Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

স্ট্রোক এড়াতে প্রতিদিন সকালে যা করা উচিত

প্রকাশের সময় : ৬ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম | আপডেট : ৮:১৫ পিএম, ৫ এপ্রিল, ২০১৮

উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা যাঁদের আছে তাঁদেরে বাড়িতেই রক্তচাপ পরিমাপের পরামর্শ দেওয়া হয়। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, সকালে রক্তচাপ পরিমাপ করাটাই আসলে বেশি ভালো। কারণ বিকালে পরিমাপের চাইতে সকালে পরিমাপে ষ্ট্রোকের সম্ভাবনা ধরা পড়ে সহজে। এই গবেষণায় মূলত জাপানের মানুষদের থেকে পাওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে এই ফলাফলে পৌঁছেছেন গবেষকরা। দেখা গিয়েছে, সকালে ব্লাড প্রেশার মাপার পর উচ্চ রক্তচাপ থাকলেই স্ট্রোকের সম্পর্কটা ভালোভাবে বোঝা যায়। কিন্তু সন্ধ্যায় উচ্চ রক্তচাপ থাকলে যে স্ট্রোকের ঝুঁকি থাকবে, এমনটা বলা যায় না। সকালে ব্লাড প্রেশার বেড়ে যাবার প্রবণতা দেয়া যায়।
এই প্রবণতা পাশ্চাত্যের দেশগুলোর চাইতে এশীয় দেশগুলোতে বেশি বলে জানান ডক্টর সাতোশি হোশিদে, জিচি মেডিকেল ইউনিভার্সিটির কার্ডিওভাস্কুলার মেডিসিনের অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর এবং এই গবেষণার মূল লেখক। তিনি আরও বলেন, এই কারণে এশীয়দের মাঝে সকালে রক্তচাপ পরিমাপ করাটা জরুরি। গবেষণায় ৪,৩০০-এর বেশি জাপানি মানুষ অংশ নেন যাঁদের কোনো না কোনো হৃদরোগের ঝুঁকি ছিল যেমন-উচ্চ রক্তচাপ, উচ্চ কোলেস্টেরল বা ডায়াবেটিস। দুই সপ্তাহ ধরে তাঁরা দিনে দু’বার করে বাড়িতে ব্লাড প্রেশার মাপেন। একবার সকালে এবং একবার বিকালে। এরপর চার বছর ধরে তাঁদের ফলো-আপে দেখা যায়, এঁদের মাঝে ৭৫ জনের স্ট্রোক হয়। গবেষকরা দেখেন, সকালে ব্লাড প্রেশার মাপা হলে তা যদি ১৫৫ মিলিমিটার পারদ চাপের বেশি হয়, তাহলে যাঁদের ব্লাড প্রেশার ১৩৫-এর কম তাঁদের চেয়ে এই বেশি রক্তচাপের মানুষের স্ট্রোকের ঝুঁকি থাকে সাত গুণ বেশি। সন্ধ্যায় ১৫৫-এর বেশি রক্তচাপ থাকলেও তার সাথে স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ার কোনো সংযোগ পাওয়া যায় না। এখন প্রশ্ন হল, সন্ধ্যাবেলায় ব্লাড প্রেশার মাপা হলে তার সাথে স্ট্রোকের ঝুঁকির সম্পর্ক পাওয়া যায় না কেন? কারণ, সন্ধ্যাবেলা হতে হতে সারাদিনের অনেক ব্যাপারেই ব্লাড প্রেশার বাড়তে পারে। যেমন গরম পানিতে গোসল (যা জাপানিরা খুব পছন্দ করে), খাওয়া-দাওয়া ইত্যাদি। সকালে রক্তচাপ বেড়ে গেল তার সাথে সরাসরি স্ট্রোকের সম্পর্ক থাকে। কারণ সকাল সকাল উঠেই শারীরিক ব্যাপার ছাড়া অন্য কিছু শরীরকে তেমন প্রভাবিত করে না। সকালে ব্লাড প্রেশার বেশি থাকলে তা থেকে স্ট্রোকের ঝুঁকি বোঝা যায়। কিন্তু সকালে ব্লাড প্রেশারের ওষুধ খাওয়াটা আবার বিকেলে খাওয়ার চাইতে তেমন বেশি কার্যকরী নয় বলে দেখা যায় এই গবেষণায়। তবে এই গবেষণা যেহেতু শুধুমাত্র জাপানিদের নিয়ে করা হয়েছে, অন্যান্য অঞ্চলের মানুষের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা অন্যরকম হতেও পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, দিনে দু’বার করে রক্তচাপ মাপাটা ভালো। সকালে কোনোকিছু খাওয়া বা ওষুধ গ্রহণের আগে একবার ব্লাড প্রেশার মাপা ভালো। প্রতিবার মাপার সময়ে ২-৩ বার করে রিডিং নিলে সঠিক রক্তচাপ পাওয়া যেতে পারে। কোনো কোনো চিকিৎসক দিনে আরও বেশিবার রক্তচাপ নিতে বলতে পারেন যাতে অতিরিক্ত তা ওঠানামা করে কি না তা বোঝা যায়। প্রতিদিন একই সময়ে রক্তচাপ পরিমাপ করা ভালো। শব্দ কম আসে এমন কোনো শান্ত জায়গায় বসে রক্তচাপ নিতে হবে। এর আগে টয়লেটের কাজ করে নিলে ভালো, ব্লাড প্রেশারের সঠিক মাপ পাওয়া যায়। এছাড়াও রক্তচাপ মাপার আগে ধূমপান, চা-কফি পান, ব্যায়াম এবং কিছু কিছু ওষুধ এড়িয়ে চলা উচিত।

আফতাব চৌধুরী
সাংবাদিক-কলামিস্ট।



 

Show all comments
  • Rakib Ahmed ৬ এপ্রিল, ২০১৮, ৪:২১ এএম says : 0
    Thanks for this writing
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃইদ্রিস আলী বাবু ৬ এপ্রিল, ২০১৮, ৯:৩৭ পিএম says : 2
    বতোমান আওমিক সরকার হাতে দেশ ভালো চলছে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।