Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮, ৮ বৈশাখ ১৪২৫, ০৪ শাবান ১৪৩৯ হিজরী

মন্দিরে তুলে নিয়ে মুসলিম শিশুকে গণধর্ষণের পর হত্যা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

৮ বছরের শিশু আসিফা বানু’র দেহ পড়ে ছিলো মন্দির সংলগ্ন ঝোপের আড়ালে। তিনদিন ধরে তাকে দলবেঁধে
ধর্ষণের পর গলা টিপে হত্যা করেছিলো দুর্বৃত্তরা। কিন্তু তারা স্থানীয় প্রভাবশালী ও হিন্দু ধর্মের অনুসারী হওয়ায় ভারতের কাশ্মীরে তাদেরকে বাঁচাতেই মরিয়া প্রশাসন!
কাশ্মীরের কাঠুয়া অঞ্চলের যাযাবর মুসলিম বাকারওয়াল গোষ্ঠীর মেয়ে ছিলো ৮ বছরের ছোট্ট আসিফা। কাঠুয়ার উপত্যকায় ঘোড়া চড়ানোর সময় অপহরণ করা হয় তাকে। মন্দিরে আটকে রেখে তিন দিন ধরে একদল হিন্দু পুরুষ ধর্ষণ করে তাকে। পরে মাথায় পাথর মেরে ও গলা টিপে হত্যা করা হয় আসিফাকে।
ঘটনা জানুয়ারির। কিন্তু এখনও মেয়ের হত্যার বিচার পাননি আসিফার বাবা ইউসুফ পুজওয়ালা। কারণ, ধর্ষকদের প্রত্যেকেই হিন্দু এবং স্থানীয় প্রভাবশালী। ইউসুফের ভাষ্যমতে তাদের গোত্রকে ওই এলাকাছাড়া করার উদ্দেশ্যেই খুন করা হয়েছে। এতদিন আসিফার পরিবারকে ধর্ষকদের বিরুদ্ধে মামলাই করতে দেয়া হয়নি। সোমবার কাশ্মিরের আদালত প্রাঙ্গনে এক নাটকীয় পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়, যখন মামলা রুজু করতে আসা পুলিশদের শারীরিকভাবে বাধা দেয় আসামীপক্ষের একদল হিন্দু আইনজীবী।
আইনজীবীদের বক্তব্য, এই মামলা হলে জনগণের ‘অনুভূতি’তে আঘাত দেয়া হবে। এই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় ফেসবুক এবং টুইটারজুড়ে এখন ‘জাস্টিস ফর আসিফা’ হ্যাশট্যাগের ছড়াছড়ি। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ঘটনাটি তুমুল সাড়া ফেলায় শেষ পর্যন্ত পুলিশ গ্রেফতার করেছে ৮ ধর্ষককে। মূল আসামী অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা সানজি রাম, যিনি পুরো ঘটনার ছক কষেছেন বাখেরওয়াল জনগোষ্ঠীর মনে ভয় ঢুকিয়ে দেয়ার জন্য! অন্যদের মধ্যে রয়েছে তিন পুলিশ কর্মকর্তা এবং এবং তিন কিশোর! এদিকে কাঠুয়াজুড়ে একদল নারী সোমবার মানববন্ধন করে সড়ক অবরোধ করেন ধর্ষকদের বিরুদ্ধে মামলা তুলে নেয়ার দাবি জানিয়ে। তারা হুমকি দেন, ধর্ষকেরা মুক্ত না হলে তারা আত্মাহুতি দিবেন! বিক্ষোভরত এই নারীদের বক্তব্য, বাদীপক্ষের আইনজীবীদের কথা বিশ্বাস করা যায় না, কারণ আসিফার মতো তারাও মুসলমান! ওদিকে এই ঘটনার বিভক্তি চলে এসেছে কাশ্মীরের জোট সরকারেও। রাজ্য সরকারের দুই বিজেপি মন্ত্রী চৌধুরী লাল সিং এবং চন্দর প্রকাশ গঙ্গা হিন্দু একতা মঞ্চের আয়োজনে ধর্ষকদের মুক্তির দাবিতে করা সমাবেশে যোগ দেন।
অন্যদিকে জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি দেখা করেন ভারতের ইউনিয়ন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং-এর সঙ্গে। তিনি অভিযোগ করেছেন, এক্ষেত্রে ক্ষমতাসীন দল বিজেপির নেতৃত্বহীনতার কারণেই রাজ্যে এই সঙ্কটের সৃষ্টি হয়েছে। তিনি এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন। রাজনৈতিক টানাপোড়েনের মধ্যে পড়ে আসিফার বাবা-মা সুষ্ঠু বিচার পাবেন কিনা, সেটাই এখন দেখার বিষয়। সূত্র : এনডিটিভি, বিবিসি

 


Show all comments
  • নজরুল ১৩ এপ্রিল, ২০১৮, ৫:৫০ এএম says : 0
    তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি
    Total Reply(0) Reply
  • গনতন্ত্র ১৩ এপ্রিল, ২০১৮, ১০:৪৬ এএম says : 0
    জনগন বলছেন, “ ধর্ষন -২০১৮ “ শুনতে অনেক লজ্জা হয় প্রতিদিন খবরের কাগজে ধর্ষন, যে দেশের প্রধানমন্ত্রী নারী নারী নেত্রী যখন তিনজন ৷ সব আইনেরই রূপ বদলায় ধর্ষন আইন কেন ঢাকা চাদরে, আশ্রয়ে আশ্রয়ে ওরা বেড়েছে জবাব কি কাল হাশরে ? বন্ধুক যুদ্ধে অনেকেই মরে অবাক, ধর্ষক কোনদিন মরেনা, নিরাপত্বা যখন দিতে পারিনা পদত্যাগে পাবে শান্তনা ৷
    Total Reply(0) Reply
  • SAIFUL ISLAM ১৩ এপ্রিল, ২০১৮, ১১:০৬ এএম says : 0
    RAPIST DOESN'T HAVE ANY RELIGION. THEY'RE THE MOST EVIL PEOPLE IN THE SOCIETY.
    Total Reply(0) Reply
  • Alamin Sheikh ১৩ এপ্রিল, ২০১৮, ৫:৩০ পিএম says : 0
    তাদের আসল চেহারা প্রকাশ পাচ্ছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Nazrul Islam Liton ১৩ এপ্রিল, ২০১৮, ৫:৩০ পিএম says : 0
    বিচারের বানী কাঁদে,,, নিভৃতে,, দেশে,, দেশে,,,
    Total Reply(0) Reply
  • Bashirullah Mollah ১৩ এপ্রিল, ২০১৮, ৫:৩৩ পিএম says : 0
    মাদরাসা শিক্ষা বন্ধ করতে নিল নকসা।
    Total Reply(0) Reply
  • AI ১৪ এপ্রিল, ২০১৮, ৭:২৯ এএম says : 0
    Modi can not do anything good.
    Total Reply(0) Reply
  • মনির ১৪ এপ্রিল, ২০১৮, ১১:২৩ এএম says : 0
    এখনও বাংলাদেশের একদল বুদ্ধিজীবির জ্ঞান হবে না কারন ওরা ...........,,,ওরা আমাদের বলবে সাম্প্রদায়িক, আর ওদের বলবে অসম্প্রদায়িক,,,,,,,,,
    Total Reply(0) Reply
  • azad ১৫ এপ্রিল, ২০১৮, ৬:৪৮ এএম says : 1
    এরা আবার মুসলিমদের মৌলবাদি বলে। এবার মনে হয় হিন্দুত্ব বাদের চেহারা মানুষ কিছুটা হলেও দেখতে পেল। তার পরেও কি এদের বিবেক জাগবে? আমার তো মনে হয় না। কারণ এরা এখনো ধর্ষকদের পক্ষে মিছিল করছে তাও বিজেপির মন্ত্রিরা, একটু চিন্তা করে দেখবেন কি?
    Total Reply(0) Reply
  • Saiful islam ১৯ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:২৫ পিএম says : 0
    Amar mota a oporadider k pokasha hasi dao hok, Tahola bakira shika paba.
    Total Reply(0) Reply
  • md minhaz ১৯ এপ্রিল, ২০১৮, ৬:১৪ পিএম says : 0
    india holo akta ......... jati, tara ai kaj cara ar ki korte parbe..
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর