Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

কার্যালয়ে হামলা-ভাঙচুরের অভিযোগ - নেত্রকোনায় বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশের বাধা

প্রকাশের সময় : ৩ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে নেত্রকোনা জেলা বিএনপির উদ্যোগে গতকাল শনিবার নেত্রকোনায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ১১টায় ছোট বাজারস্থ দলীয় কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের হতে চাইলে পুলিশ মিছিলে বাধা প্রদান করে। পরে দলীয় কার্যালয়ের সামনেই প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য আশরাফ উদ্দিন খান, সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল মান্নান তালুকদার, সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মাহফুজুল হক, জেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ডাঃ আনোয়ারুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম মনিরুজ্জামান দুদু, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক সালাউদ্দিন খান মিল্কী, বজলুর রহমান পাঠান, অর্থ সম্পাদক এস এম মুসা, দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট খলিলুর রহমান, পৌর বিএনপির সভাপতি সৈয়দ জাহেদুল আলম, সম্পাদক আমিনুল হক, সদর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক কামরুল হক, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক মশিউর রহমান মশু, যুগ্ম আহ্বায়ক মোস্তফা মাসুদ, মনি চেয়ারম্যান, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের ময়মনসিংহ বিভাগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফুল হাসান আরিফ, জেলা মহিলা দলের সাবিনা দেওয়ান রনু, আছিয়া রহমান, যুবদলের রফিকুল ইসলাম রফিক, সাইফুল ইসলাম, ছাত্রদলের সোলায়মান হাসান রুবেল, দেলোয়ার হোসেন কামরুল, খালিদ সাইফুল্লাহ মুন্না, সৈয়দ আজহারুল ইসলাম কমল, সানাউল্লাহ ও ফারদিন চৌধুরী রিমি প্রমুখ। সভায় বক্তারা বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা স্থগিত ও সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান।
এদিকে, নেত্রকোনা জেলা বিএনপির কার্যালয়ে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। জেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক ডাঃ আনোয়ারুল হক জানান, বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে জেলা বিএনপি গতকাল শনিবার সকাল ১১টায় ছোটবাজারস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচি পালন করে নেতাকর্মীরা অফিস ত্যাগ করার পর ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা ধারালো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে জয় বাংলা স্লোগান দিতে দিতে এসে অফিসে হামলা ও আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। তিনি এ হামলা ও ভাঙচুরের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। এ ব্যাপারে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান জনি বলেন, নেত্রকোনা পরিবেশ অত্যন্ত শান্ত ছিল। বিএনপি কর্মসূচির নামে পরিবেশ ঘোলাটে করতে চাচ্ছে। ছাত্রলীগ জেলা শহরে মিছিল করলেও বিএনপি অফিসে হামলা বা ভাঙচুর চালায়নি। এটি তাদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের বহিঃপ্রকাশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কার্যালয়ে হামলা-ভাঙচুরের অভিযোগ - নেত্রকোনায় বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশের বাধা
আরও পড়ুন