Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৫ জুন ২০১৮, ১১ আষাঢ় ১৪২৫, ১০ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী

ইসলামী কর্মতৎপরতা

| প্রকাশের সময় : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম


ইসলামী আন্দোলন
৮ ফেব্রæয়ারির একটি রায়কে কেন্দ্র করে দেশময় গণগ্রেফতার, হয়রানী ও ভয়ভীতিতে গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, সাংবিধানিক অধিকার লঙ্ঘন করে নিরীহ সাধারণ মানুষকে গ্রেফতার, হয়রানী করে মৌলিক অধিকার কেড়ে না নিতে সরকারের প্রতি আহŸান জানিয়েছেন। পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, সাধারণ মানুষ যেন মৌলিক অধিকার ফিরে পেতে পারে এবং নিরীহ মানুষ যেন অযথা হয়রানীর শিকার না হয় যে ব্যবস্থা করা সরকারের দায়িত্ব। চলমান পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষ চরম উদ্বিগ্ন ও ভয়ার্ত। মানুষের মাঝে অজানা আতঙ্ক বিরাজ করছে। মানুষেল মনে শুধু ভয় আর ভয়। এ অবস্থা দেশের জন্য কোনো ভাল লক্ষণ নয়। মানুষের মাঝে আস্থা সৃষ্টি করা সরকারের দায়িত্ব। কোন ক্রমেই অস্থিতিশীল পরিস্থিতি কাম্য নয়।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, রাজনীতি মানুষের কল্যাণের জন্য। যে রাজনীতি মানুষের অধিকার কেড়ে নেয়, মানুষকে আতঙ্কিত করে সে রাজনীতি কারো কাম্য নয়। তিনি নিরীহ নির্দোষ মানুষকে সাংবিধানিক মৌলিক অধিকার খর্ব করে হয়রানী ও আতঙ্কিত না করতে সরকারের প্রতি আহŸান জানান।
গাউছিয়া ইসলামিক মিশন
গাউছিয়া ইসলামিক মিশনের প্রধান কার্যালয়ে কার্যনির্বাহী কমিটির মাসিক সভায় মিশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বিশিষ্ট কলামিষ্ট গাজী মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম জাবির বলেন, সৎ আল্লাহভীরু মানুষদের পরিবর্তে চরিত্রহীন ও দুর্নীতিবাজরা সমাজ ও রাষ্ট্রের কর্ণধার হয়ে যাওয়ার ফলে সর্বত্র চরিত্রহীনতা, মূল্যবোধের অবক্ষয়, হত্যা-গুম-খুন ব্যাপক আকার ধারণ করছে। দলীয় অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে কোমলমতি স্কুল শিক্ষার্থীদের হাতে অস্ত্রের ঝনঝনানি। সহপাঠীর হাতে সহপাঠী খুন হচ্ছে। দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠে এক ছাত্রী অপর ছাত্রীর কাপড় টেনে ধরছে যা দেশবাসী প্রত্যক্ষ করছে। রাজধানীতে উচ্চ আওয়াজে গান-বাজনা বন্ধ করতে বলায় এক বৃদ্ধ খুন হওয়ার ঘটনা কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয় বরং সমাজের মূল্যবোধের ভিত্তিগুলো নষ্ট হয়ে পড়ার একটি চিত্র মাত্র। এ সবের বিরুদ্ধে দেশবাসীকে সচেতন হওয়ার আহŸান জানিয়ে বলেন, তা না হলে নতুন প্রজন্ম অন্ধকারের গলিতে চলে যেতে সময় লাগবে না। কার্যবাহিনী কমিটির মাসিক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
গাউছিয়া ইসলামিক মিশনের সাধারণ সম্পাদক ডা: মো: নজরুল ইসলাম রিপনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন গাউছিয়া ইসলামিক মিশনের হযরত সিনিয়র সহ-সভাপতি হযরত মাওলানা কাজী মো: নজরুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক মো: শরীফুল ইসলাম, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক মো: আমিনুল ইসলাম বুলবুল, প্রকাশনা সম্পাদক মো: আমিনুল ইসলাম, সদস্য কাজী আল আমিন খান, সেলিনা আক্তার ও মো: জুনাইদ ইসলাম আসিফ।
ইসলামী ঐক্যজোট
ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান ও নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতি মাওলানা আব্দুর রকীব এডভোকেট, মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা আব্দুল করিম খান ও সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ মাওলানা শওকত আমীন পীর সাহেব বি-বাড়ীয়া এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, “যেহেতু শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড”, তাই দেশ ও জাতিকে রক্ষার জন্য শিক্ষাক্ষেত্রে বিরাজমান বিভিন্ন বৈষম্য, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা পরিষদ ও শিক্ষামন্ত্রণালয়ের ব্যাপক দুর্নীতির বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে। তারা আন্দোলনরত বেসরকারী শিক্ষকদের সকল সমস্যার সমাধান করতে ও সকল ন্যায্য দাবী মেনে নিতে সরকারের কাছে জোর দাবী জানিয়েছেন।
-প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

 

 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

fifa-worldcup-2018