Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫, ৮ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

উত্তাপের মঞ্চ এবার ন্যু ক্যাম্প

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ মার্চ, ২০১৮, ১২:০০ এএম

এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নক আউট পর্বে সবচেয়ে বেশি আলোচনা হয়েছে রিয়াল-পিএসজি ম্যাচ নিয়ে। কিন্তু সব আলোচনা আর উত্তাপে পানি ঢেলে বার্নাব্যুর পর প্যারিসেও প্রতাপ দেখিয়ে ম্যাচটি একপেশে বানিয়ে জিতে নেয় জিনেদিন জিদানের রিয়াল। এই পর্বে আসল উত্তাপ ছড়ায় চেলসি-বার্সা ম্যাচটি। যে ম্যাচে ঘরের মাঠে বার্সেলোনাকে ১-১ গোলে আটকে দিয়ে উত্তেজনা ধরে রাখে প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নরা। তারই শেষ ফয়সালা হবে আজ ন্যু ক্যাম্পে।
স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের সেই ম্যাচটি অনেকদিন ধরেই ফুটবল রোমান্টিকদের চোখে লেগে থাকবে। সেটা অসাধারণ ফুটবলশৈলির কারণে নয়, ফুটবল যে মাঠের বাইরেরও খেলা সেকথা মনে করেই। দুই দলের কোচরে মধ্যে সেদিন চলেছে ট্যাকটিকের লড়াই। অনেকে এই ম্যাচকে ‘দাবার কোর্ট’ বলেও সম্বধন করেন। ফুটবল বোদ্ধাদের এমন মন্তব্যই বলে দেয় ম্যাচটা কতটা কঠিন ছিল বার্সার জন্যে। রক্ষণাত্মক ফুটবলের এক আদর্শ চিত্রায়ন যাকে বলে। মাঝমাঠে বলের দখল ধরে রেখেও চেলসির সীমানা প্রচীর ভাঙ্গা দুর্বোধ্য হয়ে পড়ে মেসিদের জন্যে।
এবারের লড়াই ন্যু ক্যাম্পে বলেই এগিয়ে রাখতে হচ্ছে কাতালান দলটিকে। ব্যাপারটা অবশ্য এমন নয় যে ন্যু ক্যাম্পে ইংলিশ দলের বিপক্ষে কখনো হারেনি বার্সা। হেরেছে। তবে পরিসংখ্যানে জয়েরই পক্ষে- ১৯টি জয়ের বিপরীতে হার ২টি, বাকি ১১টিতে ড্র। তবে চেলসি-বার্সা মুখোমুখিতে কিন্তু জয়ের পাল্টা চেলসির দিকেই ভারি। ৩-৪ ব্যবধানে এগিয়ে ব্লুরা। বাকি ছয় ম্যাচ হয়েছে ড্র। আজও যদি মেসি-সুয়ারেজরা অন্তঃত গোলশূন্য ড্র করতে পারে তবুও অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা নিয়ে আসরে টানা ১১বারের মত কোয়ার্টার ফাইনালে উঠবে বার্সা।
কাতালান জায়ান্টদের এমন স্বপ্ন দেখাচ্ছেন লিওনেল মেসির সেই গোলটি। গোল যিনি করেন মুড়ি-মুকড়ির মত, সেই মেসির কাছে কেন জানি চেলসির জাল এতদিন ছিল অচেনা। এমন নয় যে তিনি চেলসির বিপক্ষে ভালো খেলেন না। খেলেন। কিন্তু বল যেন কোন ভাবেই ঢুকতে চাইত না চেলসির জালে। সেই খরা কেটেছে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের সেই নবম ম্যাচে এসে। এখন নিশ্চয় ধারাটা ধরে রাখতে চাইবেন আর্জেন্টাইন তারকা। তাছাড়া তৃতীয় সন্তানের বাবা হওয়ার পর এই প্রথম মাঠে নামতে যাচ্ছেন ৫ বারের বর্ষসেরা। উপলক্ষ যেহেতু আছেই সেহেতু বাড়তি কিছু তো আশা করা যেতেই পারে ফুটবল জাদুকরের কাছ থেকে।
বার্সা ভক্তদের জন্য সুখবর হলো অধিনায়ক আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার অনুশীলনে ফেরা। ৪ মার্চ অ্যাটলেটিকো ম্যাচের দিন হ্যামস্ট্রিং চোট নিয়ে উঠে যান ইনিয়েস্তা। এই ম্যাচকে সামনে রেখে দলের সঙ্গে তাকে অনুশীলনে দেখা যেছে। শেষ ম্যাচে ছিলেন না মেসি। তার অনুপস্থিতে অনাধারণভাবে নিজেদের প্রমাণ করেন উসমান দেম্বেলে ও ফিলিপ কুতিনহো। আজও নিশ্চয় একই দেম্বেলে-কুতিনহোকে চাইবেন কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে। এছাড়া এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দলে ফিরেছেন বার্সার পর্তুগিজ ডিফেন্ডার নেলসন সেমেদো।
চেলসির সময়টা অবশ্য ভালো যাচ্ছে না। বার্সা ম্যাচের পর লিগে টানা দুই ম্যাচে হেরেছে তারা। ঘরের মাঠে শেষ ম্যাচে আত্মঘাতি গোলের ভাগ্যে জয় পায় ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে। লিগে তাদের অবস্থানও শীর্ষ চারের বাইরে। এমতাবন্থায় কোচ আন্তেনিও কোন্তের চাকরি পড়ে গেছে হুমকির মুখে। ইতালিয়ান কোচ নিশ্চয় এখন প্রতিপক্ষকে শেষ ছোবলের অপেক্ষায়।
দিনের অপর ম্যাচকে আনুষ্ঠানিকতা বলা চলে। ঘরের মাঠে তুরস্কের ক্লাব বাসিকতাসকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে শেষ আটে পা দিয়েই রেখেছে বায়ার্ন মিউনিখ। বাসিকতাসে এখন তাদের নিয়ম রক্ষার পালা।
আজ মুখোমুখি
বার্সেলোনা : চেলসি, রাত পৌনে ২টা
বাসিকতাস : বায়ার্ন, রাত ১১টা



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ