Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সৃষ্টি হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী মর্যাদার রাষ্ট্র উপদেষ্টার বিশেষ পদ

মিয়ানমারে রাষ্ট্র-ক্ষমতা পাওয়ার জন্য নতুন কৌশল নিয়ে এগুচ্ছেন সু চি

প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থি নেত্রী অং সান সু চি-র জন্য প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকার মতো  নতুন একটি পদ তৈরি করছে নতুন সরকার। পার্লামেন্টে তোলার জন্য দেশটির নতুন সরকারের তৈরি করা একটি প্রস্তাব পর্যালোচনা করে এ খবর জানিয়েছে বিবিসি। গেল বছর মিয়ানমারের ঐতিহাসিক সাধারণ নির্বাচনে সু চি-র ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) পার্টি ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলেও সাংবিধানিক বিধিবিধানের কারণে সু চি দেশটির প্রেসিডেন্ট হতে পারেননি।  নতুন এই পদটি রাষ্ট্র উপদেষ্টা ধরনের কিছু হতে পারে। অতিরিক্ত পদ সৃষ্টির প্রস্তাব সম্বলিত খসড়া প্রস্তাবটি আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে পার্লামেন্টে উত্থাপন করা হতে পারে। খসড়া প্রস্তাবে ‘রাষ্ট্র উপদেষ্টার’ পদটি তৈরি করে এর জন্য প্রয়োজনীয় তহবিল যোগান দেয়ার কথা বলা হয়েছে এবং পদটি অং সান সু চি পূরণ করবেন বলে প্রস্তাব করা হয়েছে। প্রস্তাবিত এই পদ সৃষ্টি হলে সু চিকে সরকারের সব ধরনের প্রধান ইস্যুগুলো নিয়ে কাজ করার ও যা করতে চান তাই করার সুযোগ করে দেবে। সু চি-র জন্য তৈরি নতুন এই পদটি অন্যান্য দেশের প্রধানমন্ত্রীর পদের মতোই হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। গত বুধবার সকালে নতুন সরকার শপথ নেয়ার পর প্রধান তিনটি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব সরাসরি সু চি’র অধীনে চলে গেছে এবং তিনি নতুন প্রেসিডেন্ট থিন কিয়াওকে নির্দেশনা দেবেন বলে বলা হয়েছে। এমন হতে পারে, প্রভূত ক্ষমতা হস্তগত করে সু চি অসাংবিধানিকভাবে পরিচালিত হচ্ছেন, এমন অভিযোগ এড়ানোর জন্যই তার জন্য অতিরিক্ত নতুন পদ তৈরির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সু চি ইতোমধ্যে মিয়ানমারের বেশ কিছু সরকারি পদে আসীন আছেন। নতুন সরকারে সু চি দাপ্তরিকভাবে পররাষ্ট্র সম্পর্কিত বিষয়াবলী, প্রেসিডেন্ট দপ্তর, শিক্ষা এবং জ্বালানি ও বিদ্যুৎ বিষয়ক দায়িত্বে আছেন। আর তিনি আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন প্রক্সি হিসেবে তিনিই মিয়ানমার শাসন করবেন। তার মনোনীত থিন কিয়াও গত বুধবার প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন। বিবিসি।  



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সৃষ্টি হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী মর্যাদার রাষ্ট্র উপদেষ্টার বিশেষ পদ
আরও পড়ুন