Inqilab Logo

সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

বেতাগীতে পরীক্ষার প্রবেশপত্র গ্রহণে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ৩ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বেতাগী (বরগুনা) উপজেলা সংবাদদাতা

বরগুনার বেতাগীতে এইচএসএসসি পরীক্ষার প্রবেশ পত্রে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের কারণে শিক্ষার্থীদের প্রবেশ পত্র সংগ্রহ করতে গিয়ে চরম হয়রানি ও দুর্ভোগে পড়তে হয়। প্রতিটি প্রবেশ পত্রের জন্য শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৭০০ টাকা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। আর এ অভিযোগ উপজেলার কাউনিয়া কলেজ, চান্দখালী মোশারেফ হোসেন ডিগ্রী কলেজ,বিবিচিনি স্কুল এন্ড কলেজ ও আছমত আলী কলেজের অধ্যক্ষর বিরুদ্ধে। জানা যায়, এ প্রতিষ্ঠানগুলোয় প্রবেশ পত্রের জন্য বাধ্যতামূলক ৭০০ টাকা আদায় করা হয়েছে। আর ওই টাকা থেকে রেহাই পায়নি হতদরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীরাও। এ অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে কাউনিয়া কলেজের অধ্যক্ষ মো. হেমায়েত হোসেন বলেন,কেন্দ্র ফি বাবদ ৩৫০ টাকা নেয়া হচ্ছে যা ফরম পূরণের সময় নেয়া হয়নি। অতিরিক্ত ৩৫০ টাকা কক্ষ পরিদর্শকদের সম্মানী দেয়ার জন্য নেয়া হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। বাড়তি কোন অর্থ আদায় করা হয়নি বলে চান্দখালী মোশারেফ হোসেন ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ নিজাম উদ্দিন দাবি করে বলেন, তাদের বিরুদ্ধে বাড়তি অর্থ আদায়ের মিথ্যা অভিযোগ তোলা হচ্ছে। এদিকে বিবিচিনি স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক প্রিন্স দাস প্রবেশ পত্রের সাথে তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ের ব্যবহারিক পরীক্ষার নামে পরীক্ষার্থী প্রতি ২০০ টাকা করে অতিরিক্ত ফি আদায় করছেন নাম প্রকাশে অনেচ্ছুক একাধিক পরীক্ষার্থী এ অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে গভর্নিং বডির একাধিক সদস্যরা জানান, তাদের সভায় এত টাকা নেয়ার কোন সিদ্ধান্ত হয়নি, তারপরেও অধ্যক্ষরা কি কারণে আদায় করছে তা তাদের জানা নেই। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক হত দরিদ্র শিক্ষার্থী ও অভিভাবক সাংবাদিকদের নিকট অভিযোগ করেন, তাদের কাছ থেকে গলাকাটা অর্থ আদায় করায় আর্থিকভাবে সীমাহীন কষ্টের স্বীকার হতে হচ্ছে। এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শাহজাহান আলী শেখ বলেন, পরীক্ষার প্রবেশ পত্রে বোর্ড নির্ধারিত ৩৫০ টাকার উপরে অতিরিক্ত ফি আদায়ের কোন সুযোগ নেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বেতাগীতে পরীক্ষার প্রবেশপত্র গ্রহণে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ