Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

সিলেটে মা-ছেলের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

সিলেট অফিস | প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০১৮, ২:৫১ পিএম

সিলেটের মীরাবাজার খারপাড়া এলাকায় মা ও ছেলের গলাকাটা লাশ পাওয়া গেছে। প্রাথমিকভাবে পুলিশ ধারণা করছে, শুক্রবার রাতেই তাদের হত্যা করা হয়েছে।
রোববার (০১ এপ্রিল) দুপুরে খবর পেয়ে কোতোয়ালি থানার পুলিশ ঘটনাস্থল খরপাড়ার ‘মিতালী ১৫/জে’ নম্বর বাসা থেকে লাশ দুটি উদ্ধার করে।
নিহতরা হলেন- হেলাল মিয়ার স্ত্রী মা রোকেয়া বেগম (৪৫) ও ছেলে রবিউল ইসলাম রোকন (১৬)। তারা ওই বাসার নিচতলায় ভাড়া থাকতেন। তাদের গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর এলাকায়। ওই বাসা থেকে রাইসা নামে ৫ বছরের এক শিশুকন্যাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত রোকেয়ার ভগ্নিপতি ফারুক মিয়া বলেন, সবশেষ শুক্রবার (৩০ মার্চ) সন্ধ্যায় তাদের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে ওইদিনই তাদের হত্যা করা হয়েছে। এজন্য লাশ কিছুটা পচন ধরেছে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত ওই বাসার মালিক সালমান হোসেন জানান, তারা বছরখানেক আগে এই বাসায় ভাড়াটিয়া হিসেবে উঠেছিল। ওই নারী একটি বিউটি পার্লারে কাজ করতেন এবং ছেলে মীরাবাজার একটি মাদ্রাসায় পড়তেন। বাসার অন্য ভাড়াটিয়ারা এ ঘটনার কিছুই টের পাননি। তবে সকালে মেয়ের ভগ্নিপতি ফারুক মিয়া এসে বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয় কাউন্সিলরের মাধ্যমে পুলিশকে জানিয়েছে। এরপর লাশ উদ্ধার করা হয়। এক রুমে ও অন্য রুমে ছেলের লাশ পাওয়া যায়।

এদিকে ঘটনার পর থেকে ওই বাসায় গৃহকর্মী তানিয়াকে (১৬) খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ জানান, তিনজনকেই মারতে চেয়েছিল ঘাতকরা। শিশুকন্যাকেও শ্বাসরোধ করা হয়েছিল। মেয়েটাকে পরে জ্ঞান ফিরে পেয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গৌওছুল হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শুক্রবার রাতেই মা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গলাকাটা লাশ উদ্ধার

১১ নভেম্বর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন