Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার ২৪ মে ২০১৯, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৮ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

স্বপ্ন পূরণ না হওয়ায় আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার আগুনে পুড়ছে -নজরুল ইসলাম খান

| প্রকাশের সময় : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : স্বপ্ন পূরণ না হওয়ায় আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার আগুনে পুড়ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ মনে করেছিল খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠানোর পর বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজপথে গাড়ি ভাঙচুর করবে। আর সেই সুযোগে সরকারি দলের নেতাকর্মীরা রাজপথে নাশকতা করবে, গাড়িতে আগুন দেবে, আর দোষ দেবে বিএনপির। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্ন পূরণ না হওয়ায় তারা প্রতিহিংসার আগুনে পুড়ছে। গতকাল (রোববার) বিকেলে নয়া পল্টনের দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থার (জাসাস) উদ্যোগে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।
আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতি করে অভিযোগ করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, প্রতিহিংসার রাজনীতি করে বিএনপির কি ক্ষতি হয়েছে? বরং আওয়ামী লীগের প্রতিহিংসার কারণে দেশবাসীর কাছে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দেশনেত্রী থেকে ‘মা’ হয়ে গেছেন। তিনি এখন দেশের বিপুলসংখ্যক মানুষের কাছে সবচেয়ে বেশি শ্রদ্ধার পাত্র। মরণকালে নাকি সবকিছুই ভুল হয়ে যায়। এ সরকারের মনে হয় এমনটাই হচ্ছে।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ বরাবরই অপপ্রচারে বিশ্বাস করে। এজন্য দেশনেত্রী ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। অথচ আমাদের নেত্রী কোনো অপরাধ করেননি। তার বিরুদ্ধে কোন তথ্য-প্রমাণ দেখাতে পারেনি। কেবল নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে আদালতকে ব্যবহার করে একটি মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে। তাকে দুর্নীতির আইনে বিচারও করা হয়নি। বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, খালেদা জিয়া তিনবারের প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু বর্তমান সরকার তার সঙ্গে সঠিক আচরণ করেনি। তার প্রাপ্ত সম্মান তাকে দেয়নি। আমরা সরকারের এমন আচরণের তীব্র নিন্দা জানাই। তিনি বলেন, মিথ্যা এ বানোয়াট মামলায় দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রীর সাজার ঘটনায় তারা (আওয়ামী লীগ) অনেকেই সমালোচনা করেছেন। সরকারের এমন প্রতিহিংসাপরায়ণ আচরণে মর্মাহত হয়েছেন। দেশনেত্রীর মুক্তির দাবিতে দেশব্যাপী গণস্বাক্ষর অভিযান চলছে জানিয়ে তিনি বলেন, এর পাশাপাশি আমাদের দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যেসব সহকর্মীরা গ্রেফতার হয়ে আছেন, তাদের বাড়ি বাড়ি যাচ্ছি আমরা, তাদের পরিবারের সদস্যদের সহানুভুতি জানানোর জন্য।
জাসাস সভাপতি প্রফেসর মামুন আহমেদের সভাপতিত্বে ও সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক জাকির হোসেন রোকনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, জাসাস সাধারণ সম্পাদক হেলাল খান, সহসভাপতি মীর সানাউল হক, আহসানউল্লাহ চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক মাসুদুর রহমান টিপু ও সাংগঠনিক সম্পাদক শিবা সানু বক্তব্য দেন।

 



 

Show all comments
  • তামিম ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ১:০৬ এএম says : 0
    আওয়ামী লীগের চিন্তা বাদ দিয়ে নিজেদের নিয়ে চিন্তা করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • নাসির ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ১:০৭ এএম says : 0
    পুড়তে দিন । আপনারা সাবধানে আগাবেন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ