Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ১৩ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌
শিরোনাম

লন্ডনের রাস্তায় রাত্রীকালীন সহিংসতা ৯০ মিনিটে ৬ কিশোর ছুরিকাহত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

লন্ডনের রাস্তায় মাত্র ৯০ মিনিটে ছুরিকাহত হয়েছে ৬ কিশোর। ৪টি পৃথক ছুরিকাঘাতের ঘটনার একটির শিকার হয় ১৩ বছরের এক কিশোরও। এসময় তরুণদের মৃত্যু অবসানে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে শহরের অন্যত্র বিক্ষোভ করছিলেন প্রতিবাদকারীরা।
এর আগে টোটেনহাম এমপি ডেভিড লামি বলেন, ‘আমার দেখা সবচেয়ে খারাপ’ ছিল লন্ডনের এই সহিংসতা এবং তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, বিবদমান মাদক চাঁইদের মধ্যে সংঘর্ষে ধারাবাহিক হত্যাকান্ড চলতে থাকায় নিশ্চিতভাবেই রক্তপাত বন্ধের কোন চিহ্ন দেখা যাচ্ছে না।
জনগণ গত বৃহস্পতিবার পূর্ব লন্ডনের হ্যাকনি সেন্ট্রাল স্টেশনে সমবেত হয় যার অনতিদূরে আগের রাতে ইসরাইলের ১৮ বছর বয়সী কিশোর অগুনসোলা নিহত হয়। রাজধানীর রাস্তায় একের পর এক সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে বিক্ষোভকারী ও কমিউনিটির নেতারা শান্তির ডাক দিয়েছেন।
নিউহ্যামের লিটল ইলফোর্ড পার্কের কাছে ছুরিকাহত হবার পর ১৩ বছরের এক কিশোরকে মারাত্মক আহতাবস্থায় হাসপাতালে নেয়া হয়। গুরুতরভাবে শারীরিক ক্ষতি করায় জড়িত সন্দেহে এসময় অপর ৩ কিশোরকে গ্রেফতার করা হয়। কয়েক মিনিট পর পশ্চিম লন্ডনের এয়ালিং ব্রডওয়েতে ছুরিকাঘাতের শিকার হয়ে আরো এক কিশোরকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। মেট্রোপলিটন পুলিশ জানায়, তারা কিশোরটির সবশেষ অবস্থা জানার অপেক্ষায় রয়েছেন। এর ঘণ্টা খানেক আগে পূর্ব লন্ডনের মাইল প্রান্তে ছুরিকাঘাতের শিকার ৩ কিশোরকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। টাওয়ার হ্যামলেটস পুলিশ জানিয়েছে, তাদের দু’জনের অবস্থা গুরুতর। তৃতীয় কিশোরকে শারীরিকভাবে গুরুতর ক্ষতি করায় জড়িত সন্দেহে গ্রেফতারের আগে সামান্য চিকিৎসা দেয়া হয়।
সেই রাতে সহিংসতার শুরু বিকেল সাড়ে ৫টায়। এসময় ইস্ট ইন্ডিয়া ডকে ছুরিকাঘাতে মারাত্মক আহত হয় ১৫ বছরের এক কিশোর। তার অবস্থা স্থিতিশীল এবং প্রাণ সংহারের কোন আশঙ্কা নেই। এয়ালিং ব্রডওয়ে বা ইস্ট ইন্ডিয়া ডকে হামলার ঘটনায় কোন গ্রেফতার নেই।
উত্তরপূর্ব লন্ডনের ওয়ালথামস্টোতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সহিংসতার ঘটনা ঘটে যখন ২০ বছরের এক ব্যক্তি ছুরিকাঘাতে মারাত্মক আহত হয়।
চলতি মাসের প্রথম ৪ দিনে রাজধানীতে তিন জন কিশোরের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে ছুরিকাঘাতের ভয়াবহতা দেখা দেয়।
গত ২ এপ্রিল উত্তর লন্ডনের টোটেনহামে তানেশা মেলবৌর্ন (১৭) নামের এক কিশোর গুলিতে নিহত হয়। কয়েক মিনিট পর ওয়ালথামস্টোর ৩ মাইল দূরে আমান শাকুর নামের ১৬ বছরের এক কিশোরকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এসব খুনের ঘটনায় কোন গ্রেফতার নেই। তবে ওগুনসোলার হত্যাকান্ডের ঘটনায় ১৭ বছরের দুই কিশোরকে আটক করা হয়।
হ্যাকনিতে প্রতিবাদ বিক্ষোভকালে বিভিন্ন বয়সের প্রতিবাদকারীরা স্টেশনের প্রবেশপথে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে এবং নিহতদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করে মানববন্ধন গড়ে তোলে। ‘গ্যাং’ নামে পরিচিত নতুন প্রজম্মের প্রতি আহŸান জানিয়ে প্রতিবাদ বিক্ষোভের আয়োজকগণ জনগণকে সংহতি প্রকাশ এবং হত্যাকাÐ বন্ধের আহŸান জানায়। আয়োজকদের একজন বলছিলেন, তিনি খুব কাছে থেকে মানুষকে হত্যা করতে দেখেছেন। তিনি বলেন, এটা দেখা স্বস্তিদায়ক নয়’। তুমি কি জান যে, এটা কোন কম্পিউটার গেম নয়। তুমি আর ফেরত আসবে না’।
‘এসব যুবক যারা পরস্পরের ক্ষতি করছে তারা আর ফিরে আসবে না এবং তারা এ থেকে শিক্ষা নিচ্ছে না’।
হ্যাকনির লিবারেল ডেমোক্র্যাট মেয়র প্রার্থী পলিন পিয়ার্স সমবেতদের উদ্দেশে বলেন, তরুণরা তাদের পরিবেশে নিজেদের ‘পরাধীন’ বলে মনে করে। তিনি বলেন, ‘বহু শিশু অসম্মানিত বলে মনে করে, তারা অনুভব করে না যে, তারা কারো না কারো সঙ্গে সংযুক্ত, তারা ভাবে না যে, তারাও সমাজের অংশ এবং তাদের অনেক কিছু ভুল হয়ে যায় দুর্ভাগ্যবশত প্রতিশোধের বশবর্তী হয়ে যায়’।
বৃহস্পতিবার আরো আগে মিঃ লামি বিবিসি রেডিও ফোর’-এর টুডেকে বলেন, ১১ বছরের শিশুদের মাদক বিক্রেতারা পদাতিক সৈনিক হিসেবে নিয়োগ দেয়। লেবার দলীয় সাবেক মন্ত্রী বলেন, ‘আমি ১৮ বছর ধরে এমপি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি, কিন্তু বর্তমানে যা দেখছি তা হচ্ছে ‘আমার দেখা সবচেয়ে নিকৃষ্ট অবস্থা’। তিনি লন্ডনের মেয়র সাদিক খান এবং সরকারের প্রতি এ সহিংসতা বন্ধে ব্যবস্থা নেবার আহŸান জানান।
জনাব সাদিক খান বলেন, এ বছরের শুরু থেকে শহরে ৫৫ জনের মৃত্যু ‘হৃদয়বিদারক’ এবং তিনি পুলিশিং বাজেট হ্রাসের জন্য সরকারের সমালোচনা করেন। ‘অবশ্যই, এটা আমাকে উদ্বিগ্ন করে, আমি মনে একটি হত্যাকান্ড অনেক বেশি’-বলেন তিনি।
‘২০১৪ সাল থেকে আমরা লন্ডন এবং দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সহিংসতা বাড়তে দেখেছি’।
‘ইতোমধ্যে আমরা বিগত সাত বছরে পুলিশিং বাজেট থেকে ৭০ কোটি পাউন্ড হ্রাস পেতে দেখেছি। আগামী ৩ বছরে সরকার আরো ৩০ কোটি পাউন্ড হ্রাসের পরিকল্পনা করছে। এ নিয়ে ১০০ কোটি পাউন্ড কাটছাট করা হচ্ছে। সুতরাং সরকারের কাছে আমার অনুরোধ, অনুগ্রহপূর্বক জাতীয় এ সমস্যা সমাধানের আমাদের সাথে কাজ করুন।’ সূত্র : দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট।



 

Show all comments
  • গনতন্ত্র ৮ এপ্রিল, ২০১৮, ১:৪৬ এএম says : 0
    জনগন বলছেন, “ আমরা করলে জংগিবাদ, ওরা করলে জংগি কেউ নাহি কয়, শ্রেনীবৈষমের আমরা স্বিকার, এর প্রতিবাদ কেন নয় ????? “
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ