Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার , ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

সউদী সফরে মোদি - দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক জোরদার করতে চায় দুই দেশ

প্রকাশের সময় : ৩ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১১:৩৪ পিএম, ২ এপ্রিল, ২০১৬

ইনকিলাব ডেস্ক : ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গতকাল শনিবার সউদী আরবে পৌঁছেছেন। বিশ্বের শীর্ষ জ্বালানি তেল রফতানিকারক দেশ সউদী আরবে তিনি নেতাদের সাথে জ্বালানি, নিরাপত্তা ও বাণিজ্য সহযোগিতা বিষয়ে আলোচনা করবেন। এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, প্রয়োজনের ৮০ শতাংশ তেল আমদানিকারক দেশ ভারত জ্বালানির স্বল্প মূল্যের সুবিধা নিতে চুক্তি স্বাক্ষরে আগ্রহী। এতে দেশটির কমবর্ধমান জ্বালানি চাহিদা মিটবে।
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা মৃদুল কুমার সফরের আগে বলেন, “আমাদের অপরিশোধিত তেলের ২০ শতাংশ আসে সউদী আরব থেকে।” তিনি আরও বলেন, “আমাদের নিশ্চিত করতে হবে যাতে এই সরবরাহ অব্যাহত থাকে। আর এটি হলো মূল এজেন্ডাগুলোর একটি যে বিষয়ে আমাদের প্রধানমন্ত্রী বাদশাহ সালমানের সাথে আলোচনা করবেন।” মৃদুল কুমার আরও বলেন, সউদী আরবে থাকা প্রায় ২৯ লাখ ৬০ হাজার ভারতীয় প্রবাসীর কল্যাণ নিশ্চিতের উপায় নিয়েও আলোচনা করবেন মোদি। তিনি জানান, এই প্রবাসীরাই প্রতি বছর ভারতে এক হাজার কোটি ডলার রেমিটেন্স পাঠায়। মৃদুল বলেন, “গুরুত্বপূর্ণ এই সফরে দ্বিপাক্ষিক, আঞ্চলিক ও বহুপাক্ষিক ইস্যুগুলোতে আলোচনা হবে।”
ভারতীয় কর্মকর্তারা হজ কার্যক্রমকে আরও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সউদী নেতাদের সাথে আলোচনা করবেন। গত সেপ্টেম্বরে হজে পদপিষ্ট হয়ে দুই হাজার হাজি মারা যান, যার মধ্যে ভারতীয় ছিলো ১১৬ জন। আল-কায়েদা, তালেবান ও লস্করে তৈয়বার সাথে যোগসাজশ থাকার অভিযোগে সউদী আরব ও যুক্তরাষ্ট্র এ সপ্তাহে যৌথভাবে চার ব্যক্তি ও দুটি সংগঠনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এর মধ্যে লস্করে তৈয়বাকে ২০০৮ সালে মুম্বাই হামলার জন্য দায়ী করে ভারত। ওই হামলায় ১৬৬ জন নিহত হয়েছিল। নিষেধাজ্ঞাপ্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন সউদী নাগরিক ইজাজ সফরাশ। পাকিস্তান ভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন লস্করে তৈয়বাকে আর্থিক ও কারিগরি সহায়তা দেয়ার অভিযোগ তার বিরুদ্ধে।
দ্বিপাক্ষিক বিনিয়োগ বেগবান করতে মোদি আজ সউদী ব্যবসায়ী নেতার সাথে সাক্ষাত করবেন। কুমার বলেন, “সউদী আরব আমাদের চতুর্থ শীর্ষ বাণিজ্যিক অংশীদার। দেশটিতে আমাদের রফতানি ১১ বিলিয়ন ডলারের বেশি।
সউদী গেজেটের খবরে বলা হয়, বাদশাহ সালমান ভারতের সাথে সুসম্পর্ক আরও তরান্বিত করতে আগ্রহী। এর আগে সউদী বাদশাহ ২০১৪ সালে নয়া দিল্লি সফরকালে দুই দেশের মধ্যে দীর্ঘদিনের ঐতিহাসিক সম্পর্কের কথা তুলে ধরেছিলেন।
রিয়াদের ভারতীয় দূতাবাস থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, মোদি বাদশাহ সালমানের সাথে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা, আঞ্চলিক শান্তি প্রতিষ্ঠা ও স্থিতিশীলতার বিষয়ে আলোচনা করবেন। তিনি উপ-প্রধান ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন নায়েফ এবং দ্বিতীয় উপ-প্রধান ও প্রতিরক্ষমন্ত্রী মুহাম্মাদ বিন সালমানের সাথেও বৈঠক করবেন। তারা সিরিয়া, ইয়েমেন ও লিবিয়া ইস্যুতেও আলোচনা করবেন। ছয় বছরের মধ্যে এটি ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রথম সউদী সফর। ২০১০ সালে প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং সউদী সফর করেছিলেন এবং দশটি দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরের পথ উন্মোচিত হয়েছিল।

 

 

 



 

Show all comments
  • Habib ৩ এপ্রিল, ২০১৬, ১:৪৪ পিএম says : 0
    ata ki somvob ?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ