Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮, ০১ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

ছেলের সামনে মাকে লাঞ্ছিতের প্রতিবাদে উত্তাল লক্ষ্মীপুর

প্রকাশের সময় : ৩০ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

লক্ষ্মীপুর জেলা সংবাদদাতা : রামগঞ্জে ছেলের সামনে মাকে গাছের সাথে বেঁধে বর্বর নির্যাতনের পর মাথা ন্যাড়া করার ঘটনার সাথে জড়িতদের বিচারের দাবিতে উত্তাল লক্ষ্মীপুর। বিভিন্ন কর্মসূচির অংশ হিসেবে মঙ্গলবার সকাল ১১টায় লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সামনে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।
নন্দন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জাতীয় মহিলা সংস্থার লক্ষ্মীপুর জেলা সভানেত্রী ফরিদা ইয়াসমিন লিকা, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি এম ছাবির আহমেদ, লক্ষ্মীপুর সামাজিক নারী উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক নাছিমা আক্তার, সচেতন নাগরিক কমিটির সহ-সভাপতি আবু মোবারক ভূইয়া, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ বেলায়েত হোসেন বেলাল, লক্ষ্মীপুর নন্দন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ রাজু আহম্মেদ, সাংবাদিক এ কিউ এম সাহাবউদ্দিন প্রমূখ। মানববন্ধন শেষে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলীপি দেয়া হয়।
অপরদিকে মঙ্গলবার দুপরে নির্যাতিতা নারী শ্রমিক খুরশিদা বেগমের বাড়ী গিয়ে তার চিকিৎসা ও মামলার দায়িত্ব নিয়েছেন সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য এডভোকেট নুরজাহান বেগম মুক্তা। টাকার অভাবে খুরশিদা বেগমের উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থা না থাকায় তিনি নির্যাতিত মহিলার উন্নত চিকিৎসার দায়িত্ব নেন এবং রামগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে খুরশিদা বেগমকে নির্যাতনকারী আসামীদের গ্রেফতারের নির্দেশ দেন। এসময় স্থানীয় ব্যবসায়ী ফারুক হোসেন নির্যাতিতার চিকিৎসার জন্য ৫ হাজার টাকা প্রদান করেন। এসময় রামগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আ ক ম রুহুল আমিন, ভাইস চেয়ারম্যান দেওয়ান বাচ্চু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুরাইয়া আক্তার ও রামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আবুল খায়ের পাটওয়ারী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ফারুক হোসেন স্থানীয় সংসদ সদস্যের প্রতিনিধি ও কাঞ্চনপুর ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মিজানুর রহমান সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, গত ২২ মার্চ মঙ্গলবার বিকেলে রামগঞ্জ উপজেলার কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের ব্রহ্মপাড়া গ্রামে নির্মাণ শ্রমিক খুরশিদা বেগম রাস্তা নির্মাণের কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে স্থানীয় হাছিনা বেগম নামের এক নারী তাকে পান খাওয়ার কথা বলে ঘরে ডেকে নেন। এ সময় অজ্ঞাত ২ জন পুরুষ এসে খুরশিদাকে কুপ্রস্তাব দিলে সে রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর করে তারা। পরে হাছিনার স্বামীর সাথে খুরশিদার পরকীয়া প্রেম রয়েছে দাবি করে হাছিনা, তার ভাই আবদুল আজিজ ও ফারুকসহ ৭-৮ জন মিলে খুরশিদাকে গাছের সাথে বেঁধে বেদম প্রহার ও শ্লীলতাহানি করে। একপর্যায়ে তারা খুরশিদার মাথার চুল কেটে চুন-কালি মেখে জুতার মালা পরিয়ে দেয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই রামগঞ্জ থানায় একটি মামলা রুজু করা হলে পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত হাছিনা বেগমকে গ্রেফতার করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ছেলের সামনে মাকে লাঞ্ছিতের প্রতিবাদে উত্তাল লক্ষ্মীপুর
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ