Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

সাইপ্রাসে বিমান ছিনতাইকারীর হস্তান্তর চেয়ে মিশরের অনুরোধ

প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ভুয়া আত্মঘাতী বেল্ট দিয়ে ভয় দেখিয়ে মিশরীয় বিমান ছিনতাইকারী সাইফ এলদিন মুস্তফাকে হস্তান্তরের জন্য সাইপ্রাসকে অনুরোধ জানিয়েছে মিশর। দেশটির কৌঁসুলিরা একথা বলেছেন। সাইপ্রাসের কর্মকর্তারা মুস্তফার ‘মানসিক অবস্থা অস্থিতিশীল’ আখ্যা দিয়েছে। গত মঙ্গলবার সকাল ৮টায় আলেকজান্দ্রিয়া থেকে রওনা হয়ে কায়রো যাওয়ার পথে ছিনতাই হয় বিমান। এমএস ১৮১ ফ্লাইটটিকে সাইপ্রাসের দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর শহর লারনাকার বিমানবন্দরে নামতে বাধ্য করেন ছিনতাইকারী। বিবিসি জানায়, মিশরের কৌঁসুলিরা বলছেন, ১৯৯৬ সালের দ্বিপক্ষীয় হস্তান্তর চুক্তি অনুযায়ী মুস্তফাকে মিশরে হস্তান্তর করা উচিত। বিমান ছিনতাই, অপহরণ ও ভীতি প্রদর্শনসহ কিস্ফোরক বহন সংক্রান্ত অপরাধে জড়িত থাকার সন্দেহে বুধবার সাইপ্রাসের লারকানা আদালত মুস্তফাকে ৮ দিনের রিমান্ডে রাখার আদেশ দিয়েছে। মুস্তফা তার আদালতে হাজির হওয়ার ব্যাপারে কিছু না বললেও পুলিশের গাড়িতে করে চলে যাওয়ার সময় বিজয়সূচক ‘ভি’ চিহ্ন দেখিয়েছেন।
ছিনতাইকারীর বিমান ছিনতাইয়ের কারণ নিয়ে গণমাধ্যমগুলোতে নানা ধরনের কথা বলা হয়েছে। স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে এ কথাও বলা হয়েছিল, ছিনতাইকারী তার সাবেক স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছেন, যিনি সাইপ্রাসে থাকেন। ছয় ঘণ্টারও বেশি সময়ের অচলাবস্থার পর মুস্তফা বিমান থেকে হাত তুলে বের হয়ে এসে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করলে বিমান ছিনতাই নাটকের অবসান ঘটে।
এদিকে, মিশরের অভ্যনাকরীণ রুটের বিমান ছিনতাইয়ের ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তির সঙ্গে সেলফি তুলে সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপকভাবে আলোড়ন তৈরি করেছেন ব্রিটিশ একজন বিমান যাত্রী। বেন ইন্নিস নামের ওই তরুণ বলছেন, তিনি চেয়েছিলেন ছিনতাইকারীর শরীরে যে সুইসাইড ভেস্ট বা আত্মঘাতী ডিভাইস বাধা ছিল তার আরও স্পষ্ট ছবি তোলার উদ্দেশ্যে তিনি ওই ছবি তুলতে আগ্রহী হয়েছিলেন। আলোকচিত্রে দেখা যায় ছিনতাইকারীর সঙ্গে বেশ হাশিখুশি মুখে দাঁড়িয়ে আছেন বিমানের এই যাত্রী। পরে এটি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায় এবং ব্যাপকভাবে শেয়ার হয়। এদিকে বিমান ছিনতাইয়ের ঘটনায় সেইফ এলদিন মুস্তাফাকে আদালতে হাজির করা হয়েছে। এএফপি, বিবিসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ