Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

কাশ্মীর ইস্যুতে আফ্রিদির সুরে সুর মেলালেন ফারুক আবদুল্লাহ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ এপ্রিল, ২০১৮, ৩:৩২ পিএম

কাশ্মীর ইস্যুতে বরাবরই সোচ্চার শহীদ আফ্রিদি। ফের তাকে সেই ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে দেখা গেছে। কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদীদের হত্যার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন তিনি। তার এ চাচাছোলা মন্তব্যে বেজায় চটেছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। তবে অকুণ্ঠ সমর্থন পেয়েছেন জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহ।



আফ্রিদির সুরে সুর মিলিয়ে ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদীদের হত্যার নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, সবাই এ হত্যাযজ্ঞের নিন্দা করছে। নির্দোষ, নিরপরাধ মানুষকে নির্বিচারে হত্যা করা হচ্ছে। হত্যাকাণ্ড বন্ধ হওয়া দরকার। শান্তির জন্য পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা দরকার।

মঙ্গলবার দুপুরে টুইটবার্তায় আফ্রিদি লেখেন- ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে একটানা উদ্বেগজনক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। দৃঢ়তার সঙ্গে স্বাধীনতা চেয়ে বারবার বন্দুকের নলের সামনে দাঁড়াতে হচ্ছে নির্দোষ, নিরপরাধ মানুষকে। জাতিসংঘের মতো আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলো এখন কোথায়, তা ভেবে অবাক হচ্ছি। উপত্যকার এমন রক্তাক্ত অবস্থা দূর করতে কেন সচেষ্ট নয় এ সংগঠনগুলো?

বুমবুমখ্যাত এ তারকার টুইটের কড়া সমালোচনা করেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। তবে বেশি দৃষ্টি কাড়ে গম্ভীরের টুইটটি।। বিকালে পাল্টা টুইটে তিনি লেখেন- রাষ্ট্রসংঘ (ইউএন) ও কাশ্মীর নিয়ে আফ্রিদির টুইটের প্রতিক্রিয়া জানতে অনেক মিডিয়া আমাকে ফোন করেছিল। কি আর বলা যায়? মানসিক বিকারগ্রস্তরা ইউএন (জাতিসংঘ) মানে 'আন্ডার নাইন্টিন'ই বোঝেন। এ নিয়ে মিডিয়ার মাথাব্যথা করার দরকার নেই। নো বলে আউট করার উদযাপনে মেতেছেন তিনি।

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ককে একহাত নিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বেঙ্গালুরুতে আইপিএলে অনুশীলন শেষে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, একজন ভারতীয় হিসেবে আমি সবসময় দেশের ভালো চাইব৷ দেশের স্বার্থে পাশে দাঁড়াব৷ যদি কেউ এর বিরোধিতা করে, তবে তাকে সমর্থন করার প্রশ্ন নেই।

এ পরিপ্রেক্ষিতে ফের টুইট করেন আফ্রিদি। রাতে প্রিয় কাশ্মীরিদের সঙ্গে তোলা একটি ছবি জুড়ে দিয়ে তিনি লিখেছেন- আমরা সবাইকে সম্মান করি। একজন ক্রীড়াবিদ হিসেবে একটি উদাহরণ তুলে ধরেছি মাত্র। তবে যখন মানবাধিকারের কথা আসে, তখন আমাদের নিরপরাধ কাশ্মীরবাসীর জন্য তেমনটি আমরা প্রত্যাশা করি।

আফ্রিদিকে সমর্থন করে টুইট করেছেন পাকিস্তানের সেনাবাহিনীও। এশিয়া কাপের একটি ম্যাচে পর পর ছক্কা মেরে পাকিস্তানকে জেতানোর ভিডিও পোস্ট করেন তারা।



 

Show all comments
  • saiful islam ৫ এপ্রিল, ২০১৮, ৮:৪১ পিএম says : 0
    প্রত্যেকেই তার নিজের দেশকে ভালবাসবেন দেশের জন্য কাজ করবেন জীবন দেবেন এটাই স্বাভাবিক।কিন্ত প্রকৃত হিরোত সেই যে সত্য বলতে সাহসী হবে।ভিরাট কোহলি খুবই উচু মানের ক্রিকেটার উনার দেশপ্রেম নিয়েও কোন কথা থাকতে পারে না,কিন্তু সত্যবলার সাহস উনার নেই।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাশ্মীর

১ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন