Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬, ১৬ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

ধর্ষকদের বিচার চেয়ে জনতার মিছিলে রাহুল গান্ধী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ এপ্রিল, ২০১৮, ১০:৫৯ এএম | আপডেট : ২:৫১ পিএম, ১৩ এপ্রিল, ২০১৮

ভারতের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী ও দলের সিনিয়র নেতারা ধর্ষকদের বিচার চেয়ে জনতার সঙ্গে মিছিলে অংশ নিয়েছেন। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতের সেই মিছিলে হাজির ছিলেন রাহুলের অসুস্থ মা সোনিয়া গান্ধীও।

জম্মু ও কাশ্মীরে ধর্ষণ ও হত্যার শিকার আসিফা (৮) ও বিজেপির আইনপ্রণেতার হাতে ধর্ষিত উন্নাওয়ের (১৬) জন্য বিচার চেয়ে দিল্লির ইন্ডিয়া গেট অভিমুখে মিছিলটি করা হয়।

রাহুল সন্ধ্যাতেই টুইট করে জানিয়েছিলেন, নারী নির্যাতন এবং নির্যাতিতাদের জন্য বিচার চেয়ে মধ্যরাতে মিছিল এগোবে ইন্ডিয়া গেটের দিকে। সময় মতোই শুরু হয়েছিল মিছিল। সেই মিছিলে নির্ভয়ার বাবা-মায়ের যোগ দেওয়া অন্য মাত্রা যোগ করে। মিছিলে ছিল ২০১২ সালের ডিসেম্বরে নির্ভয়া গণধর্ষণ ও খুনের প্রতিবাদের আবহ।

ধস্তাধস্তি করেও রাহুলদের মিছিল আটকাতে পারেনি পুলিশ। তাদের গড়া ব্যারিকেড ভেঙেই মিছিল পৌঁছে যায় ইন্ডিয়া গেটে।মিছিলে যোগদানকারীদের হাতের মোমবাতির আলোয় তখন উজ্জ্বল হয়ে উঠে গোটা চত্বর। আর সেখানেই রাস্তার উপর প্রতিবাদ জানিয়ে বসে পড়নে রাহুল। তার দেখাদেখি অন্যরাও।

রাহুলের নেতৃত্বে ক’দিন আগে কংগ্রেসের অনশনকে টেক্কা দিতে বিপুল প্রচার করে সরকার পক্ষ থেকে এ দিন পাল্টা অনশনে বসলেও সেটা তেমন সাড়া জাগাতে পারেনি।

১০ জানুয়ারি বাড়ির পাশে ঘোড়া চরানোর সময় অপহৃত হয় আসিফা। শরীরে মাদক প্রবেশ করিয়ে তাকে গণধর্ষণ করা হয় যে দলে একজন পুলিশ অফিসারও ছিলেন। তিনি আসিফার হত্যাকারীকে একটু সময়ক্ষেপণের অনুরোধ করেছিলেন যাতে তিনি আরও একবার ধর্ষণ করতে পারেন।

আর ধর্ষণের শিকার উন্নওয়ের বাড়ি উত্তরপ্রদেশের লক্ষ্ণৌ থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরের একটি জেলার। তাকে ধর্ষণ করেন বিজেপি সাংসদ। এ ঘটনায় অভিযুক্ত সাংসদকে এখনো গ্রেফতার করা হয়নি। কেন গ্রেফতার করা হয়নি এমন প্রশ্নে পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগ করা হয়েছে। তদন্ত করছে সিবিআই।



 

Show all comments
  • গনতন্ত্র ১৩ এপ্রিল, ২০১৮, ১১:০৭ এএম says : 0
    জনগন বলছেন, “ ধন্যবাদ, রাহুল গান্ধী, যে ন্যায়ের সাথে থাকে, তার বিপদে সৃষ্টি কর্তাও সাহায্য করে ৷একেই বলে নেতা , দীর্ঘজীবি হন ৷“
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রাহুল গান্ধী


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ