Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

আ. লীগ নেতার বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেয়ায় খুন

চট্টগ্রামে মহিউদ্দিন হত্যায় ৩জনের স্বীকারোক্তি

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৭ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

আওয়ামী লীগ নেতা হাজী ইকবালের বিরোধিতা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার জেরে যুবলীগ কর্মী মহিউদ্দিন মহিদ খুন হন বলে আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে জানিয়েছেন গ্রেফতার তিন আসামী। মহিউদ্দিন খুনের দায় স্বীকার করে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন তারা। আসামীরা হলেন, যুবলীগ কর্মী ও ইকবালের অনুসারী হারুনুর রশিদ, বখতেয়ার আলম প্রিন্স ও সাগর। মহানগর হাকিম আলম ইমরান খানের আদালতে এ তিন আসামি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন বলে জানান আদালত পুলিশের সহকারী কমিশনার কাজী শাহাবুদ্দিন।
জবানবন্দির বরাত দিয়ে পুলিশ জানায় তারা জবানবন্দিতে খুনের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার এবং ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন। মূলত হাজী ইকবালকে নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়া, এলাকার কর্তৃত্ব নিয়ে বিরোধ এবং এলাকায় তার বিরোধিতা করায় খুনের ঘটনা ঘটেছে। কারণ হাজী ইকবালের কর্তৃত্ব মানতেন না মহিউদ্দিন। একসময় মহিউদ্দিন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা হাজী ইকবালের সঙ্গে কাজ করতেন। পরবর্তীতে বিরোধের জেরে তাদের মধ্যে দূরত্ব সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে গত ২৬ মার্চ মেহের আফজল বিদ্যালয়ের পুর্নমিলনী উপলক্ষে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কক্ষে এক সভায় কুপিয়ে হত্যা করা হয় মহিউদ্দিনকে।
হত্যাকান্ডের পর মহিউদ্দিনের মা হাজী ইকবালসহ ১৭ জনকে আসামি করে বন্দর থানায় একটি মামলা করেন। এ পর্যন্ত আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে প্রধান অভিযুক্ত হাজী ইকবালের ছেলে আলী আকবর ও জিসানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বন্দর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার কামরুল হাসান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্বীকারোক্তি


আরও
আরও পড়ুন