Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ১২ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

বু ক ক র্ণা র

| প্রকাশের সময় : ৬ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

জোৎস্না ও জনকের গল্পগ্রন্থ
কাজী রফিকুল ইসলাম
এ গ্রন্থের প্রকাশকাল ফেব্রুয়ারি ২০১৮। গ্রন্থের মূল্য ২৫০ টাকা। প্রকাশনায় মিজান পাবলিশার্স, ৩৮/৪, বাংলাবাজার, ঢাকা। পরিবেশক একুরেট পাবলিকেশন, ঢাকা। প্রচ্ছদ এঁকেছেন হাসানুজ্জামান খান। মুদ্রণে ডিজাইন ঘর, ১১১ কেসিসি মার্কেট, খুলনা। নির্মানে গল্পকার ওমর খালেদা রুমির পারঙ্গমতা সহজেই চোখে পড়ার মতো। তার ‘জোৎস্না ও জনকের গল্প’গ্রন্থের নামকরণ অনুযায়ী গ্রন্থের ২০টি ছোটগল্পের মধ্যে একটির নাম ‘ জোৎস্না ও জনকের গল্প’। এটি গ্রন্থের শ্রেষ্ঠ ছোটগল্প। যা আমার কাছে মনে হয়েছে। এই ছোটগল্পের আকর্ষনীয় চরিত্রটি গেলেমান। গেলেমান একটি রাজনৈতিক চরিত্র। বাংলাদেশের রাজনীতির প্রেক্ষাপটে অতীত ইতিহাসের চর্বিতাচর্বন নিয়ে গেলেমাল চরিত্রটিকে ভাবনার তলানীতে সমাজতন্ত্রী এবং বর্তমান রাজনীতির তলানীতে গণতন্ত্রী হিসেবে দেখাতে গিয়ে গল্পকার ওমর খালেদা রুমি তার চাতুর্যমন্ডিত অভিজ্ঞতার লেখানীতে আশ্চর্যজনকভাবে তাকে পরিস্ফুটিতে করে তুলেছেন। যা অন্য কোনো গল্পকারের পক্ষে সহজে সম্ভব নয়। এই চরিত্রটি নির্মাণে গল্পকার ঐ গল্পে সুন্দরতার পরিস্ফুটনে যথার্থই লিখেছেন-
“গেলেমানের সম্পর্কে আমি কিছু জানতাম না।
না জানানই কথা। কারণ গেলেমানকে আমি কখনো
দেখিনি। তবুও আমার মস্তিষ্কের ভেতরে সে ডালপালা
বিস্তার করতে শুরু করলো।”
গল্পকার-ঔপন্যাসিক আবুল মনসুর আহমদের মতো ওমর খালেদ রুমিও তার ছোটগল্পের আত্মজবাণীতে এভাবে ইতিহাস-বিশ্লেষক রাজনীতিক হিসেবে গেলেমান চরিত্রটি সৃষ্টি করে চমক দেখিয়েছেন। পাশাপাশি ‘জোৎন্না ও জনকের গল্প’ গ্রন্থে আরো ১৯টি ছোটগল্পে তার লেখানীয় শিল্পশৈলী আমাদের নজর কাড়ে। সুন্দরতা সৃষ্টিতে সুন্দরতার আর একটি বৈশিষ্ট্য। প্রেমের খন্ডকাহিনী গ্রন্থটির প্রথম ছোটগল্পে বিশেষভাবে লক্ষণীয়। এই ছোটগল্পে সেতারা-মান্নানের প্রেম আদর্শিকতায় প্রতিভাত হয়েছে। ধর্মীয় ও জাতিগত বিদ্বেষবিরোধী অসাম্প্রদায়ের মনোহর কারিগরের চরিত্র সৃষ্টির মাধ্যমে নিগ্রহ নিরসনে বাস্তব সমাজচিত্র তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছেন। ‘পারাপার’ নামক ছোটগল্পেও এই ধরনের খন্ডকাহিনীর চরিত্র রয়েছে দাসু ও সুধারাম। এই ছোটগল্পে প্রেম-ভালবাসা ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের হতাশা ব্যক্ত হয়েছে।
দিয়েছে। প্রতিটি গল্পে রয়েছে সৌকর্য, স্বাতন্ত্র্য, সুন্দর বর্ণনা। এক গল্প ভূমিকায় তিনি উল্লেখ করেছেন -
“but not all of them
are meant to stay till the end.”
‘ঘূণপোকার শরীর,’ ‘সয়লাব,’ ‘আমার আনন্দ আমার বিষাদ,’ ‘কাদেরের জীবনের শেষ সাত দিন’, ‘আযোড়-যোড়ন’, ‘রাজাকারের রোজনামচা’, ‘জন্মান্ধ মোটর সাইকেল ও একটি অপঘাতে মৃত্যুর গল্প’,‘আড্ডাবাজ’ প্রভৃতি ছোটগল্পে-প্রেম-বিরহ, ইতিহাস, ঐতিহ্য, সামাজিক বৈষম্য এবং আমাদের জীবনাচরণের বহুমুখী বৈশিষ্ট্য বাস্তবতা নিয়ে পরিস্ফুটিত হয়েছে।
‘জোৎস্না ও জনকের গল্প’, নামক গ্রন্থের শেষ পর্যায়ে গল্পকার ওমর খালেদ রুমির জীবন ও সাহিত্য সম্পর্কে যা কিছু বলা হয়েছে, তার মধ্যে কোনো অতিকথন নেই। তার রচিত ও প্রকাশিত জোৎস্না ও জনকের গল্প’ নামক গ্রন্থটি পাঠ করে পাঠক বিমুগ্ধ ও আকৃষ্ট হোক, এটাই আমার প্রত্যাশা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।