Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ০৫ ভাদ্র ১৪২৬, ১৮ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

মিশরে বীচ থিয়েটারে ইসরাফিল শাহীন

বিনোদন রিপোর্ট | প্রকাশের সময় : ২ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

মিশরের সবচেয়ে জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্রগুলোর অন্যতম ঐতিহাসিক শার্ম আল শেখ শহরে গতকাল থেকে শুরু হয়েছে ইয়ুথ থিয়েটার ফেস্টিভ্যাল। পৃথিবীর ৪৫টি দেশের নাটক ছাড়াও এ উৎসবে অংশ নিচ্ছে সহস্রাধিক নাট্য ব্যক্তিত্ব, নাট্য নিদের্শক ও অভিনেতারা। ইয়ুথ থিয়েটার ফেস্টিবেলে ‘বীচ থিয়েটার’ থার্ড এডিশনে ১১টি দেশের মোট ১৪ জন নাট্যনিদের্শক অংশ নিবেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার অ্যান্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ও উপমহাদেশের বহুমাত্রিক নাট্যব্যক্তিত্ব ড. ইসরাফিল শাহীন এই ফেস্টিভ্যালে বাংলাদেশ থেকে প্রথমবারের মতো অংশগ্রহণ করছেন। ‘বীচ থিয়েটার’ থার্ড এডিশনে সমুদ্র সৈকতে উম্মুক্ত স্থানে সপ্তাহব্যাপী কর্মশালা ও সেমিনার পরিচালনা করবেন ড. ইসরাফিল শাহীন। যেখানে ১১টি দেশের মোট ১৪ জন নাট্যনিদের্শক ছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত কয়েকশত নাট্য ব্যক্তিত্ব, নাট্য নিদের্শক,অভিনেতা, নাট্যকর্মী ও নাট্যশিক্ষার্থীরা অংশ নেবে। ফেস্টিভ্যাল চলবে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত। ড. ইসরাফিল শাহীন জানান, ‘এটি প্রথাগত কোনো থিয়েটার নয় বরং একটি নতুন ধারণা। শার্ম আল শেখে কর্মশালা ও সেমিনারে আমি দেশের বীচ থিয়েটার করার অভিজ্ঞতা যেমন ব্যক্ত করবো তেমনি ওখান থেকে অর্জিত বিভিন্ন বিষয় দেশে এসে বীচ থিয়েটারে প্রয়োগ করবো। অমাদের মূল লক্ষ্য বাংলাদেশের সমুদ্র তীরবর্তী সৈকতগুলোতে পর্যটনের যে অপার সম্ভবনা আছে তাকে আরও নান্দনিক করতে সেখানে আগত বিভিন্ন দেশের নানান শ্রেণী পেশার মানুষকে বীচ থিয়েটারের মাধ্যমে আনন্দিত-নস্টালজিক করার পাশপাশি দেশের লোকজ সংস্কৃতিকে তুলে ধরা।
ছবিঃ শাহীন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিশর

৯ জানুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন