ পার্টির সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মোহাম্মদ ইবরাহিমের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব নুরুল কবির ভূঁইয়া পিন্টু, ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম ও সাইদুর রহমান,আবু নাসের মো. প্রমুখ।



 

Show all comments
  • saif ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ৭:৩৬ পিএম says : 1
    আপনাদের উকিলেরা কি মুখে কলা দিয়ে বসেছিলো, এত দিন এই মামলার যেরা হয়েছে কৈ কোন দিন আপনাদের কোন উকিল তো এটা বলেনি যে তাদেরকে আদালতে কথা বলার কিংবা যেরার সুযোগ দেয়নী। কেবল আপনারা যারা রাজনৈতির যড়িত ছিলেন আপনারই বলেছিলেন যে এটা হবে ও টা হবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রায়


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ