Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

বিএসএমএমইউকে সেন্টার অফ এক্সিলেন্স গড়ার অঙ্গীকার ভিসির

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ)’র ভিসি প্রফেসর ডা. কনক কান্তি বড়–য়া। এরপর ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা এবং দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি কামনা করে মোনাজাত করা হয়। এরপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধ কমপ্লেক্সের বঙ্গবন্ধু ভবনে রক্ষিত পরিদর্শন বইতে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে মন্তব্য লিখে স্বাক্ষর করেন ভিসি ডা. কনক কান্তি বড়–য়া।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ, ডা. সাহানা আখতার রহমান, কোষাধ্যক্ষ ডা. মোহাম্মদ আলী আসগর মোড়ল, বেসিক সায়েন্স ও প্যারাক্লিনিক্যাল সায়েন্স অনুষদের ডীন ডা. এম ইকবাল আর্সলান প্রমুখ।
ভিসি হিসেবে নিয়োগ দেয়ায় প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে নব নিযুক্ত ভিসি প্রফেসর ডা. কনক কান্তি বড়–য়া উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, মার্চ মাস স্বাধীনতার মাস। এই মার্চ মাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্মগ্রহণ করেছেন, এ মাসেই বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস এবং এ বছর (২০১৮) এই মার্চ মাসেই বাংলাদেশ স্বল্প উন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতি অর্জন করেছে। সত্যিকথা বলতে বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমারা একটি স্বাধীন বাংলাদেশ পেতাম না। বঙ্গবন্ধুই আমাদের কর্মকান্ডের সকল প্রেরণার উৎস। ভিসি বলেন,এই বিশ্ববিদ্যালয়কে চিকিৎসা শিক্ষা, গবেষণা এবং চিকিৎসা সেবায় সেন্টার অব এক্সিলেন্স হিসেবে ঘোষণার বাস্তব প্রতিফলন ঘটাতে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাবো। আমি নিজে একজন ক্লিনিশিয়ান হওয়ায় কীভাবে রোগীকে আরও অধিকতর উন্নতমানের সেবা প্রদান করা যায় সে বিষয়ে আমার সম্যক ধারণা আছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ