Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

ইসলামী কর্মতৎপরতা

প্রকাশের সময় : ৯ মার্চ, ২০১৮, ১২:০০ এএম | আপডেট : ৫:১৫ পিএম, ১০ মার্চ, ২০১৮


সরাইল উপজেলার শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান মাওলানা
মোঃ আবুল কালাম আজাদ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার পানিশ্বর মাদিনিয়া গাউছিয়া দাখিল মাদ্রাসা সুপার ও সরাইল উপজেলা বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের সাধারন সম্পাদক মাওলানা মোঃ আবুল কালাম আজাদ উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাচিত হয়েছেন। গত ১৮ই জানুয়ারী জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০১৮ উপলক্ষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উম্মে ইসরাত ও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ সহিদ খালিদ জামিল খাঁন গঠিত বাছাই কমিটি তাকে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাচিত করেন। মাওলানা মোঃ আবুল কালাম আজাদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার খাদলা (বড় বাড়ির) এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। তিনি কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলাধীন বাগড়া দারুল উলুম ফাজিল মাদ্রাসার সাবেক শিক্ষক ও গাউছিয়া ইসলামিক মিশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বিশিষ্ট কলামিষ্ট ও সাংবাদিক গাজী মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম জাবির এর শিক্ষক। উল্লেখ পানিশ্বর মাদিনিয়া গাউছিয়া দাখিল মাদ্রাসা থেকে গত বছর জে.ডি.সি. পরীক্ষায় ১ জন ট্যালেন্টপুল, ২ জন সাধারণ গ্রেডে এবং সমাপনী পরীক্ষায় ২ জন ট্যালেন্টপুল, ৪ জন সাধারণ গ্রেডে বৃত্তি পেয়েছে।
ম্যানিজিং কমিটির সুষ্ঠ তত্ত¡াবধানে ও শিক্ষকদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় অন্যান্য পরীক্ষায়ও ভাল ফলাফল করে আসছে। উক্ত প্রতিষ্ঠানে বর্তমানে প্রায় ৬ শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী অধ্যয়ন করছে।
ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ উজ্জল মিয়া মাদ্রাসা সুপারকে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাচিত করায় উপজেলা প্রশাসনকে আন্তরিক মোবারকবাদ জানায়।
ওলামা লীগ
সম্প্রীতির উৎসব নামে নাসির নগরে কথিত মৌলভী কর্তৃক হিন্দু পুরোহিতের হাতে কোরআন শরিফ আবার পুরোহিত কর্তৃক মৌলভীর হাতে গীতা তুলে দেয়ার মাধ্যমে কুরআন শরীফ অবমাননা করেছে আয়োজকরা। এই আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতির নামে মূলত মুসলমান ধর্মীয় স্বকীয়তা বিলুপ্ত করার অপচেষ্ঠা চালিয়েছে তারা। আজ বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগের সেক্রেটারী আলহাজ মাওলানা আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরী এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন। বিবৃতিতে তিনি বলেন, আল্লাহ পাক কুরআন শরীফে বলেছেন,“নিশ্চয়ই মুশরিকরা নাপাক বা অপবিত্র” (সূরা-তাওবাহ)। তাছাড়া ওজু ছাড়া একজন মুসলমানের যেখানে পবিত্র কুরআন শরীফ র্স্পশ করাও নিষেধ সেখানে একজন মুসলমান নামধারী মৌলভীর হাত দিয়ে অন্য একজন মুশরিক পুরোহিতের হাতে পবিত্র কুরআন শরীফ তুলে দেয়া মারাত্মক দৃষ্টতাপূর্ণ ও অমার্জনীয় অবমাননা। তিনি বলেন, আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতিবাদীরা কুরআন শরীফকে মিথ্যা প্রতিপন্ন করতে চায় তারা। তারা ইতিমধ্যে যেসব আয়াতে বিধর্মীদের সম্পর্কে আলোচনা রয়েছে সেসব আয়াত শরীফ কুরআন শরীফ থেকে বাদ দেয়ার দাবি তুলেছে। নাউযুবিল্লাহ
পবিত্র কুরআন শরীফ অবমাননা করায় নাসির নগরে আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতির আয়োজক সৈকত শুভ্র আইচ ও নেপথ্য নায়কদের অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে। এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।
-প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর